সর্বশেষ আপডেট : ৪ মিনিট ৯ সেকেন্ড আগে
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

কর্মহীন মালয়েশিয়া প্রবাসীরা শঙ্কায়

করো’নাভাই’রাস মহামা’রিতে বিশ্বজুড়ে লকডাউন এবং অচলাবস্থার কারণে বহু’মাত্রিক সংকট দেখা দিয়েছে মালয়েশিয়া প্রবাসীদের মাঝে। এরই মাঝে বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন কর্মহীনদের খাদ্য সহায়তা অব্যাহত রেখেছে।

এদিকে সংক্রমণরোধে দেশটির সরকার টিকা প্রদানে জো’র দিয়েছে। দুই ডোজ টিকা সম্পন্নকারীরা কর্মক্ষেত্রে যোগ দিতে পারবেন- এমনটিই জানান সংশ্লিষ্টরা। তবে চলমান লকডাউনে কিছুটা শিথিলতা আনলেও দেশটিতে বিভিন্ন সেক্টরে কর্ম’রত বাংলাদেশিরা একদিকে বেতন পাচ্ছেন না আবার অনেকে ছাঁটাই এবং মজুরি হ্রাসের কবলে পড়েছেন।

দেশটিতে অবস্থানরত প্রবাসীদের অনেকেই এখন বাড়িতে টাকা পাঠাতে পারছেন না। চাকরি নিয়েও রয়েছেন দুশ্চিন্তায়।

মালয়েশিয়ায় কর্ম’রত সাইদুল মিয়া জানান, গত চার মাস ধরে তিনি দেশে টাকা পাঠাতে পারছেন না। গত মাসে বেতন-ভাতাও পাননি। তিনি যে কারখানায় কাজ করেন সেটিও বন্ধ। বাড়ি থেকে যোগাযোগ করছে টাকা-পয়সা দরকার।

করো’নাভাই’রাসের সংক্রমণ ঠেকাতে মালয়েশিয়ায় যে কড়াকড়ি চলছে তাতে নানাভাবে ক্ষতিগ্রস্ত সবাই। এছাড়া মহামা’রির প্রভাবে দেশটির অর্থনীতিও মন্দার কবলে। এ অবস্থায় বহু প্রতিষ্ঠানে বেতন কা’টা হচ্ছে এবং শ্রমিক ছাঁটাই শুরু হয়েছে বলে জানান প্রবাসী সোহাগ মিয়া।

তিনি বলেন, আমা’র কোম্পানি প্রচুর সংখ্যক শ্রমিক ছাঁটাই করছে। ছাঁটাই একটা বিরাট সমস্যা হয়ে গেছে। আরেকটা সমস্যা হচ্ছে বেতন কাটছে। তিনি জানান, ধরেন যাদের বেতন দেড় থেকে দুই হাজার ছিল তাদের বেতন এক হাজার থেকে ১২শ’র মধ্যে নিয়ে আসছে।

এ পরিস্থিতির কারণে বাংলাদেশে থাকা প্রবাসীদের পরিবারগুলোতে আর্থিক সংকট দেখা দিচ্ছে। কথা বলে বোঝা যাচ্ছে অনেকেই সংকটে পড়ে গেছেন।

আয় কমে যাওয়ার পাশাপাশি দেশে এসে কর্মস্থলে ফেরা নিয়েও অনিশ্চয়তায় আছেন ছুটিতে থাকা প্রায় ২৫ হাজার প্রবাসী।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তথ্যমতে, শীর্ষ ৩০টি দেশ থেকে আসা রেমিটেন্সের মধ্যে ৫ম স্থানে ছিল মালয়েশিয়া। গত অর্থবছরে প্রতি মাসে গড়ে মালয়েশিয়া থেকে ১৭৫ মিলিয়ন ডলার রেমিটেন্স আসত দেশে। বর্তমানে চলমান করো’নার কারণে গত জুন-জুলাইয়ে নেমে এসেছে ১০৫ মিলিয়ন ডলারে; যা ৫ম স্থান থেকে ৭ম স্থানে চলে এসেছে। করো’না মহামা’রির প্রভাবে প্রবাসীদের টাকা পাঠানোর পরিমাণ আরও কমতে পারে বলেও আশ’ঙ্কা তৈরি হয়েছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  • 4
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    4
    Shares

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: