সর্বশেষ আপডেট : ৩ ঘন্টা আগে
বুধবার, ১ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

যে বন্ধুত্ব জাত দেখে না, ধর্ম দেখে না

দীর্ঘদিনের বন্ধুত্ব ছিল মীর হোসেন সওদাগর (৬৮) ও সুধীর বাবুর (৭০)। মঙ্গলবার (৭ সেপ্টেম্বর) রাতে মারা যান মীর হোসেন।

বুধবার (৮ সেপ্টেম্বর) সকালে তার জানাজা হয়। জানাজা চলাকালীন সুধীর সবার পেছনে গাছের গুঁড়িতে বসে কাঁদছেন। জানাজায় অংশগ্রহণ করতে না পারলেও বন্ধুর প্রতি এমন অকৃত্রিম দরদ সবার হৃদয়কে স্পর্শ করে। মুহূর্তের মধ্যে বন্ধু মীরের প্রতি ভালোবাসা প্রদর্শনের এ ছবি ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে। এতে সারাদেশে তোলপাড় সৃষ্টি হয়। সত্যিকারের বন্ধুত্বের বন্ধন কত শক্তিশালী হতে পারে তা নিয়ে বিস্তর আলোচনা চলছে কুমিল্লাসহ দেশজুড়ে।

জানা যায়, কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার গুণবতী বাজারের ব্যবসায়ী মীর হোসেন সওদাগর ও সুধীর বাবু ছেলেবেলার বন্ধু। মীর হোসেন সওদাগর গুণবতী বাজারে বেশ কয়েকবছর ধরে মুদি ব্যবসা করতেন। সুধীর বাবুও ব্যবসা করতেন গুণবতী বাজারে। সে কারণে তারা থাকতেন একে অপরের কাছাকাছি।

গুণবতী বাজারের ব্যবসায়ী রিপন জানান, মীর হোসেন বাজারে মুদি ব্যবসা করতেন। বুধবার সকালে গুণবতীতে তার বাড়ির কাছেই জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। তিনি ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি ছিলেন। মীর হোসেন খুব ভালো মানুষ হওয়ায় তাকে শ্রদ্ধা করতেন এলাকার মানুষ।

জানা যায়, তার চার ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে। ফেসবুকে নেটাগরিকরা লেখেন, ‘আজ সেই বন্ধুর মৃত্যুর পর সুধীর বাবু জানাজার পেছনে উপস্থিত হয়ে অশ্রু ঝরাচ্ছেন। সত্যিকারের বন্ধুত্ব আসলেই এমন হয়। যে বন্ধুত্ব জাত দেখে না, ধর্ম দেখে না, ধনী-গরিবের ভেদাভেদ চিনে না। ’

সংবাদটি শেয়ার করুন

Comments are closed.

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: