সর্বশেষ আপডেট : ২২ মিনিট ১৫ সেকেন্ড আগে
বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ১৪ শ্রাবণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

লন্ডন বারা অব টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের স্পীকার নির্বাচিত হওয়ায় সংবর্ধনা প্রদান

বদরুল মনসুর: বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনা ও আনন্দঘন পরিবেশে সিলেট জেলা ছাত্রলীগের সাবেক নেতা ও রাজপথের সহযোদ্ধা গ্রুপ’ এর অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা কাউন্সিলার মোহাম্মদ আহবাব হোসেন দ্বিতীয় বারের মত লন্ডন বারা অব টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের স্পীকার নির্বাচিত হওয়ায় রাজপথের সহযোদ্ধা গ্রুপের পক্ষ থেকে ভার্চুয়াল সম্বর্ধনা প্রদান করা হয়।

ভার্চুয়াল সম্বর্ধনা সভায় যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, বাংলাদেশসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে কাউন্সিলর আহবাব হোসেনের বন্ধুমহল, সাংবাদিক, রাজনীতিবিদ ও কমিউনিটির বিশিষ্টজনরা উপস্থিতে এবং গোলাপগঞ্জ উপজেলা সোশ্যাল ট্রাস্টের চেয়ারম্যান, রাজপথের সহযোদ্ধা দের অন্যতম মোহাম্মদ আব্দুল বাছিত এর সভাপতিত্বে গত ১ জুন মঙ্গলবার ইউকে সময় বিকাল ৪টায় অনুষ্টিত ভ্যাচুয়াল সম্বর্ধনা অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন হিথরো আওয়ামীলীগের সভাপতি মোহাম্মদ শামীম আহমদ, ওয়েস্টমিস্টার বাংলাদেশী ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট ফর্মার ইনডিপেনডেন্ট অ্যাডভাইজার টু দ্যা মেট্রোপলিটান পুলিশ, শাইস্তা মিয়া, আমেরিকা মিশিগান আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি খালেদ আহমেদ, কানাডা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সেলিম জুবেরি এবং ২৬শে টিভির যুবনেতা জামাল খান।

প্রানবন্ত এই অনুষ্টানে প্রধান ও বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ হাইকমিশন লন্ডন এর ডেপুটি হাইকমিশনার জুলকারনাইন, আওয়ামীলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ আহমদ হোসেন, যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগের সভাপতি সুলতান মাহমুদ শরিফ, যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাজিদুর রহমান ফারুক, সাবেক সাংসদ ও সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি শফিকুর রহমান চৌধুরী, বিশিষ্ট শিল্পপতি ইকবাল আহমেদ ওবিই, লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাবের সভাপতির ইমদাদুল হক চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ জুবায়ের, বিসিসিআই ইউকের প্রেসিডেন্ট নাজমুল হক নুরু, ব্রিটিশ বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স এর সাবেক প্রেসিডেন্ট শাহগির বখত ফারুক, বাংলাদেশ ক্যাটারাস এসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট এম এ মুনিম এবং সাধারণ সম্পাদক মিটু চৌধুরী, ক্রয়ডন কাউন্সিলের সাবেক মেয়র হুমায়ুন কবির, বাংলাদেশ ক্যাটারাস এসোসিয়েশনের সাবেক প্রেসিডেন্ট কামাল ইয়াকুব, সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জাকির হোসেন, সিলেট মহানগর বিএনপির সভাপতি নাসিম হোসেইন, সাবেক ছাত্রনেতা এডভোকেট শাহ ফারুক আহমেদ, যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী, যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আহাদ চৌধুরী, যুক্তরাজ্য বঙ্গবন্ধু পরিষদের সাধারণ সম্পাদক আলিমুজ্জামান, বেথনালগ্রীন ও বো লেবার পার্টির সিএলপি’র ভাইস চেয়ারম্যান হামিদা ইদ্রিস, ফয়জুর রহমান, লেখক ও সাংবাদিক আনোয়ার শাহজাহান, সাংবাদিক সৈয়দ আনাস পাশা, ইউকে বিডি টিভির চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মকিস মনসুর, ওয়ান বাংলা নিউজ এর সম্পাদক জাকির হোসেন কয়েছ, কামরন নাহার শাহজাহান, আবজল হোসেন, আব্দুল লতিফ নিজাম, সোনাহর আলী রিংকু, জালালাবাদ ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল বাছির, বিকাশ পান্না দে, আশরাফ উদ্দিন, হাসান সিরন, সৈয়দ মুজিব, মোবারক আলী, নিউইর্য়ক স্টেট আওয়ামী লীগ সিনিয়র সহ সভাপতি সৈয়দ আতিকুর রহমান, নিউইর্য়ক স্টেট আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহিন আজমল, সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্টার বদরুল ইসলাম সুয়েব, মহানগর আওয়ামীলীগের সদস্য কানাই দত্ত, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের নিহার রঞ্জন দাস, কবির মিয়া এবং সাবেক ছাত্র শাহ সানি। বিশিস্ট ব্যবসায়ী আশরাফ উদ্দিন কালাম. মলিক শাকুর ওয়াদুদ, শেরন চৌধুরী, কিরন সারোয়ার, ফারুক আলী, নেহার রঞ্জন বাচ্চু, কানাই দত্ত, সুয়েব আহমদ, সানি শাহ “ফোকাস টিভি’র” আমিরুল ইসলাম ওয়েছ, এন এল ২৪ টিভির হেফাজত করিম রাকিব সহ প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।

ভার্চুয়াল সম্বর্ধনা সভায় কাউন্সিলার আহবাব হোসেনের বন্ধুরা বলেন, আহবাব হোসেন আমাদের বন্ধু, সহকর্মী বিষয়টা যখন ভাবি তখন সত্যিই গর্ববোধ করি। তার সফলতা আমাদেরই সফলতা।

বক্তারা বলেন, কাউন্সিলার আহবাব হোসেনের নিষ্ঠা, একাগ্রতা, বিচক্ষণতা ও সাংগঠনিক দক্ষতার মাধ্যমেই এ পর্যায়ে এসেছেন। আমাদের প্রত্যাশা থাকবে তিনি আরো অনেক দূর এগিয়ে যাবেন এবং তাঁকে আমাদের পরবর্তী প্রজন্ম অনুসরণ করবে।

সমাপনী বক্তব্যে স্পিকার আহবাব হোসেন, তাঁকে এভাবে সংবর্ধিত করে সম্মানিত করার জন্য বন্ধু ও সহকর্মীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান। তিনি বলেন, আমি যে অবস্থানেই থাকিনা কেন, সবার বন্ধু ও সহকর্মী হয়েই থাকতে চাই। তিনি সবার নিকট দোয়া কামনা করেন।

আহবাব হোসেন দেশে থাকাকালে ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলেন, ব্রিটেনে অভিবাসী হওয়ার পর লেবার দলের রাজনীতির সাথে জড়িত হন এবং খুব অল্প সময়েই ব্রিটেনের মূলধারার রাজনীতিতে নিজের অবস্থান শক্ত করে নেন। প্রথম বারের মত স্থানীয় কাউন্সিল নির্বাচনে বেথনাল গ্রীণ ওয়ার্ড থেকে বিপুল ভোটে কাউন্সিলার নির্বাচিত হন, প্রথমবারই দায়িত্ব পান ডেপুটি স্পীকার হিসেবে। পরবর্তীতে তিনি দুই বার স্পীকার নির্বাচিত হন। আহবাব হোসেনের দেশের বাড়ী বৃহত্তর সিলেটের সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরের প্রভাকরপুর গ্রামে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: