সর্বশেষ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে
বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ১২ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

ফেসবুকের কল্যাণে ১৪ বছর পর মিলল মা-মেয়ে

২০০৭ সালে নিজের ছয়বছর বয়সী মেয়েকে হারিয়ে দিশেহারা হয়ে গিয়েছিলেন মা। উপায় না দেখে করেছিলেন থানায় অভিযোগ।সন্দেহের তীর ছিল মেয়েটির বাবার দিকে। বাবাই মেয়েটিকে অপহরণ করেছিলেন বলে অভিযোগ তুলেছিলেন মা। কিন্তু খোঁজাখুঁজির পরও মেয়েটি যেন স্রেফ উধাও হয়ে গিয়েছিল।

সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বিষয়টি একরকম চাপাই পড়ে গিয়েছিল। এমনকি থিতিয়ে এসেছিল তদন্তের গতি। তবে ১৪ বছর পর ঘটনা মোড় নেয় অন্যদিকে। পুলিশের কাছে এসে মেয়ের খোঁজ চাওয়ার বদলে মা জানান, ফেসবুকের মাধ্যমে তার এমন একজনের সঙ্গে যোগাযোগ হয়েছে, যে তার ১৪ বছর আগের হারিয়ে যাওয়া মেয়ে!

মায়ের দাবিতে বিভ্রান্ত হয়ে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে পুলিশ। তদন্তে ওই দাবির সত্যতা মেলে।

পুলিশ জানায়, যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার বাসিন্দা অ্যাঞ্জেলিকা ভেনস-সালগাদো তার মেয়েকে খুঁজে পেয়েছেন দাবি করে তাদের কাছে আসে। অ্যাঞ্জেলিকা আর যে মেয়েটিকে তিনি নিজের হারিয়ে যাওয়া সন্তান জ্যাকুলিন হার্নান্দেজ বলে দাবি করেছেন তাদের মধ্যকার বার্তা বিনিময় খতিয়ে দেখে পুলিশ। তাদের মধ্যকার বার্তায় জানা গেছে জ্যাকুলিন বর্তমানে মেক্সিকোতে রয়েছেন। অ্যাঞ্জেলিকা মেয়েকে দেখার জন্য টেক্সাস-মেক্সিকো সীমান্তে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। তবে ফ্লোরিডা ও টেক্সাস পুলিশ আঞ্জেলিকা আর জ্যাকুলিনকে সাক্ষাতের সময়ই আটকানোর সিদ্ধান্ত নেয় বলে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানা গেছে।

আশ্চর্যজনকভাবে দেখা যায় যে মেয়েটি সত্যিই জ্যাকুলিন, আঞ্জেলিকার হারিয়ে যাওয়া সেই ছোট্ট মেয়ে। ১৯ বছর বয়সী মেয়েটি তার জীবনের ১৪টি বছরই মেক্সিকোতেই কাটিয়েছে।

তবে জ্যাকুলিন কীভাবে মেক্সিকো গেল সে ব্যাপারে পুলিশের তরফ থেকে বিস্তারিত কিছু জানানো হয়নি।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  • 5
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    5
    Shares
নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: