সর্বশেষ আপডেট : ৩ ঘন্টা আগে
বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৩ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

মধ্যপ্রাচ্যে বাড়ছে ভা’রতবিরোধী মনোভাব, পণ্য বর্জনের আহ্বান

মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশে ভা’রতীয় পণ্য বর্জনের জন্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রচারণা শুরু হয়েছে। সেপ্টেম্বরের শুরুতে ভা’রতের আসাম রাজ্যে উচ্ছেদ অ’ভিযানে মু’সলিম’দের বি’রুদ্ধে নৃ’শংসতার প্রতিবাদে এই পণ্য বর্জনের আহ্বান জানানো হচ্ছে।

আসামের উচ্ছেদ অ’ভিযানে এক মু’সলিম ব্যক্তিকে ভা’রতীয় পু’লিশের গু’লি করার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাই’রাল হলে নিন্দার ঝড় ওঠে। ভিডিওতে দেখা গেছে, আসাম সরকারের এক আলোকচিত্রী উচ্ছেদ অ’ভিযানের সময় একটি ম’রদেহে বারবার লাথি দিচ্ছেন। এই নি’র্মম ভিডিওটি উপসাগরীয় দেশগুলোতে ভা’রতবিরোধী মনোভাব উসকে দিয়েছে। আরব বিশ্বে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভা’রতীয় পণ্য বর্জনের প্রচারণা শুরু হয়েছে।

আরব দেশগুলোতে ‘ইন্ডিয়া কিলস মু’সলিম’ হ্যাশট্যাগটি ট্রেন্ডে আসতে শুরু করেছে এবং ভা’রতের বি’রুদ্ধে গণহ’ত্যার অ’ভিযোগ আনা হচ্ছে। এই হ্যাশট্যাগের মাধ্যমে উচ্ছেদ হওয়া পরিবারগুলোর প্রতি সম’র্থন জানাচ্ছেন আরব মু’সলিম’রা। একই সঙ্গে তাদের ওপর ভা’রতীয় কর্তৃপক্ষের নি’র্যা’তনের নিন্দা জানাচ্ছেন।

৩০ সেপ্টেম্বর মধ্যপ্রাচ্য বিষয়ক সংবাদমাধ্যম মিডল ইস্ট মনিটর এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, কুয়েতের জাতীয় পরিষদ মু’সলিম’দের বি’রুদ্ধে ভা’রতীয় কর্তৃপক্ষ ও হিন্দু চরমপন্থীদের নৃ’শংসতার নিন্দা জানিয়েছে। দেশটির জাতীয় পরিষদের সদস্যরা ভা’রতে মু’সলিম’দের ওপর হা’মলার বি’রুদ্ধে একটি যৌথ বিবৃতিও দিয়েছেন। কুয়েতের পার্লামেন্ট সদস্য শুয়াইব আল-মুওয়াইজ’রি ভা’রতীয় পণ্য বর্জনের ডাক দেন।

কুয়েতের সংবাদমাধ্যম সাবর নিউজ-এর ২৯ সেপ্টেম্বরের এক প্রতিবেদন অনুসারে, আল-মুওয়াইজ’রি বলেছেন, ওআইসি, ইস’লামি দেশগুলোর নেতৃবৃন্দ এবং গাল্ফ কোঅ’পারেশ কাউন্সিল, জাতিসংঘ আপনারা কোথায় যখন ভা’রত সরকার মু’সলিম, নারী ও শি’শুদের বি’রুদ্ধে জঘন্য অ’প’রাধ করছে। ভা’রতীয় পণ্য বর্জন করা আইনি দায়িত্ব।

ওমানের প্রভাবশালী ইস’লাম বিশারদ গ্র্যান্ড মুফতি শেখ আহমেদ আল খলিলি ২৮ সেপ্টেম্ব টুইটারে ভা’রতে মু’সলিম’দের বি’রুদ্ধে সহিং’সতার নিন্দা জানিয়েছেন। তিনি লিখেছেন, ভা’রতের এই সহিং’সতা সরকারি ম’দতে চরমপন্থী গোষ্ঠীগুলোর মু’সলিম নাগরিকদের বি’রুদ্ধে আগ্রাসন। এটি সবার বিবেকে আ’ঘাত করেছে।

তিনি আরও লিখেছেন, মানবতার নামে সব শান্তি প্রিয় মানুষের প্রতি আমি আহ্বান জানাচ্ছি এই আগ্রাসন বন্ধে হস্তক্ষেপ করার জন্য এবং উম্মাহ সম্প্রদায়কে এই বিষয়ে ঐক্যবদ্ধ হওয়ারও আহ্বান জানাই।

‘ইস’লামফোবিয়া’ বইয়ের লেখক খালেদ বেয়দৌন আসামের সহিং’সতাকে রাষ্ট্রীয় ম’দতে ইস’লামবিদ্বেষ এবং হিন্দুবাদী সহিং’সতা হিসেবে উল্লেখ করেছেন। সূত্র: ট্রিবিউন এক্সপ্রেস

সংবাদটি শেয়ার করুন

Comments are closed.

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: