সর্বশেষ আপডেট : ৬ ঘন্টা আগে
শুক্রবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

মৌলভীবাজার বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের কোটি টাকার সম্পত্তি উ’দ্ধার

বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের ভূমি অ’বৈধ দখলকারীর বি’রুদ্ধে উচ্ছেদ অ’ভিযান চালিয়েছেন স্থানীয় প্রশাসন।

সোমবার (৩১ মে) দুপুরে মৌলভীবাজার বেজবাড়ী এলাকার সংরক্ষিত মূল্যবান সরকারি কোটি টাকার ভূমি অ’বৈধ ভাবে দখল করা জায়গার উচ্ছেদ কার্যক্রম পরিচালনা করেন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মো: রুহুল আমিন । এ সময় অ’বৈধ দখলকারীদের সরকারি ভূমি হতে উচ্ছেদ করে উ’দ্ধারকৃত ভূমি সংশ্লিষ্ট বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোডের কর্তৃপক্ষের নিকট বুঝিয়ে দেয়া হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, বিক্রয় ও বিতরন বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ হাবিবুল বাহার, সিলেট বিক্রয় ও বিতরন বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মো: আব্দুল মতিন,সহকারী নির্বাহী প্রকৌশলী মো: সাইদুর রহমান ।

উল্লেখ্য বিক্রয় ও বিতরন বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ হাবিবুল বাহার বাদী হয়ে মৌলভীবাজার মডেল থা’নায় বেজবারি এলাকার ওয়াপদা রোডের (আহমেদ নিবাস) এর আব্দুল বারীর পুত্র সেলিম আহমেদের বি’রুদ্ধে সাধারণ ডায়রি করেন। ডায়রি নং-৭৭২।

অ’ভিযোগে জানা যায়, মিউনিসিপালিটি মৌজার জেএল নং ১০৫ দাগ ন১৫,১৪১৬,১৪১৭,১৪২০,১৪২১,১৪২২,১৪২৫,১৪২৬,১৪২৮,১৪২৯,১৪৩০,১৪৩১, এর ৯.৪০ একর জায়গা কিছু অংশ জো’র করে দখল করার জন্য ইতিপূর্বে বাশের বেড়া নির্মান করেছে। এ ব্যাপারে নির্বাহী প্রকৌশলী আ’পত্তি জানালেও সে কোন বাঁ’ধা না মেনে বেড়া নির্মান করে। গত ১৬ মে সেলিম আহমেদ আবারও লোকজন নিয়ে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের জমি মাটি ভরাট করতে থাকে।

বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড লোকজন গিয়ে থাকে বাঁ’ধা নিষেধ করিলে সে নিষেধ অমান্য করে তাদেরকে হু’মকি দেয়। এ ব্যাপারে বিদুৎ উন্নয়ন নির্বাহী প্রকৌশলী তার উদ্ধর্তন কর্তৃপক্ষ ও পু’লিশ সুপার, ও জে’লা প্রশাসক বরাবর লিখিত ও মৌখিক অ’ভিযোগ করেন। গত মা’র্চ মাসে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড ১০ একর ৬১ শতক ভূমিতে দেয়াল নির্মানের কাজ শুরু করলে বেজবাড়ীস্থ ৩৩/১১ কেভি উপকেন্দ্রের নীচের ডালে বর্ষিজোড়া মৌজার ১৪৩০,১৪৩১ নং দাগের উপর রাতের অন্ধকারে অ’বৈধ ভাবে প্রভাবশালী মহল বেড়া নির্মানের চেষ্টা করে। এব্যাপারে বিউবো বিভাগ মৌলভীবাজার মডেল থা’নায় জিডি করেন এবং তার উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেন। উক্ত জমি বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডে কর্তৃক ১৯৬৩ সালে অধিগ্রহণ করা হয়েছিল।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: