সর্বশেষ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে
বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ১২ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

হিজাব পরায় মুসলিম নারীর ওপর এ কেমন আক্রমণ!

হিজাব পরিধান করায় অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনায় এক মু’সলিম নারীর ওপর হা’মলার ঘটনা ঘটেছে।

ভুক্তভোগী নারী জানান, রাজধানী শহরের একটি বাসে তাকে শ্লীলতাহানি ও আক্রমণ করা হয়।

বোলাত নামে তুরস্কবংশদ্ভূত এই মু’সলিম নারী জানান, বাসে এক নারী তার দিকে তেড়ে এসে বলেন, তোমা’র অন্ধবিশ্বা’স নিয়ে তুরস্কে চলে যাও।

সংবাদ সংস্থা আনাদোলু এজেন্সির কাছে সাক্ষাৎকারে ভুক্তভোগী নারী বলেন, এটা আমা’র জন্য খুব পীড়াদায়ক ঘটনা। জীবনে প্রথম এমন পরিস্থিতির মুখোমুখি হয়েছি। এই ঘটনার কিভাবে প্রতিক্রিয়া জানাতে হয় তা আমা’র জানা নেই।

আক্রমণের শিকার নারী আরও জানান, তিনি ওই বর্ণবিদ্বেষমূলক আচরণে প্রথমে কর্ণপাত করেননি। কিন্তু আক্রমণকারী তাকে ছাড়েনি। তিনি (আক্রমণকারী) অ’পমান ও বিদ্বেষমূলক মন্তব্য করেই যাচ্ছিলেন। একপর্যায়ে আক্রমণকারী তার দিকে থুথুও নিক্ষেপ করেন।

এই ঘটনার পর ভুক্তভোগী নারী বাস থেকে নেমে যান। কিন্তু তাতেও ক্ষান্ত হননি আক্রমণকারী। তিনিও বাস থেকে নামেন এবং মু’সলিম নারীর হিজাব টেনে ধরেন। শক্ত করে হিজাব টানার ফলে হিজাবে সংযু’ক্ত সুচের আ’ঘাতে বোলাত আ’হত হন। শেষমেষ বোলাত ব্যাগ থেকে মোবাইল বের করে আক্রমণকারীর ছবি তোলার চেষ্টা করলে তিনি দ্রুত চলে যান।

ভুক্তভোগী নারী এই ঘটনা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও শেয়ার করেছেন। তিনি লেখেন, আমা’র মনে হয়েছে এই ধরনের ঘটনার বি’রুদ্ধে অবস্থান নেওয়া উচিত। সবাইকে এর থেকে শিক্ষা গ্রহণ করা উচিত। শুধু হিজাব নয়, গায়ের রঙ অথবা নৃগোষ্ঠীগত কারণেও কারও সঙ্গে এমন আচরণ করা উচিত নয়। এ ধরনের আক্রমণের শিকার হলে চুপ করে থাকাও উচিত নয়।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এই ঘটনা শেয়ার করার পর বোলাতের সঙ্গে অনেকে যোগাযোগ করেন। তারা সংহতি প্রকাশ করে তাকে শুভ কা’মনা জানান।

ভুক্তভোগী নারী স্থানীয় পু’লিশের কাছে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণর জন্য অ’ভিযোগ দিয়েছেন উল্লেখ করে বলেন, আক্রমণকারী এর আগেও এ ধরনের ঘটনা ঘটিয়েছে।

বোলাত বলেন, তিনি (আক্রমণকারী) যদি মানসিক অ’সুস্থ হয়ে থাকেন, তাহলে হাসপাতা’লে তার চিকিৎসা গ্রহণ করা উচিত। রাস্তায় অন্যের ওপর এ ধরণের আচরণ অগ্রহণযোগ্য। বাসে আক্রমণের সময় অন্য যাত্রীরা চুপ ছিল উল্লেখ করে এই নারী দুঃখ করে বলেন, এ ধরণের কর্মকা’ণ্ড থামাতে তাদেরও চেষ্টা করা উচিত ছিল।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  • 3
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    3
    Shares
নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: