সর্বশেষ আপডেট : ১০ মিনিট ৩২ সেকেন্ড আগে
শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ২ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

পর’কী’য়া প্রে’মিকের সঙ্গে পালালেন মা, কা’ন্না থামছে না শি’শুসন্তানের

রাজধানীর মিরপুরের দক্ষিণ মনিপুরে স্বামী ও সাত বছরের কন্যাসন্তান রেখে পর’কী’য়া প্রে’মিকের হাত ধরে ঘর ছেড়েছেন নাসরিন (২৫) নামের এক গৃহবধূ।

এ ঘটনায় গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে মিরপুর মডেল থা’নায় একটি সাধারণ ডায়রি করেছেন ওই নারীর স্বামী এমাজুল ইস’লাম।

জিডি ও পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, স্ত্রী’ ও কন্যাসন্তানকে নিয়ে দক্ষিণ মনিপুরের একটি বাসায় ভাড়া থাকতেন এমাজুল। ডিস লাইনম্যানের কাজের পাশাপাশি গাড়িও চালান তিনি।

সম্প্রতি স্ত্রী’কে মোবাইল ফোনে ব্যস্ত থাকতে দেখে স’ন্দেহ এমাজুলের। পরে জানতে পারেন নাসরিন কারো সঙ্গে পর’কী’য়া করছেন। এ নিয়ে দুজনের মধ্যে ঝগড়া বিবাদ লেগেই থাকত।

গত সোমবার কাউকে না জানিয়ে লক্ষাধিক টাকার স্বর্ণালঙ্কার, মে’য়ে জান্নাতুলের গলার চেইন ও নগদ ৪০ হাজার ৫০০ টাকা নিয়ে পর’কী’য়া প্রে’মিকের হাত ধরে চলে যান নাসরিন।

এমাজুল বলেন, ঘটনার দিন বাসায় এসে দেখি মে’য়ে কা’ন্নাকাটি করছে। এরপর আমা’র স্ত্রী’র মোবাইলে ফোন দিলে বন্ধ পাই। ঘরের মধ্যে টাকা পয়সা স্বর্ণালঙ্কার যা ছিল কিছুই খুঁজে পাইনি। সবই নিয়ে গেছে নাসরিন। মে’য়ের একটি গলার চেইন ছিল, তাও নিয়ে গেছে।

তিনি বলেন, মে’য়ে তার মায়ের জন্য সারাক্ষণ কা’ন্নাকাটি করছে। কোনোভাবেই তার কা’ন্না থামানো যাচ্ছে না। সে তার মাকে ফিরে ফেতে চায়।

এমাজুল আরও বলেন, যে ছে’লের সঙ্গে সে পালিয়েছে আমি তার নাম জানি না। তবে ইমুতে দুজনের ঘনিষ্ট একটি ছবি পেয়েছি।

জিডির ত’দন্ত কর্মক’র্তা মিরপুর থা’নার এএসআই শ্রী রাম বলেন, জিডির কপি হাতে পেয়েছি। এ ব্যাপারে খোঁজখবর নিচ্ছি।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  • 12
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    12
    Shares

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: