সর্বশেষ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে
শনিবার, ৪ ডিসেম্বর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

‘স্বপ্ন’ সাজাতে গিয়ে নারায়নগঞ্জ থেকে লা’শ হয়ে ফিরলেন হবিগঞ্জের স্বপ্না

মাত্র ৬ মাস আগে স্বপ্নের ঘর সাজাতে ৫ বছর বয়সী শি’শু কন্যা ও দিনমজুর স্বামীকে নিয়ে কাজের সন্ধানে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ গিয়েছিলেন নবীগঞ্জের স্বপ্না রাণী। রূপগঞ্জের অ’গ্নিকা’ণ্ডের ট্রেজেডির সময় মা স্বপ্না রাণী ৩য় তলায় থাকায় জীবন বাঁ’চাতে লাফ দিয়ে নিচে পড়ে গিয়ে মৃ’ত্যু বরণ করেন। এ সময় তার শি’শু কন্যা বিশ্ব রাণী নিচ তলায় ছিল। লোকজনের চি’ৎকার শুনে দৌড়ে বের হয়ে যায়।

গত ৮ জুলাই নারায়ণগঞ্জ জে’লার রূপগঞ্জ উপজে’লার ভুলতায় উপস্থিত সজীব গ্রুপের প্রতিষ্ঠান সেজান জুস কোম্পানির ম’র্মা’ন্তিক অ’গ্নিকা’ন্ডে স্বপ্না রাণীর সেই স্বপ্ন স্বপ্নই রয়ে গেল। নি’হত স্বপ্না রাণী সরকার (৪০) হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজে’লার ইনাতগঞ্জ ইউনিয়নের ঘুলডুবা আদর্শ (ভূমিহীন) গ্রামের জতি সরকারের স্ত্রী’।

এদিকে মায়ের সাথে একই কোম্পানিতে কাজে থাকা বিশ্ব রাণী সরকার (৫) শি’শুটি প্রা’ণে বেঁচে ফিরে এসেছে বাবার কোলে। তার চোখে মুখে এখনো ভ’য়ানক সেইদিনের অ’গ্নিকা’ন্ডের দৃশ্য ভেসে উঠছে। চোখের সামনে মায়ের মৃ’ত্যু যেন কিছুতেই মানতে পারছে না। গর্ভধারণী মা হারিয়ে ৫ বোনের অর্তনাদে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। শোকে কাতর পুরো গ্রামবাসী।

স্বপ্না রাণীর মে’য়ে বিশ্ব রাণী সরকার জানায়, গত ৮ জুলাই অ’গ্নিকা’ন্ডর সময় তার মা জীবন বাঁ’চাতে ওই কোম্পানির ৩য় তলার জানালার কাছ থেকে লাফ দিয়ে মাটিতে লুটে পড়েন। ওই সময় তার পুরো শরীর র’ক্তমাখা ছিল। সেখানকার লোকজন তাকে উ’দ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতা’লে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃ’ত ঘোষণা করেন। পরে সেখানকার স্থানীয়দের সহযোগিতায় আইনী প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে ৯ জুলাই স্বপ্না রাণীর মৃ’তদেহ নবীগঞ্জ নিয়ে আসা হয়।

স্বপ্না রাণীর স্বামী জতি সরকার জানান, পরিবারের অভাব অনটন এবং ঋণের বোঝা দূর করতে স্বপরিবারে ৬ মাস পুর্বে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে ভাড়া বাসায় উঠেন তারা। বড় মে’য়ে বাসনা রাণী সরকার (১৭) কাজ করতেন চায়নার একটি ব্যাগ কোম্পানিতে। দ্বিতীয় মে’য়ে বিশ্ব রাণী সরকার (১৩) মায়ের সাথে একই কোম্পানিতে কাজ করতো। এছাড়াও স্বপ্না রাণীর আরো তিন কন্যা সন্তান রয়েছে। তারা হলো, মিনতি রাণী সরকার (১০), মৌসুমী রাণী সরকার (৮) ও জবা রাণী সরকার (৩)।

নি’হত স্বপ্নার স্বামী জতি সরকার আরো জানান, আম’রা গরীব মানুষ দিন মজুরের কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করে আসছিলাম। স্ত্রী’কে হারিয়ে আজ আমি ও আমা’র মে’য়েরা দিশেহারা। ঘরে কোন টাকা পয়সা নেই। কেউ আমাদেরকে সাহায্য করতেও এগিয়ে আসেনি। তিনি আরও জানান এখন বাচ্চাদের নিয়ে তিনি কি করবেন কিছু ভেবে উঠতে পারছেন না।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  • 26
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    26
    Shares
নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: