সর্বশেষ আপডেট : ৩৬ মিনিট ১৯ সেকেন্ড আগে
বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ১৪ শ্রাবণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

ব্রিটেনে বাংলাদেশিদের কাছে অনুপ্রেরণার নাম আবদাল উল্লাহ

বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে যুক্তরাজ্যে আইকনিক স্থাপনা ‘লন্ডন আই’কে বাংলাদেশের পতাকার রং লাল সবুজে সাজানো হয়। এ কাজটি নীরবে করে তাক লাগালেন ব্রিটিশ বাংলাদেশি আবদাল উল্লাহ। বাংলাদেশি কমিউনিটিকে এগিয়ে নেওয়ার ক্ষেত্রে তার অসাধারণ ভূমিকা রয়েছে। তিনি ব্রিটিশ বাংলাদেশিদের সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ স্বীকৃতি ‘ব্রিটিশ বাংলাদেশি পাওয়ার অ্যান্ড ইন্সপাইরেশন’-এর প্রতিষ্ঠাতা।

ব্রিটেনের মূলধারায় বিভিন্ন খাতে সফলতার সঙ্গে কাজ করা ব্যক্তিদের নিয়ে বার্ষিক প্রকাশনা এটি। এসব ব্যতিক্রমী উদ্যোগের জন্য বর্তমানে ব্রিটেনে বাংলাদেশিদের কাছে অনুপ্রেরণার নাম আবদাল উল্লাহ। আবদাল উল্লাহর জন্ম সুনামগঞ্জের ছাতকে। তিনি টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের তিনবারের কাউন্সিলর। ১৯৭৮ সালে বর্ণবাদী হামলায় নিহত আলতাব আলী স¥রণে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রেখেছেন তিনি। এসব পরিচয় ছাপিয়ে আবদাল উল্লাহ নিজেকে পরিচয় দিতে ভালোবাসেন বাংলাদেশ থেকে ভাগ্যান্নেষণে যুক্তরাজ্যে আসা এক ‘টেইলর’-এর সন্তান হিসেবে।

আবদাল বলেন, আমার বাবার সংগ্রাম, সততা ও আত্মনির্ভরশীলতা আমাকে পথচলা শিখিয়েছে। আলতাব আলী প্রসঙ্গে আবদাল বলেন, সুনামগঞ্জের ছাতকের ছেলে আলতাব আলী বর্ণবাদী হামলায় ১৯৭৮ সালের ৪ মে প্রাণ হারান। এরপরই বর্ণবাদের বিরুদ্ধে ফুঁসে উঠে বাঙালি তরুণরা, এরপর পুরো কমিউনিটি, তারপর সারা দেশ। যুক্তরাজ্যে বর্ণবাদবিরোধী আইনে আরও পরিবর্তন এনে শক্ত করা হয়। স্থাপিত হয় আলতাব আলী পার্ক। আবদাল উল্লাহ ১৯৮৪ সালে যুক্তরাজ্যে আসেন বাবার হাত ধরে। প্রথমেই উঠেন ব্রিকলেনে।

পূর্ব লন্ডনের পার্কের নাম আলতাব আলী পার্কের নামকরণের সময় কমিউনিটি অ্যাক্টিভিস্ট হিসেবে কাজ করেছেন তিনি। ২০১৫ সালে জন বিগসের নির্বাচনী ক্যাম্পেইন থেকে কীভাবে আলতাব আলী ডে শুরু হয় সবই দেখেছেন তিনি। তৎকালীন জনমত সম্পাদক নবাব উদ্দিনের আলতাব আলী স্মরণে সম্পাদিত বই লেখার মধ্য দিয়ে আরও সংযোগ ঘটে আলতাব আলীর পরিবারের সঙ্গে। যে বিল্ডিংয়ে আলতাব আলী থাকতেন সেই রিয়ার্ডন স্ট্রিটের গ্যারেজগুলো ভেঙে টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিল একটি বিল্ডিং করেছে আলতাব আলীর নামে। এর পিছনেও নেপথ্যে নায়ক আবদাল উল্লাহ। প্রতি বছর ১০০ সফল ব্রিটিশ বাংলাদেশির কর্মকে স্বীকৃতি দিতে কাজ করে ব্রিটিশ বাংলাদেশি পাওয়ার অ্যান্ড ইন্সপাইরেশন। এই অসাধারণ প্রকাশনাটি নিয়ে বিবিসি রিপোর্ট করে, মূলধারার প্রতিষ্ঠানগুলো এই আয়োজনের সঙ্গী হয়। এমন চমৎকার উদ্যোগটি নিয়েছেন আবদাল উল্লাহ।

এছাড়া বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে ২৬ মার্চ লন্ডন আইকে সাজানোর ব্যবস্থা করেন বাংলাদেশের পতাকার রঙে। টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলে সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন কমিটিতে থেকে আলতাব আলী পার্কে বাংলাদেশের পতাকা উত্তোলন করেন। ব্রিকলেনের ব্যবসায়ীদের সঙ্গে ব্যক্তিগত যোগাযোগ করে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সামনে পতাকা টাঙ্গানোর ব্যবস্থা করেন। আবদাল উল্লাহ বলেন, এবার লক্ষ্য বিজয়ের ৫০ উদযাপন। সেটি হবে বিশ্বব্যাপী। আর সেদিনের হ্যাশট্যাগ হবে বিডিবাংলাদেশফিফটি।

 

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    2
    Shares

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: