সর্বশেষ আপডেট : ৭ ঘন্টা আগে
রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ১১ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

সুনামগঞ্জে কাউন্সিলর কাকলীসহ চারজনের বি’রুদ্ধে চার্জশিট গ্রহণ

সুনামগঞ্জের ছাতক পৌরভবনে ভাঙচো’রের অ’ভিযোগে দায়েরকৃত মা’মলায় সংরক্ষিত আসনের নারী কাউন্সিলর তাছলিমা জান্নাত কাকলীসহ চারজনের বি’রুদ্ধে অ’ভিযোগপত্র (চার্জশিট) গ্রহণ করেছে আ’দালত।

মঙ্গলবার ( ৭ সেপ্টেম্বর ) দুপুরে সুনামগঞ্জের চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আ’দালতের বিচারক মো. আব্দুর রহিমের আ’দালতে এ মা’মলার অ’ভিযোগপত্র (নং-২৪০/১০/৬/০৯/২০২১) গ্রহণ করা হয় বলে জানিয়েছেন ছাতক থা’নার পরিদর্শক (ত’দন্ত) মো. মিজানুর রহমান।

মা’মলায় কাউন্সিলর কাকলী ছাড়াও অন্য আ’সামিরা হলেন- কাউন্সিলর কাকলীর স্বামী মাছুম আহম’দ (৪৫), কাকলীর ভাই নোমান ইম’দাদ কানন (৩৫) ও কার্জন মিয়া (২৮)। এদের মধ্যে প্রধান আ’সামি কাউন্সিলর কাকলী ছাতক থা’নায় ২০১৯ সালে একটি মা’মলায় এজাহারভুক্ত আ’সামি এবং কার্জন মিয়া ছাতক থা’নায় বিভিন্ন সময়ে দায়েরকৃত সাতটি মা’মলার এজাহারভুক্ত আ’সামি বলে অ’ভিযোগপত্রে উল্লেখ করা হয়েছে।

মা’মলার ত’দন্ত কর্মক’র্তা পরিদর্শক (ত’দন্ত) মো. মিজানুর রহমান জানান, ‘সোমবার আ’দালতে অ’ভিযোগপত্র দাখিল করা হয়। এরপর আজ শুনানী শেষে সেটি গ্রহণ করেছেন আ’দালত।’

অ’ভিযোগপত্রে বলা হয়েছে, ‘অ’বৈধ ব্যাটারি চালিত অটোরিক্সার অনুমোদন প্রদান না করার বিষয়ে ছাতক পৌরসভা’র সংশ্লিষ্টদের অবস্থান হার্ডলাইনে। কিন্তু ছাতক পৌরসভা’র ৪, ৫ ও ৬ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর তাছলিমা জান্নাত কাকলীর নেতৃত্বে তার স্বামী, ভাই এবং কার্জন মিয়া গং চাঁদা আদায়ের মাধ্যমে অ’বৈধভাবে ব্যাটারীচালিত অটোরিকশা চলাচল করিয়ে আসছিল। এ নিয়ে তাদের সাথে অটোরিকশা চালক ও মালিকদের বিরোধ হয়। একপর্যায়ে তারা তাদের বি’রুদ্ধে পৌরসভা’র মেয়র বরাবরে অ’ভিযোগ করেন।’

অ’ভিযোগপত্রে আরও বলা হয়, ‘গত ১৮ আগস্ট বাগবাড়ী কবরস্থান ইজিবাইক স্ট্যান্ডের ম্যানেজার ও মালিকরা পৌরসভায় লিখিত অ’ভিযোগ করলে ২২ আগস্ট কাউন্সিলরদের সমন্বয়ে মেয়রের কক্ষে আলোচনার আয়োজন করা হয়। আলোচনা চলাকালে নারী কাউন্সিলর কাকলীর নেতৃত্বে ২০-২৫ জন লোক দেশীয় অ’স্ত্রশস্ত্র নিয়ে মেয়রের কক্ষে প্রবেশ করে গালাগালি শুরু করে।’

‘একপর্যায়ে তারা পৌরভবনের বিভিন্ন কক্ষে দরজা, জানালা, টেবিলের গ্লাস ভাঙচুর করে; এতে প্রায় ৫০ হাজার টাকার ক্ষতি সাধন হয়। পাশাপাশি তারা মেয়রের বি’রুদ্ধে উস্কানীমূলক স্লোগান দিয়ে ভীতিকর পরিস্থিতিরও সৃষ্টি করে। এ ঘটনায় ছাতক পৌরসভা’র অফিস সহায়ক দীপ্ত বনিক বাদী হয়ে থা’নায় মা’মলা (নং-২৮/ ২৭-০৮-২০২১) দায়ের করেন। মা’মলা দায়েরের পর ত’দন্তে প্রত্যক্ষদর্শী সাক্ষীদের বক্তব্য, পৌরভবনে থাকা সিসিক্যামেরার ফুটেজ, ঘটনার সময়ে স্থিরচিত্র ও আলামত পর্যালোচনায় প্রাথমিকভাবে প্রমাণিত হওয়ায় এ চারজনকে আ’সামি করে অ’ভিযোগপত্র দাখিল করা হয়েছে। অ’ভিযোগপত্রে ছাতক পৌর মেয়র কালাম চৌধুরীসহ ৩১ জনকে সাক্ষী রাখা হয়েছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  • 39
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    39
    Shares
নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: