সর্বশেষ আপডেট : ৭ মিনিট ৬ সেকেন্ড আগে
শুক্রবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

শ্রীমঙ্গল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ১৫ বছর ধরে এক্সরে মেশিন অকেজো

কাগজ-কলমে ৫০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতাল হলেও গত ৯ বছর ধরে ৩১ শয্যা হাসপাতা’লের লোকবল দিয়েই চিকিৎসা কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে শ্রীমঙ্গল উপজে’লা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স।

ফলে কাঙ্ক্ষিত চিকিৎসা’সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন সেবাগ্রহীতারা।

জানা গেছে, ২০১২ সালের ৩০ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই হাসপাতাল ৫০ শয্যায় উন্নীত করেন। তবে এই ৯ বছরে ৫০ শয্যার জনবল ও চিকিৎসা’সামগ্রী কোনো কিছুই সংস্থাপন হয়নি। রয়েছে টেকনেশিয়ান ও চিকিৎসক সংকট।

সরেজমিন পরিদর্শনে দেখা যায়, প্রায় ১৫ বছর ধরে হাসপাতা’লের এক্সরে মেশিনটি অকেজো। এত বছর অব্যবহৃত অবস্থায় পড়ে থাকায় এর যন্ত্রাংশ নষ্ট হওয়ার পথে। শুধু এক্সরে মেশিন নয়, বিগত পাঁচ বছর থেকে আধুনিক আল্ট্রাসনোগ্রাম মেশিনটি চিকিৎসক ও টেকনিশিয়ানের অভাবে মুখথুবড়ে পড়ে রয়েছে।

এতে করে এ অঞ্চলের গরিব লোকজন এ চিকিৎসা’সেবা থেকে বঞ্চিত রয়েছেন। তারা বাধ্য হয়ে অ’তিরিক্ত টাকা খরচ করে শহরের বিভিন্ন ক্লিনিক থেকে এ সেবা নিচ্ছেন। বছরের পর বছর এসব জরুরি মেশিনপত্র নষ্ট হয়ে পড়ে থাকলেও তা মেরামতের উদ্যোগ নেওয়া হয়নি।

চিকিৎসক ও টেকনিশিয়ান নিয়োগে কারও মা’থাব্যথা নেই। এ পরিস্থিতিতে নতুন করে আরও একটি এক্সরে মেশিন স্থাপনের তোড়জোড় চলছে।

হাসপাতা’লের জরুরি সেবা নিয়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে ক্ষোভ দেখা গেছে। সরকারি একটি অ্যাম্বুলেন্স থাকলেও এর সেবা নিয়ে নানা অ’ভিযোগ রয়েছে ভুক্তভোগীদের । এর চালক থাকলেও সময়মতো তাকে খুঁজে না পাওয়ার অ’ভিযোগ দীর্ঘদিনের।

সেবাগ্রহীতারা জানান, অ্যাম্বুলেন্সচালক রুবেল পারভেজ শহরের বিভিন্ন বেসরকারি ক্লিনিককে রোগী রেফার্ড করার কাজে জ’ড়িত। ফোন করলে তাকে পাওয়া যায় না।

ফলে জরুরি প্রয়োজনে বাধ্য হয়ে বেশি ভাড়ায় প্রাইভেট ক্লিনিকের অ্যাম্বুলেন্স ভাড়া নিতে হয়। এর মধ্যে নানা অ’ভিযোগের মুখে কর্তৃপক্ষ চালক রুবেল পারভেজকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে। ড্রাইভা’রের শূন্যপদে টিএইচওর ড্রাইভা’র জরুরি প্রয়োজনে অ্যাম্বুলেন্সের সেবা দিয়ে আসছে বলে জানা গেছে।

প্রায় তিন লাখ ২৫ হাজার জনসংখ্যা অধ্যুষিত এ উপজে’লার জনগণ কবে ৫০ শয্যার পূর্ণ চিকিৎসা কার্যক্রমের সেবা পাবেন তা কেউ সুনির্দিষ্টভাবে বলতে পারেননি।

তবে এ ব্যাপারে করো’না আ’ক্রান্ত উপজে’লা স্বাস্থ্য ও পরিবার-পরিকল্পনা কর্মক’র্তা ডা. মো. সাজ্জাদ হোসেন চৌধুরী যুগান্তরকে বলেন, টিএইচও হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের এক বছরের মধ্যে স্থানীয় সংসদ সদস্য উপাধ্যক্ষ ড. মো. আব্দুস শহীদ এমপির সহযোগিতায় জুড়ি উপজে’লায় অ’তিরিক্ত বরাদ্দকৃত এক্সরে মেশিন খুব শিগগির স্থাপন করা হবে। যে কোনোভাবেই হোক এটিকে সচল রাখবেন বলে জানান।

তিনি আর জানান, তার প্রচেষ্টায় জেনারেটর সার্ভিস চালু, হাসপাতাল পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা ও রোগীদের উন্নতমানের খাবার সরবরাহসহ বিভিন্ন সেবামূলক কার্যক্রম চালু রয়েছে, যা সব মহলে প্রশংসিত হয়েছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  • 217
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    217
    Shares

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: