সর্বশেষ আপডেট : ১১ ঘন্টা আগে
রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

সারাদেশের মেডিকেল ও পাসপোর্ট অফিসে একযোগে র‍্যাবের অ’ভিযান, ৫০০ দালাল আ’ট’ক

সারাদেশে সেবামূলক অন্তত ৫০টি সরকারি প্রতিষ্ঠানের সামনে দালাল চক্রের বি’রুদ্ধে একযোগে অ’ভিযান পরিচালনা করেছে রেব। অ’ভিযানে আ’ট’ক ৫০০ দালালকে জে’ল-জ’রিমানা করা হয়। রোববার সকাল থেকে রেবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, জে’লা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও অন্যান্য সংস্থার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের সমন্বয়ে দেশব্যাপী অ’ভিযান পরিচালিত হয়।

সরকারি বিভিন্ন সেবামূলক প্রতিষ্ঠানের মধ্যে রয়েছে, ঢাকা মেডিকেল কলেজ, সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ, সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ, রংপুর মেডিকেল কলেজ, ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন, বিভিন্ন পাসপোর্ট অফিস ও বিআরটিএ অফিস।

অ’ভিযান সংশ্লিষ্টরা বলছেন, সম্প্রতি গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে স্বাস্থ্যখাত, পরিবহনখাত, পাসপোর্ট অফিস, বিআরটিএসহ বিভিন্ন সেক্টরে দালাল চক্রের আধিপত্য নিয়ে বেশ কিছু সংবাদ প্রকাশিত হয়। এসব দালাল চক্রের অ’ত্যাচারে সাধারণ মানুষ প্রত্যাশিত সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। অনেক সময় সেবা পেতে নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে অনেক বেশি টাকা খরচ করতে হচ্ছে। আবার অনেকেই বেশি অর্থ ব্যয় করেও প্রত্যাশিত সেবা পাচ্ছেন না। এর প্রেক্ষিতে, রেব দেশব্যাপী বিভিন্ন সেক্টরে দালাল চক্রের বি’রুদ্ধে গোয়েন্দা নজরদারি বৃদ্ধি করে। পরে রোববার দেশব্যাপী বিভিন্ন ধরনের দালাল চক্রের বি’রুদ্ধে রেবের ১৫টি ব্যাটালিয়ন একযোগে অ’ভিযান পরিচালনা করে। সারাদেশে ৬৮টি ভ্রাম্যমাণ আ’দালতে রেবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও জে’লা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা ২৪৮ দালালকে ৯ লক্ষাধিক টাকা জ’রিমানা করেন। এছাড়া ২৪৯ দালালকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদ’ণ্ড দেওয়া হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে দালাল চক্রের সদস্যরা তাদের অ’প’রাধের কথা স্বীকার করেছে।

এদিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতা’লে অ’ভিযান শেষে রেব ৩ এর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পলা’শ কুমা’র বসু সাংবাদিকদের বলেন, অ’ভিযানে ৪০ জনের বেশি জনকে আ’ট’ক করা হয়। পরে যাচাই-বাছাই শেষে স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে ৩০ জন দালালকে সাজা দেওয়া হয়। তাদের এক থেকে তিন মাস পর্যন্ত কারাদ’ণ্ড দেওয়া হয়েছে।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এই সংঘবদ্ধ দালালচক্র কৌশলে রোগীদের ভুল বুঝিয়ে নিম্নমানের হাসপাতাল ও ক্লিনিকে নিয়ে যায়। পরে রোগীরা সেখানে গিয়ে প্রতারিত হন।

অ’ভিযানের বিষয়ে রেবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন বলেন, সম্প্রতি আম’রা দেখেছি বিভিন্ন সেবামূলক প্রতিষ্ঠানে দালালদের দৌরাত্ম অনেক বেড়ে গেছে। অনেক ভুক্তভোগী প্রতারিত হয়ে রেবের কাছে অ’ভিযোগ করেছেন। রেব সাইবার মনিটরিং সেলের মাধ্যমেও আম’রা বিভিন্ন সাইবার ওয়ার্ল্ডে দেখেছি এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক নেতিবাচক প্রচারণা রয়েছে। এছাড়া রেব সদর দপ্তর পরিচালিত ফেসবুক পেজ, রেব অনলাইন মিডিয়া সেল- এখানেও অনেক ভুক্তভোগী প্রতারিত হয়ে আমাদের কাছে অ’ভিযোগ করেছেন।

তিনি বলেন, এসব অ’ভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে রেব একযোগে সারাদেশে দালালবিরোধী অ’ভিযান পারিচালনা করেছে। প্রায় ৫০টি সরকারি সংস্থার সামনে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে দালালদের আ’ট’ক করেছি। অ’ভিযানে আমাদের সঙ্গে ছিল রেবের নির্বাহী মেজিস্ট্রেট, সিভিল প্রশাসনের ম্যাজিস্ট্রেট এবং বিভিন্ন সংস্থার কর্মক’র্তারা।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  • 12
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    12
    Shares
নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: