সর্বশেষ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে
বুধবার, ৪ অগাস্ট ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ২০ শ্রাবণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

লকডাউনে হার্ডলাইনে থাকবে পুলিশ

দেশব্যাপী করো’নাভাই’রাসের প্রাদুর্ভাব আবারও বাড়তে শুরু করছে। রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন বিভাগীয় ও জে’লা হাসপাতালগুলোতে প্রতিনিয়ত বেড়ে চলছে করো’নার রোগীর সংখ্যা। একদিকে যেমন বাড়ছে করো’না সংক্রমণের হার, তেমনি বাড়ছে মৃ’ত্যুর সংখ্যা।

সংক্রমণ ও মৃ’ত্যুর সংখ্যা যেন অনিয়ন্ত্রিত না হয়ে পড়ে সেই লক্ষ্যে ইতোমধ্যে আগামী সোমবার (২৮ জুন) থেকে লকডাউনের ঘোষণা করছে সরকার। প্রথম তিন দিন কিছুটা শিথিলতা থাকলেও বৃহস্পতিবার (১ জুলাই) থেকে দেশব্যাপী সর্বাত্মক লকডাউন শুরু হবে।

এদিকে সরকার ঘোষিত লকডাউনকে সফল করতে ইতোমধ্যেই প্রস্তুতি নিতে শুরু করছে পু’লিশ। চলতি বছরের ঘোষিত কয়েক দফা বিধিনিষেধের মতো এবার শিথিলতা দেখাবে না পু’লিশ। পূর্বে সরকারের উচ্চ পর্যায়ের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী মাঠ পর্যায়ে মুভমেন্ট পাস নিয়ে কড়াকড়ি ছাড়া অন্য কোনো কঠোর পদক্ষেপ নেয়নি পু’লিশ। তবে এবারের লকডাউনে হার্ডলাইনে থাকবে পু’লিশ।

পু’লিশ সদরদফতর সূত্রে জানা যায়, চলতি বছরে যে কয়েকবার বিধিনিষেধ ঘোষণা করা হয়েছিল সেসময় হার্ডলাইনে না গিয়ে জনগণকে সচেতন করার কাজ পু’লিশ মাঠ পর্যায়ে করেছে। বিধিনিষেধের সময় গণপরিবহন, শপিং ও ঈদযাত্রা চালু থাকায় সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী মাঠ পর্যায়ে হার্ডলাইনে যেতে পারেনি পু’লিশ। তবে মুভমেন্ট পাস ও চেক পোস্টের মাধ্যমে বিধিনিষেধকে কার্যকর করার প্রচেষ্টা ছিল পু’লিশের। তবে এবার পরিস্থিতি ভিন্ন। করো’নার ভা’রতীয় ভ’য়াবহ ধরন দেশে ছড়াচ্ছে বলে বিভিন্ন গবেষণায় উঠে এসেছে, সেহেতু এবারের লকডাউনে আর কোনো ছাড় দেওয়া হবে না।

জানা যায়, নতুন লকডাউন ঘোষণার পরপরই হার্ডলাইনে থাকার নির্দেশনা পেয়েছে পু’লিশ। সেই অনুযায়ী দেশব্যাপী পু’লিশের প্রতিটি ইউনিট’কে ইতোমধ্যে নির্দেশনাও দেওয়া হয়েছে প্রস্তুত থাকার জন্য। লকডাউনের প্রজ্ঞাপন হাতে পাওয়ার পরপরই মাঠ পর্যায়ে পু’লিশের কার্যক্রম দৃশ্যমান হব।

লকডাউন বাস্তবায়নে যেভাবে মাঠে থাকবে পু’লিশ

পু’লিশ সদরদফতর সূত্রে জানা যায়, লকডাউনের প্রজ্ঞাপন এখনও জারি না হওয়ায় ঠিক কী’ভাবে পু’লিশ মাঠে থাকবে তা এখনও সুনির্দিষ্ট করে জানানো হচ্ছে না। প্রজ্ঞাপন জারি হওয়ার পর এ বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হবে। তবে আসন্ন লকডাউনে পু’লিশ কী’ভাবে মাঠ পর্যায়ে কাজ করবে এ বিষয়ে বাহিনীটির উচ্চ পর্যায়ে বেশ কিছু আলোচনা ও কর্মপন্থা ঠিক হয়েছে। আগের বিধিনিষেধের মতো দেশব্যাপী বিভিন্ন চেকপোস্ট বসাবে পু’লিশ। চেকপোস্টের মাধ্যমে অযথা বা জরুরি প্রয়োজন ছাড়া যেন কেউ রাস্তায় বেড় হতে না পারে নিশ্চিত করবে পু’লিশ। তবে কেউ এই নির্দেশনা অমান্য করলে তাকে কোনো ছাড় না দিয়ে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। রাস্তায় চেকপোস্ট ছাড়াও সার্বক্ষণিক পু’লিশের টহল থাকবে যেকোনো পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার জন্য। এছাড়া জরুরি কাজে বের হলেও শতভাগ স্বাস্থ্যবিধি মেনে সবাইকে বের হতে হবে, নাহলে রাস্তায় নিয়ম অমান্যকারীদের পু’লিশি কার্যক্রমের সম্মুখীন হতে হবে।

আরও জানা যায়, লকডাউনে সবাইকে সম্পূর্ণ মেনে চলতে হবে। কোনোভাবেই নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দোকান, জরুরি সেবা, সীমিত পরিসরে যেসব অফিস খোলা রাখার কথা রয়েছে তা ছাড়া অন্য কোনো প্রতিষ্ঠান খুললেই আইন অনুযায়ী কঠোর ব্যবস্থা নেবে পু’লিশ। বিধিনিষেধ না মানলে বল প্রয়োগ করতেও এবারের লকডাউনে পু’লিশ পিছ পা হবে না। প্রাথমিকভাবে এসব সিদ্ধান্ত নেওয়া হলেও পরিস্থিতি বিবেচনায় আরও কঠোরভাবে লকডাউন বাস্তবায়নের জন্য কর্মপরিকল্পনা ঠিক করছে বাহিনীটি।

এ বিষয়ে ঢাকা মহানগর পু’লিশের (ডিএমপি) সহকারী পু’লিশ কমিশনার পদম’র্যাদার এক পু’লিশ কর্মক’র্তা ঢাকা পোস্ট’কে বলেন, এবারের লকডাউন হবে সর্বাত্মক। কাউকেই বিন্দুমাত্র সুযোগ দেওয়া হবে না নিয়ম ভঙ্গের। লকডাউন বাস্তবায়নের জন্য প্রস্তুতি নিতে আমাদের কাছে ইতোমধ্যে মৌখিক নির্দেশনা এসেছে। প্রজ্ঞাপন জারি হওয়ার পর অফিসিয়াল নির্দেশ চলে আসবে আমাদের কাছে। এরপর থেকেই মাঠ পর্যায়ের কার্যক্রম শুরু।

ঢাকা জে’লা পু’লিশের সহকারী পু’লিশ সুপার পদম’র্যাদার এক পু’লিশ কর্মক’র্তা বলেন, এবার নির্দেশনা হার্ডলাইনে থাকার। লকডাউনকে বাস্তবায়ন করতে প্রয়োজনে বল প্রয়োগের করার জন্যেও নির্দেশনা রয়েছে। তবে হার্ডলাইনের পাশাপাশি জনগণকে সচেতন করে গড়ে তুলার কার্যক্রমও পু’লিশ চালিয়ে যাবে।

সোমবার থেকে লাগবে মুভমেন্ট পাস

সোমবার (২৮ জুলাই) শুরু হওয়া লকডাউনে জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কেউই বাইরে বের হতে পারবে না। যারা জরুরি প্রয়োজনে বের হবেন তাদের অবশ্যই মুভমেন্ট পাস নিতে হবে। সড়কে চেকপোস্ট করে মুভমেন্ট পাস তল্লা’শি করবে পু’লিশ।

পু’লিশ সদরদফতরের সহকারী মহাপরিদর্শক (এআইজি-মিডিয়া অ্যান্ড পিআর) মো. সোহেল রানা ঢাকা পোস্ট’কে বলেন, লকডাউনের বিষয়ে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় প্রজ্ঞাপন জারি করবে। সেই প্রজ্ঞাপনে যেসব বিষয় উল্লেখ থাকবে সেগুলো বাস্তবায়নে কাজ করবে বাংলাদেশ পু’লিশ। লকডাউনে এবারও আগের মতোই মুভমেন্ট পাস নিতে হবে।

এদিকে রোববার (২৭ জুন) সচিবালয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে অধীন দফতর-সংস্থাগুলোর বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি অনুষ্ঠান শেষে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক সাংবাদিকদের বলেন, সামনে যে লকডাউন, সেখানে পু’লিশ থাকবে, বিজিবি থাকবে, সে’নাবাহিনীর সদস্যরাও এবার থাকবে। যাতে লকডাউন কার্যকরভাবে পালিত হয় এবং ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণ রোধ হয়, মৃ’ত্যুর সংখ্যা যাতে অনেক কমিয়ে আনতে পারি।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, হাসপাতালগুলো অলরেডি অকুপাইড হয়ে গেছে, মানে রোগী ফিলাপ হয়ে গেছে। কাজেই আমাদের সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: