সর্বশেষ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে
মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

ব্রিটেনের শ্রমিক সংকট, সমাধানে লাগবে আরো কয়েক বছর

ব্রেক্সিট এবং কোভিড-১৯ এর কারণে ব্রিটেন দুই বছর কিংবা তারচেয়ে বেশী সময় পর্যন্ত কর্মী সংকটের মুখোমুখি হতে পারে বলে একটি শীর্ষস্থানীয় ব্যবসায়িক গ্রুপ সতর্ক করেছে।

সিবিআই বলেছে যে কর্মীদের অভাবের ক্রমবর্ধমান হার বাড়ছে। করো’নাভাই’রাস মহামা’রী থেকে পুনরুদ্ধারের চেষ্টা করে এমন ব্যবসাগু’লিকে আ’ঘাত করছে।

শ্রমিক সংকট, লরি চালকদের অভাবের বাইরেও বিস্তৃত, যা সুপারমা’র্কেট, পাব এবং অন্যান্য ব্যবসায় সরবরাহের শৃঙ্খলকে আ’ঘাত করছে। ব্রিটেনের প্রায় প্রতিটি সেক্টরের চলছে শ্রমিক সংকট।

এ সপ্তাহে ম্যাকডোনাল্ডের মিল্কশেক শেষ হয়ে গেছে, চিকেনের অভাবের কারণে নান্দোস তার কিছু রেস্তোরাঁ বন্ধ করে দিয়েছে এবং কিছু কিছু জায়গায় বিয়ারের ঘাটতির মুখোমুখি হয়েছেন।

এখন ওয়াগামামা’র বস বলেছেন যে নতুন ব্রেক্সিট অ’ভিবাসন বিধিনিষেধের কারণে ইউরোপ থেকে কর্মীদের অভাবের কারণে রেস্তোরাঁ শৃঙ্খলা তার সাইটের এক পঞ্চ’মাংশে শেফ নিয়োগ করতে হিমশিম খাচ্ছে।

ফেডারেশন অফ হোলসেল ডিস্ট্রিবিউটরস -এর নেতৃত্বদানকারী জেমস বিলবি বলেন, “বর্তমানে খাদ্য ও পানীয় সরবরাহ শৃঙ্খল জুড়ে দীর্ঘস্থায়ী কর্মীর অভাব রয়েছে। যার মধ্যে ৫০০,০০০ পর্যন্ত শূন্যপদ রয়েছে।

সিবিআই-এর মহাপরিচালক টনি ড্যাঙ্কার এখন স্বল্পমেয়াদী চাপ কমাতে তাদের ‘অ’ভিবাসন লিভা’র’ ব্যবহার করে সংকট দূর করতে সাহায্য করার জন্য মন্ত্রীদের আহ্বান জানিয়েছেন, যাতে শ্রমিক সংকট নিরসন হতে পারে।

মি ড্যাঙ্কার বলেছিলেন: ‘যু’ক্তরাজ্যে, মহামা’রী চলাকালীন অনেক বিদেশী কর্মী চলে গিয়েছেন। আতিথেয়তা, রসদ এবং খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ সহ সেক্টরগু’লিকে প্রভাবিত করেছে এবং নতুন অ’ভিবাসন বিধিগু’লি যারা আরও জটিল রেখেছিল তাদের প্রতিস্থাপন করে।

সরকারের উচ্চাকাঙ্ক্ষা যে যু’ক্তরাজ্যের অর্থনীতি আরও উচ্চ দক্ষ এবং উৎপাদনশীল হয়ে উঠুক তা সঠিক, কিন্তু এটা বোঝানো যে এটি রাতারাতি অর্জন করা সম্ভব নয় এবং অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারের জন্য সাময়িক ও লক্ষ্যভিত্তিক হস্তক্ষেপ।

‘সিবিআই কোম্পানিগুলোর কাছ থেকে সক্রিয়ভাবে ক্ষমতা কাটতে শুনেছে কারণ তারা চাহিদা মেটাতে পারে না, যেমন হোটেল মালিকরা বুক করার যোগ্য কক্ষের সংখ্যা সীমাবদ্ধ করে কারণ তাদের পর্যাপ্ত গৃহকর্মী নেই এবং লিনেন লন্ডার করা যায় না।

রেস্তোরাঁ মালিকদের গ্রীষ্মকালের সর্বোচ্চ ব্যবহার করার সময় দুপুরের খাবার এবং সন্ধ্যার পরিসেবা গু’লির মধ্যে বেছে নিতে হয়েছিল। এটি ভোক্তাদের কাছেও দৃশ্যমান হয় যখন রান্নাঘর বা আসবাবপত্র দ্বিগুণ কেনার জন্য নেতৃত্বের সময়।

চাকরিদাতারা মানুষকে কাজে ফিরিয়ে আনতে বিদ্যমান সরকারি স্কিমগু’লি ফিরিয়ে আন্তে এবং ব্যবসাগু’লি ইতিমধ্যেই প্রশিক্ষণের জন্য উল্লেখযোগ্য পরিমাণ ব্যয় করছে সরকার। ফলাফল পেতে সময় লাগবে এবং কিছু সদস্য পরাম’র্শ দেয় যে শ্রমিকের ঘাটতির জন্য কয়েক মাসের পরিবর্তে কয়েক বছর লাগতে পারে।

সরকারের একজন মুখপাত্র বলেন,”শ্রমিক সরবরাহকে নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছেন এবং ‘সেক্টর নেতাদের সাথে কাজ করে বুঝতে পারছি কিভাবে নির্দিষ্ট পয়েন্টগু’লি সর্বোত্তমভাবে সহ’জ করা যায় এবং দীর্ঘ মেয়াদে সফলতা আসে।

শ্রমিক সংকট মোকাবেলা করতে পয়েন্ট ভিত্তিক দক্ষ শ্রমিক আনার পরিকল্পনা রয়েছে সরকারের তবে বর্তমানে লরি ড্রাইভা’র সংকট সহ বিভিন্ন সেক্টরে শ্রমিক সংকট প্রকট ধারন করেছে। এই সংকট কাঁটিয়ে উঠতে সময় লাগবে কয়েক বছর।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  • 47
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    47
    Shares

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: