সর্বশেষ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে
মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

ছেলেকে বাঁচাতে আইসিইউ ছেড়েছিলেন মা, বাঁচলেন না কেউই

শ্বা’স নিতে পারছে না ছে’লে। মুমূর্ষ অবস্থায় আইসিইউতে শুয়ে থাকা মায়ের কানে খবরটা যেতেই ছটফট শুরু করে দেন মা। নিজের হাতে লাইফ সা’পোর্টের সরঞ্জাম খুলে ছে’লেকে আইসিইউতে আনতে চিকিৎসকদের ইশারা করেন তিনি। শত চেষ্টা করেও মাকে বোঝাতে পারেননি চিকিৎসকরা। বাধ্য হয়ে মাকে নামিয়ে আইসিইউ বেডে তোলা হয় ছে’লেকে।

আইসিইউ থেকে নামা’র একঘণ্টার মা’থায় পৃথিবীর মায়া কাটিয়ে করো’নার কাছে হার মানেন মা। কিন্তু মায়ের আত্মত্যাগের পরও বাঁচতে পারেননি ছে’লে। মা মা’রা যাওয়ার ৬ ঘণ্টার মা’থায় মা’রা যান ছে’লেও।

ম’র্মা’ন্তিক এ ঘটনাটি ঘটেছে চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতা’লের আইসিইউ ইউনিটে।

জানা যায়, করো’নায় আ’ক্রান্ত হয়ে হাসপাতালটিতে ভর্তি হন মা ও ছে’লে। মায়ের অবস্থা সংকটাপন্ন হওয়ায় আইসিইউতে নেয়া হয়েছিলো তাকে। ছে’লে ভর্তি ছিলেন সাধারণ ওয়ার্ডে। তবে ধীরে ধীরে শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা কমতে থাকে ছে’লের। তারও প্রয়োজন হয় আইসিইউর বেড। তবে হাসপাতালটির ১৪টি আইসিইউ রোগীতে ভর্তি থাকায় বেড পাওয়া যায়নি। একই অবস্থা ছিল চট্টগ্রামের প্রাইভেট মেডিকেলগুলোতেও। কোথাও খালি ছিল না আইসিইউ শয্যা। পরে মায়ের অনুরোধে তাকে নামিয়ে আইসিইউতে তোলা হয় ছে’লেকে।

ম’র্মা’ন্তিক এ ঘটনার বিষয়ে জেনারেল হাসপাতা’লের সিনিয়র কনসালটেন্ট ডা. আব্দুর রব জানান, পুরো ঘটনাটিই আমাদের চোখের সামনে ঘটেছে। কিন্তু আম’রা নিরুপায়। রোগীর চাপ বাড়ায় হাসপাতা’লে কোন আইসিইউ শয্যা খালি নেই।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  • 102
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    102
    Shares
নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: