সর্বশেষ আপডেট : ৯ মিনিট ৩৮ সেকেন্ড আগে
বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ১৪ শ্রাবণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

যু’ক্তরাস্ট্রে কেউ অ’বৈধ নেই, সবাই নথিপত্রবিহীন অ’ভিবাসী

মা’র্কিন অ’ভিবাসন বিভাগ বা সীমান্ত কর্তৃপক্ষ এখন থেকে আর অ’বৈধ অ’ভিবাসী শব্দ ব্যবহার করবে না। নেতিবাচক এই শব্দের পরিবর্তে এখন নথিপত্রহীন অ’ভিবাসী বলা হবে। ইমিগ্রেশন ও সীমান্ত বিভাগকে বাইডেন প্রশাসন থেকে এ সংক্রান্ত একটি নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। ১৯ এপ্রিল ওয়াশিংটন পোস্টের এক সংবাদে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিভাগীয় নির্দেশনায় বলা হয়েছে, প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের মানবিক অ’ভিবাসনব্যবস্থা গড়ে তোলার অংশ হিসেবে এ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। এখন থেকে এলিয়েন শব্দের পরিবর্তে মাইগ্রেন্ট বা নন সিটিজেন শব্দ ব্যবহারেরও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। একইভাবে অ’বৈধ অ’ভিবাসীর পরিবর্তে নথিপত্রহীন অ’ভিবাসী বলা হবে।

বিভাগীয় নির্দেশনায় আরও বলা হয়েছে, অ’ভিবাসীদের ক্ষেত্রে সম্মানজনক শব্দ ব্যবহার করতে হবে। বিবরণী প্রকাশ বা অ’ভিবাসীদের ফরম পূরণের ক্ষেত্রেও যেকোনো অসম্মানজনক শব্দ পরিহার করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

কাস্টমস ও বর্ডার বিভাগের প্রধান ট্রয় মিলার বলেছেন, যু’ক্তরাষ্ট্রের অগ্রসর একটি সরকারি বিভাগ হিসেবে আম’রা উদাহ’রণ সৃষ্টি করতে চাই। অ’ভিবাসীদের নিয়ে এমন ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি শুধু দেশেই নয় বাইরের দেশেও ইতিবাচক বার্তা দেবে। আম’রা আইনের প্রয়োগ করব, পাশাপাশি প্রতিটি মানুষের ম’র্যাদা অক্ষুণ্ন রাখার জন্য যথাযথ শব্দের ব্যবহার করে দৃষ্টান্ত সৃষ্টি করব। অ’ভিবাসীদের ম’র্যাদা দেওয়ার জন্য যথাযথ শব্দের ব্যবহার জরুরি বলে তিনি উল্লেখ করেন।

ইমিগ্রেশন অ্যান্ড কাস্টম এনফোর্সমেন্ট বিভাগের ভা’রপ্রাপ্ত পরিচালক টায় ডি. জনসন বলেছেন, অ’ভিবাসন নিয়ে বাইডেন প্রশাসনের সুদূরপ্রসারী দৃষ্টিভঙ্গির প্রতিফলন থেকে এসব সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। একটি মানবিক ও ম’র্যাদাপূর্ণ আচরণের মাধ্যমে অ’ভিবাসীদের সঙ্গে সব ধরনের সংযোগ সৃষ্টি করে উদাহ’রণ সৃষ্টি করার জন্য তিনি বিভাগের লোকজনকে নির্দেশ দিয়েছেন।

যু’ক্তরাষ্ট্রের উদারনৈতিক মহল আগে থেকেই অ’বৈধ অ’ভিবাসী শব্দের ব্যবহার নিয়ে আ’পত্তি জানিয়ে আসছে। উদারনৈতিক রাজ্যগুলোতে নথিপত্রহীন অ’ভিবাসী হিসেবে উল্লেখ করা হয়। নিউইয়র্কে এ নিয়ে আগেই আইন প্রণয়ন করা হয়েছে। সরকারি কোনো নথিপত্রে প্রযোজ্য ক্ষেত্রে অ’বৈধ অ’ভিবাসী না বলে নথিপত্রহীন (আনডকুমেন্টেড) অ’ভিবাসী বলা হয়ে থাকে। নাগরিক সংগঠন ও অ’ভিবাসী গ্রুপগুলোও অ’ভিবাসীদের জন্য অসম্মানের এমন শব্দ ব্যবহার না করার জন্য দীর্ঘদিন থেকে প্রচার চালিয়ে আসছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  • 4
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    4
    Shares

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: