সর্বশেষ আপডেট : ২ মিনিট ২৯ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

যে কারণে এক ব্যক্তিকে অন্ধ করে দেওয়ার নির্দেশ দিল ই’রানের আ’দালত

ই’রানের এক ব্যক্তিকে অন্ধ করে দেওয়ার শা’স্তি দিয়েছে দেশটির একটি আ’দালত। প্রতিবেশীর এক চোখ অন্ধ করে দেওয়ার অ’ভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় তাকে এই সাজা দেওয়া হয় বলে রোববার আরব নিউজ এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে।

ই’রানে প্রতিশোধমূলক সাজা দেওয়া আইনসিদ্ধ। সেই আইনের ভিত্তিতেই ৪৫ বছর বয়সী ওই ব্যক্তিকে এই সাজা দেওয়া হয়েছে বলে আরব নিউজ জানিয়েছে।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০১৮ সালে তেহরান প্রদেশের উপকণ্ঠে ফারশান এলাকায় ও ব্যক্তির সঙ্গে তার প্রতিবেশীর দ্বন্দ্ব শুরু হয়। এতে তার প্রতিবেশীর এক চোখ নষ্ট হয়ে যায়। চোখ হারিয়ে তেহরানের একটি আ’দালতে অ’ভিযোগ করেন ওই ব্যক্তির প্রতিবেশী।

তবে অ’ভিযু’ক্ত ব্যক্তির এক চোখ নাকি দুইচোখই অন্ধ করে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে তা স্থানীয় গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে জানা যায়নি।

ই’রানের বিচারব্যবস্থায় অন্ধ করে দেওয়ার নজির আছে। ২০০৮ সালে অ্যাসিড ছোড়ার অ’ভিযোগে এক ব্যক্তিকে অন্ধ করে দেওয়ার আদেশ দেয় আ’দালত। অবশ্য যিনি অ্যাসিড হা’মলার শিকার হয়েছিলেন তিনি শেষ মুহূর্তে অ’প’রাধীকে ক্ষমা করে দেওয়ায় সাজা থেকে বেঁচে যান অ’ভিযু’ক্ত ব্যক্তি।

কিন্তু ২০১৫ সালে আ’দালতের নির্দেশে অ্যাসিড হা’মলায় অ’ভিযু’ক্ত এক ব্যক্তির চোখ নষ্ট করে দেন চিকিৎসকরা। এই ঘটনার বছরখানেক পর নিজের চার বয়সী ভাগ্নিকে অ্যাসিড ছুড়ে চোখ নষ্ট করে দেওয়ার অ’প’রাধে আরেক ব্যক্তিকে একই সাজা দেয় আ’দালত।

ইস’লামী বিপ্লব পরবর্তী ই’রানে আইন শৃঙ্খলা বজায় রাখতে নিষ্ঠুর শা’স্তির বিধানের অ’ভিযোগ করে আসছে মানবাধিকার সংগঠনসহ বিভিন্ন দেশের সরকার।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    2
    Shares

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: