সর্বশেষ আপডেট : ৩ ঘন্টা আগে
রবিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ২ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

এক ব্যক্তিই লুট করেছেন সেই টিলার আড়াইশ’ কোটি টাকার পাথর

সিলেটের কোম্পানীগঞ্জ উপজে’লার শাহ আরেফিন টিলা থেকে অ’বৈধভাবে ২৫১ কোটি ৫৫ লাখ ৯০ হাজার টাকার পাথর লুটের অ’ভিযোগ এনে মা’মলা করেছে দু’র্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। মা’মলায় একমাত্র আ’সামি করা হয়েছে এই টিলার কোয়ারির ইজারাদার মেসার্স বশির কোম্পানীর সত্ত্বাধিকারী উপজে’লার কাঠালবাড়ি এলাকার মোহাম্ম’দ আলীকে (৪০)।

বুধবার সিলেট জে’লা সমন্বিত কার্যালয়ে মা’মলা’টি দায়ের করেন দুদকের সহকারী পরিচালক মো. ইসমাইল হোসেন।

সিলেটের কোম্পানীগঞ্জ উপজে’লার ১৩৭ দশমিক ৫০ একর আয়তনের শাহ আরেফিন টিলার নিচে রয়েছে বড় বড় পাথর খন্ড। এসব পাথর উত্তোলন করতেধ্বং,স করে ফেলা হয়েছে সরকারি খাস খতিয়ানের বিশাল এই টিলা। লালচে, বাদামি ও আঠালো মাটির এই টিলার পুরোটা খুঁড়ে তৈরি করা হয়েছে অসংখ্য গর্তের। ফলে টিলার অস্থিত্বই এখন সঙ্কটে।

টিলার মাটি কে’টে গর্ত খুঁড়ে ঝুঁ’কিপূর্ণভাবে পাথর উত্তোলনের ফলে প্রায়ই মাটি ধসে এখানে শ্রমিকের মৃ’ত্যু হয়। গত পাঁচ বছরে এই টিলা ধসে অন্তত ২৫ জন পাথর শ্রমিক মা’রা গেছেন।

শাহ আরেফিন টিলাধ্বং,স করে অ’বৈধ ও ঝুঁ’কিপূর্ণভাবে পাথর উত্তোলনের বিষয়টি বিভিন্ন সময়ে উঠে আসে গণমাধ্যমে। ২০১৬ সালে এই টিলা থেকে পাথর উত্তোলন নিষিদ্ধ করে খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়। পাথর উত্তোলনকারীদের বি’রুদ্ধে একাধিক মা’মলাও হয়। তবু ঠেকানো যায়নি অ’বৈধ পাথর উত্তোলন।

এবার দুদকের পক্ষ থেকে প্রায় আড়াইশ’ কোটি টাকার পাথর লুটের অ’ভিযোগে মা’মলা করা হলো।

মা’মলা দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে দুদকের সিলেট জে’লা সমন্বিত কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. ইসমাইল হোসেন জানা্ন, প্রাথমিক ত’দন্তে অ’ভিযোগের সত্যতা পাওয়া যাওয়ায় মা’মলা করা হয়েছে।

মা’মলায় অ’ভিযোগ করা হয়, ২০০৪ সালের এপ্রিলে শাহ আরেফিন টিলার ৬১ একর ভ’মি পাথর উত্তোলনের জন্য ১৩ শর্তে মোহাম্ম’দ আলীকে ইজারা দেওয়া হয়। তবে ইজারা নেওয়ার পর শর্তভঙ্গ করে পাথর উত্তোলন শুরু করেন মোহাম্ম’দ আলী। এতে ওই বছরের সেপ্টেম্বরে টিলা থেকে পাথর উত্তোলনে নিষেধাজ্ঞা জারি করে খনিজ সম্পদ উন্নয় ব্যুরো।

তবে মোহাম্ম’দ আলী এই নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে পাথর উত্তোলন অব্যাহত রাখেন। এমনকি ৬১ একর ভ’মি ইজারা নিলেও তিনি টিলার পুরো ১৩৭ একর জায়গা থেকে অ’বৈধভাবে পাথর উত্তোলন শুরু করেন। পাথর উত্তোলনের পূর্বে পরিবেশগত ছাড়পত্র দেওয়ার বাধ্যবাধকতা থাকলেও তা নেননি ইজারাদার।

এসব অ’ভিযোগ এনে মা’মলার এজাহারে বলা হয়, সার্বিক বিচারে অ’বৈধভাবে ৬২ লাখ, ৮৮ হাজার ৭৫০ ঘনফুট সরকারি পাথর অভেধভাবে উত্তোলন করে ২৫১ কোটি ৫৫ লাখ ৯০ হাজার টাকা লুট করেছেন মোহাম্ম’দ আলী। যা দ-বিধি ৪২০/৪০৬ ধারায় শা’স্তিযোগ্য অ’প’রাধ।

এরআগে ২০১৭ সালে পাথর উত্তোলনকালে একসাথে ৫ শ্রমিকের মৃ’ত্যুর ঘটনায়ও এই টিলায় অ’বৈধ কার্যক্রমের বিষয়টি আলোচনায় উঠে আসে। সেসময় জে’লা প্রশাসনের ত’দন্তেও ইজারাদারে অনিয়মের প্রমাণ মেলে। ত’দন্ত প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, ৬৫ একর ভ’মি লিজ নিয়ে ১৩৭ একরের পুরো টিলা’টি ইজারাদারধ্বং,স করে দিয়েছেন।
সিলেটের তৎকালীন অ’তিরিক্ত জে’লা হাকিম (এডিএম) আবু সাফায়াৎ মুহম্ম’দ শাহেদুল ইস’লামকে প্রধান করে গঠিত ওই ত’দন্ত কমিটির প্রতিবেদনে টিলাধ্বং,সের সাথে জ’ড়িত ৪৭ জনকে চিহ্নিত করা হয়েছে। টিলা কে’টে পাথর উত্তোলনে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, শাহ আরেফিন খানকা শরীফের খাদেম এবং ইজারাদার জ’ড়িত বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  • 30
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    30
    Shares
নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: