সর্বশেষ আপডেট : ৩৮ মিনিট ৫৬ সেকেন্ড আগে
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

দিনে ঘুমাতেন আর রাতে আসর বসাতেন পিয়াসা-মৌ

পু’লিশের অ’ভিযানে গ্রে’প্তার মডেল ফারিয়া মাহাবুব পিয়াসা ও ম’রিয়ম আক্তার মৌ ধনাঢ্য পরিবারের সন্তানদের বাসায় ডেকে ব্ল্যাকমেইল করতেন বলে জানিয়েছে পু’লিশ। তাদের বি’রুদ্ধে বাসায় ম’দ ও নাচ-গানের আসর বসিয়ে ব্ল্যাকমেইল করার একাধিক অ’ভিযোগ পেয়েছে পু’লিশ। সোমবার তাদের বি’রুদ্ধে পৃথক দুটি মা’দক মা’মলা হয়েছে। পিয়াসার বি’রুদ্ধে গুলশান থা’নায় এবং মৌয়ের বি’রুদ্ধে মোহাম্ম’দপুর থা’নায় পু’লিশ বাদী হয়ে এ মা’মলা করেন। এ মা’মলায় সোমবার তাদের তিন দিন করে রি’মান্ডে নেওয়া হয়েছে।

গোয়েন্দা সূত্র জানায়, পিয়াসা ও মৌ দিনে ঘুমাতেন আর রাতে বাসায় মা’দক ও নাচ-গানের আসর বসাতেন। এ ছাড়া যোগ দিতেন বিভিন্ন পার্টিতেও। পার্টিতে যোগ দিয়ে ধনাঢ্য পরিবারের সন্তানদের টার্গেট করে ডেকে আনতেন বাসায়। পরে তাদের সঙ্গে আ’পত্তিকর ছবি তুলে পরিবারকে পাঠিয়ে দেওয়ার হু’মকি দিয়ে অর্থ হাতিয়ে নিতেন।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পু’লিশের সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রা’ইম বিভাগ রোববার রাতে প্রথমে বারিধারায় পিয়াসার বাসায় অ’ভিযান চালিয়ে মা’দকসহ তাকে গ্রে’প্তার করে। এর পর অ’ভিযান চালানো হয় মোহাম্ম’দপুরের বাবর রোডে মৌয়ের বাসায়। তার বাসাতেও মা’দক পাওয়া যায়। পরে তাকেও গ্রে’প্তার করা হয়।

ডিবি দক্ষিণের যুগ্ম কমিশনার হারুন অর রশীদ বলেন, পিয়াসা ও মৌয়ের বি’রুদ্ধে ব্ল্যাকমেইল করার একাধিক অ’ভিযোগ পাওয়া গেছে। এই চক্রে জ’ড়িত অন্যদেরও আইনের আওতায় আনা হবে।

ঢাকা মহানগর পু’লিশের উপ-কমিশনার (মিডিয়া) ফারুক হোসেন জানান, পিয়াসা ও মৌয়ের বাসায় মা’দক পাওয়া গেছে। সোমবার তাদের দুজনকে ১০ দিনের রি’মান্ড আবেদন করে আ’দালতে পাঠানো হয়। আ’দালত তিন দিন করে রি’মান্ড মঞ্জুর করেছেন।

২০১৭ সালে মে মাসে বনানীর রেইনট্রি হোটেলে দুই বিশ্ববিদ্যালয় ছা’ত্রী ধ’র্ষণের ঘটনার পর আলোচনায় আসেন পিয়াসা। সর্বশেষ গুলশানের অ’ভিজাত ফ্ল্যাট থেকে মোসারাত জাহান মুনিয়া নামের এক তরুণীর লা’শ উ’দ্ধারের পর মা’মলায়ও পিয়াসার নাম ছিল। পিয়াসা আপন জুয়েলার্সের কর্ণধার দিলদার আহমেদের ছে’লে সাফাত আহমেদের সাবেক স্ত্রী’। রেইনট্রি হোটেলে ধ’র্ষণের ঘটনার কিছু দিন আগে সাফাতের সঙ্গে তার বিয়ে বিচ্ছেদ হয়। পিয়াসার গ্রামের বাড়ি চট্টগ্রামের কোতোয়ালি থা’নায়।

গুলশান থা’নায় পিয়াসার বি’রুদ্ধে দায়ের করা মা’মলার বাদী হয়েছেন ডিবির সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রা’ইম বিভাগের এসআই শাহিদুল ইস’লাম। এজাহারে বলা হয়েছে, পিয়াসার বাসা থেকে চারটি কলকি বা হুক্কা, ৭৮০ পিস ইয়াবা, ফ্রিজের ভেতর থেকে সিসা তৈরির সরঞ্জাম, রান্নাঘরের কেবিনেট থেকে বিদেশি ম’দ ও বিয়ার জ’ব্দ করা হয়। তিনি রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে মা’দকদ্রব্য সংগ্রহ করে বাসায় বিক্রি করতেন। নিয়মিত মা’দক ও গান-নাচের আসর বসাতেন বাসায়।

মোহাম্ম’দপুরে মৌয়ের বি’রুদ্ধে দায়ের করা মা’মলার বাদী ডিবির সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রা’ইম বিভাগের পু’লিশ পরিদর্শক শিশির কুমা’র কর্মকার। মা’মলার এজাহারে বলা হয়েছে, মৌয়ের বাসা থেকে ৭৫০ পিস ইয়াবা ও ১২ বোতল বিদেশি ম’দ জ’ব্দ করা হয়। তিনি বিভিন্ন জায়গা থেকে মা’দকদ্রব্য সংগ্রহ করতেন এবং লোকজনকে বাসায় এনে আসর বসাতেন। সেই আসরে মা’দক বিক্রি করতেন তিনি।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    2
    Shares

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: