সর্বশেষ আপডেট : ৫ ঘন্টা আগে
শনিবার, ৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ খ্রীষ্টাব্দ | ২২ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

মৌলভীবাজারে করো’না আ’ক্রান্ত অবস্থায় দোকানদারি, অ’তঃপর

গণমাধ্যমে নিউজ প্রকাশ হওয়ায় মৌলভীবাজার সদর উপজে’লা চাঁদনীঘাট ইউনিয়নের দক্ষিন বর্ষিজোড়া এলাকার মাহদী ভেরাইটিজ ষ্টোরের সত্ত্বাধিকারী করো’না পজিটিভ সৈয়দ এখলাছ আলীর ব্যবসা প্রতিষ্ঠান লকডাউন করছেন প্রশাসন।

শুক্রবার ৩০ জুলাই বিকেল সাড়ে ৪ টার দিকে সদর উপজে’লার নিবার্হী কর্মক’র্তা (ইউএনও) সাবরিনা রহমান এর নেতৃত্বে সে’নাবাহিনী ও আনসার সদস্যরা দক্ষিণ বর্ষিজোড়া এলাকায় তার দোকান ও বাড়ি লকডাউন করেন।

ইউএনও বলেন,করো’না আ’ক্রান্ত একলাছ মিয়াকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বাড়িতে থেকে ডাক্তারের পরাম’র্শ অনুযায়ী ঔষধ সেবন এবং কোন প্রকার সমস্যা হলে উপজে’লা প্রশাসননের সাথে যোগাযোগের জন্য বলেন।

উল্লেখ্য শুক্রবার ৩০ জুলাই সকালে সরেজমিনে গেলা দেখা যায় তার নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে বসে মালামাল বিক্রি করছেন। যারা ওই দোকান থেকে মালামাল ক্রয় করছেন তাদের জানা নেই করো’না আ’ক্রান্ত ব্যক্তির কাছ থেকে পণ্য ক্রয় করছেন।

মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট সদর হাসপাতা’লে সৈয়দ এখলাছ আলী করো’না পরীক্ষার জন্য নমুনা দিলে তার শরীরে গত ২৭ জুলাই সিলেট শাহ্ জালাল বিজ্ঞান ও প্রযু’ক্তি বিশ্ব বিদ্যালয়ের পিসিআর ল্যাব থেকে আসা রিপোর্টে করো’না পজিটিভ ধ’রা পড়ে।

মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট সদর হাসপাতা’লে করো’না টেস্ট রিপোর্টের তালিকার ১৯৯ ক্রমিককে সৈয়দ এখলাছ আলী করো’না পজেটিভ তালিকায় রয়েছেন।
অ’ভিযোগ রয়েছে, এলাকায় করো’না পরীক্ষা করে যাদের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে তাদের বাসা-বাড়ি ও চলাচল কেউ নজরদারী করছেনা। যে কারণে তারা হরহামেশাই ঘুরে বেড়াচ্ছেন আ’ক্রান্তরা। করো’না আ’ক্রান্ত সৈয়দ এখলাছ আলী বলেন, আমা’র করো’না হয়েছে বাড়িতে থাকি মাঝে মধ্যে নিজ দোকানে যাই।

সিভিল সার্জন ডাঃ চৌধুরী জালাল উদ্দিন মুর্শেদ বলেন, আম’রা প্রতিদিন টেস্ট রিপোর্টের ফলাফল উপজে’লা প্রশাসনের কাছে পাঠিয়ে দেই। আ’ক্রান্ত ব্যক্তিদের মোবাইল ফোনে জানিয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বাসায় অবস্থান করে চিকিৎসা নেওয়ার নির্দেশনা দিয়ে থাকি। সৈয়দ এখলাছ আলী ২৭ জুলাই আসা রিপোর্টে করো’না পজিটিভ ধ’রা পড়ে। আ’ক্রান্ত হয়েও কেউ দোকানদারি করলে এটি ঠিত হবেনা।

এ বিষয়ে মৌলভীবাজার সদর উপজে’লা নির্বাহী অফিসার সাবরিনা রহমান বলেন, আ’ক্রান্ত ব্যক্তি কোন ভাবেই দোকানদারি করতে পারেনা। এবিষয়টি জানার পর সে’নাবাহিনী ও আনসার সদস্যদের নিয়ে দক্ষিণ বর্ষিজোড়া এলাকায় তার দোকান ও বাড়ি লকডাউন করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Comments are closed.

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: