সর্বশেষ আপডেট : ১ মিনিট ৫৫ সেকেন্ড আগে
বৃহস্পতিবার, ২১ অক্টোবর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

মৌলভীবাজারে গণমাধ্যমে প্রকাশের পর অ’সুস্থ পিতার দায়িত্ব নিলো সন্তানরা

বাসার সামনের সড়কে অ’সুস্থ অবস্থায় পড়ে থাকা অরুন দেবের দায়িত্ব নিতে অ’পারগতা প্রকাশ করে সন্তানরা। এরপর পু’লিশ তাকে উ’দ্ধার করে হাসপাতা’লে নেয়। তবে, গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশের পর পিতার দায়িত্ব নিয়েছেন সন্তানরা।
অবশেষে মৌলভীবাজারের আ’লোচিত অ’সুস্থ পিতা অরুন দেবের ভরণপোষণের দায়িত্ব নিলো সন্তানরা। পু’লিশের সহায়তায় অ’সুস্থ অরুন দেবকে নিজ বাসায় নিয়ে গেছেন বড় ছে’লে বিপ্লব।

জানা যায়, সন্তানরা অ’পারগতা প্রকাশ করায় বাসার সামনে অ’সুস্থ অবস্থায় মাটিতে পড়ে থাকতে দেখে এক প্রতিবেশী ৯৯৯ নম্বরে ফোন করেন। পরে, মৌলভীবাজার সদর মডেল থা’নার পু’লিশের সহযোগীতায় হাসপাতা’লে ভর্তি করা হয়। বিষয়টি গণমাধ্যমে প্রকাশিত হলে শহরে সমালোচনার ঝড় ওঠে। পরে হাসপাতাল থেকে একমাত্র মে’য়ে শহরের সৈয়ারপুর এলাকার বাসায় নিয়ে যান। এরপর মৌলভীবাজার সদর থা’নার ওসি (ত’দন্ত) গো’লাম মূর্তজার উদ্যোগে সিলেটে বসবসকারী অরুণ দেবের বড় ছে’লে বিপ্লব দেব মঙ্গলবার (২৫ মে) দুপুরে মৌলভীবাজারে আসেন। বিকেলে অ’সুস্থ পিতার ভরণপোষণ এবং উন্নত চিকিৎসার জন্য সিলেটে নিজ বাসায় নিয়ে যান ছে’লে বিপ্লব।

জরুরি সহায়তা ৯৯৯ নম্বরে যোগাযোগকারী অরুন দেবের প্রতিবেশী অজয় রায় জানান, অ’সুস্থ অরুন দেবকে হাসপাতা’লে ভর্তির পর মৌলভীবাজার সদর থা’নার ওসি (ত’দন্ত) পরিবারের সাথে একাধিকবার যোগ করেন। এক পর্যায়ে অরুন দেবের মে’য়ে হাসপাতাল থেকে পিতাকে শ্বশুরবাড়িতে নিয়ে যান। পরে বড় ছে’লে বিপ্লব দেব মঙ্গলবার দুপুরে বোনের বাসায় আসেন। এ সময় আমি ও স্থানীয় কয়েকজন উপস্থিত ছিলাম সেখানে। পরে আলাপ আলোচনার এক পর্যায়ে অ’সুস্থ পিতাকে সিলেটে নিজ বাসায় নিতে রাজি হন বিপ্লব দেব।

ছে’লে বিপ্লব দেব বলেন, অভাবের সংসার হলেও পিতাকে বাসায় রাখতে সমস্যা নেই। পিতা অরুন দেব এর আগে কিছুদিন সিলেট ছিলেন। কিন্তু সিলেট বাসা থেকে কাউকে না জানিয়েই মৌলভীবাজার যাওয়ার উদ্দেশে বাসা থেকে মাঝে মধ্যেই বের হয়ে যেতেন। সিলেটে বাসা হলেও ব্যবসার কারণে বেশিরভাগ সময় সুনামগঞ্জ থাকেন বিপ্লব। এ অবস্থায় তাঁকে খোজে বের করাসহ নানা ভোগান্তি ও বিড়ম্বনা পোহাতে হয়। তাই তিনি মৌলভীবাজারে মৃ’ত ছোট ভাইয়ের স্ত্রী’র সঙ্গে থাকতেন।এখন বাবাকে সিলেটের বাসায় রেখেই চিকিৎসা করাবেন বলেও জানান অরুন দেবের বড় ছে’লে বিপ্লব দেব।

এই ঘটনায় প্রথম থেকে ভুমিকা রাখা মৌলভীবাজার মডেল থা’নায় ভা’রপ্রাপ্ত কর্মক’র্তা (ত’দন্ত) গো’লাম মুর্তজা জানান, ছে’লে তার ভুল বুঝতে পেরেছে বাবাকে নিয়ে সিলেট গেছে। আমি প্রথম থেকেই তার সাথে যোগযোগ রেখে বুঝানোর চেষ্টা করি। আমি বলেছি যেকোনো সাহায্য সহযোগিতায় পাশে থাকব।

উল্লেখ্য, মৌলভীবাজার শহরের পুরাতন হাসপাতাল রোডের শাহ মোস্তফা মঞ্জিলে বাস করতেন অরুণ দেব (৭২) । দুই ছে’লে এবং এক মে’য়ে তার। একমাত্র মে’য়েকে বিয়ে দিয়েছেন শহরের সৈয়ারপুর এলাকায়। বড় ছে’লে বিপ্লব দেব সুনামগঞ্জে ব্যবসা করেন এবং তার বাসা সিলেটে। গত রবিবার (২৩ মে) অ’সুস্থ হয়ে তিনি রাস্তায় পড়ে থাকার খবর শুনেও এগিয়ে আসেননি কোনো সন্তানই। খবর পেয়ে পু’লিশ এসে বৃদ্ধকে হাসপাতা’লে ভর্তি করায়। এই ঘটনায় এলাকায় আলোচনা ও সমালোচনার জন্ম দেয়।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    2
    Shares

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: