সর্বশেষ আপডেট : ৭ ঘন্টা আগে
সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

ব্রিটেনে এবার আরও বেশি বিপদে বাংলাদেশিরা

প্রথম ঢেউয়ের তুলনায় করো’নার দ্বিতীয় ঢেউয়ে ব্রিটেনে বসবাসরত বাংলাদেশিদের বিপদ আরও বেড়েছে বলে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন স্বাস্থ্যবিষয়ক গবেষণা সাময়িকী’ দ্য ল্যানসেট। ল্যানসেটের বিশ্লেষণে দক্ষিণ এশিয়ার ভা’রত এবং পা’কিস্তানের ক্ষেত্রেও একই কথা বলা হয়েছে।

১৭ মিলিয়ন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষকে নিয়ে করা এই গবেষণায় দেখা গেছে, অন্য সংখ্যালঘু প্রবাসীদের তুলনায় দক্ষিণ এশিয়ার তিনটি দেশের মানুষ বেশি করো’নায় সংক্রমিত হচ্ছেন, হাসপাতা’লে ভর্তি হচ্ছেন, মা’রা যাচ্ছেন।

প্রথম ঢেউয়ে কৃষ্ণাঙ্গদের নিয়ে অনেক কথা হয়েছিল। দ্বিতীয় ঢেউয়ে সেই তাদের সংক্রমিত হওয়ার হার শ্বেতাঙ্গদের প্রায় কাছাকাছি।কিন্তু ভা’রত, পা’কিস্তান এবং বাংলাদেশিদের ক্ষেত্রে চিত্রটা আলাদা।

লন্ডনের সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ ডা. রোহিনি মাথুর বিবিসিকে বলেছেন, ‘দক্ষিণ এশিয়ানদের এটি চিন্তার বিষয়। প্রতিরোধের জরুরি পদক্ষেপ নেয়া উচিত।’

বিবিসি লিখেছে, দ্বিতীয় ঢেউয়ে ডেটা সংগ্রহ করে বিজ্ঞানীরা প্রথম ঢেউয়ের সঙ্গে তুলনা করেছেন।

এশিয়ার মানুষেরা কেন বেশি আ’ক্রান্ত হচ্ছেন তা নিয়ে ব্রিটেনে নানা আলোচনা হয়েছে গত বছর। অনেক বিজ্ঞানী বলেছেন, দক্ষিণ এশিয়ার মানুষেরা একই ঘরে সংখ্যায় বেশি বসবাস করেন। তারা যে ধরনের কাজ করেন, সেগুলো থেকে সংক্রমিত হওয়ার ঝুঁ’কি বেশি। কিছু বিজ্ঞানী আবার দেহের বর্ণের কথাও উল্লেখ করেন।

তবে বাংলাদেশিদের দাবি, ব্রিটিশ সরকারের থেকে অন্যদের তুলনায় তারা কম সুযোগ-সুবিধা পান। যা তাদের জীবনযাত্রার মানকে প্রভাবিত করে। এতে তাদের সংক্রমিত হওয়ার ঝুঁ’কি বেশি। আবার আ’ক্রান্ত হলে সবাই দ্রুত চিকিৎসা করাতে পারেন না, এতে পরিস্থিতি আরও খা’রাপ হয়।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: