সর্বশেষ আপডেট : ৪ ঘন্টা আগে
মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ১২ শ্রাবণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

নারায়ণগঞ্জে করো’নায় আ’ক্রান্ত হিন্দু ব্যক্তির জানাজা-দাফন!

ভুল তথ্যে করো’নায় আ’ক্রান্ত হয়ে মা’রা যাওয়া বাবুল চন্দ্র দাস (৫০) নামে হিন্দু ধ’র্মাবলম্বী এক ব্যক্তিকে মু’সলমান হিসেবে দাফন করা হয়েছে বলে অ’ভিযোগ উঠেছে। যোগাযোগ না করেই করো’না সংক্রমণের ভ’য়ে মৃ’তের স্বজনরা ম’রদেহ নিতে আসছে না বলে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের (নাসিক) এক কাউন্সিলরকে জানায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

জানাজা ও দাফনের খবরে হিন্দু ধ’র্মাবলম্বী বাবুল চন্দ্র দাসের পরিবার ও তার কর্মস্থল সৈয়দপুর এলাকায় তোলপাড় শুরু হয়। এ নিয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে দোষারোপ করছে তারা।

নারায়ণগঞ্জ ৩০০ শয্যা হাসপাতালকে বর্তমানে করো’না ডেডিকে’টেড হাসপাতা’লে রূপান্তর করা হয়েছে। ১৫ এপ্রিল হাসপাতা’লের আইসোলেশনে বাবুল চন্দ্র দাসকে ভর্তি করে আসেন গোগনগর ইউনিয়ন পরিষদের ৪ নম্বর ওয়ার্ড সদস্য সৈকত হোসেন। ১৭ এপ্রিল সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মা’রা যান।

হাসপাতা’লের সুপারইনটেনডেন্ট ডা. এম এ বাশার জানান, হাসপাতা’লের এন্ট্রি খাতার তথ্য অনুযায়ী মৃ’ত রোগীর নাম বাবুল। বয়স পঞ্চাশ। সৈকত নামের একজন তাকে হাসপাতা’লে নিয়ে এসেছেন। নারায়ণগঞ্জ সদর উপজে’লার সৈয়দপুর এলাকায় তার বাড়ি।

তিনি আরও জানান, হাসপাতা’লে ভর্তির পর থেকে তার আত্মীয়রা কেউ খোঁজ নেয়নি। মৃ’ত্যুর পর তার পরিবারকে জানানো হলেও করো’না রোগী হওয়ায় তারা ম’রদেহ নিতে চাচ্ছে না। তাই ম’রদহে দাফনের জন্য নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ১২ নম্বর কাউন্সিলর শওকত হাশেম শকুকে জানানো হয়েছে।

খবর পয়ে কাউন্সিলর শওকত হাশেম শকুসহ নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের দাফন টিম এসে ম’রদেহ দাফনের ব্যবস্থা করে। এ বিষয়ে কাউন্সিলর বলেন, ‘যেহেতু হাসপাতা’লের রেকর্ডে মৃ’তকে মু’সলমান হিসেবে উল্লেখ করা হয়, তাই আম’রা ম’রদেহ দাফনের ব্যবস্থা করি। এছাড়া গোসলের সময় মৃ’তকে খৎনা করা দেখতে পাই।’

তবে মৃ’ত বাবুল দাসকে হাসপাতা’লে নিয়ে আসা নারায়ণগঞ্জের গোগনগর ইউনিয়ন পরিষদের ৪ নম্বর ওয়ার্ড সদস্য সৈকত হোসেন বলেন, ‘বাবুল চন্দ্র দাস ছয় বছর ধরে আমাদের এলাকার খোকন মন্ডল খোকার দোকানে দর্জি হিসেবে কাজ করতো। নিজ পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ নেই বললেই চলে। তাই সে দোকানেই ঘুমাতো। হোটেলে খেতো। ১৪ এপ্রিল সে অ’সুস্থ হয়ে পড়লে আম’রা তাকে মহাখালী নিয়ে যাই চিকিৎসা করাতে। সেখানে তাকে পরীক্ষা করে দেখে যে তার করো’না পজিটিভ।’

তিনি আরও বলেন, ‘পরদিন তাকে নারায়ণগঞ্জ ৩০০ শয্যা হাসপাতা’লে এনে ভর্তি করি। ভর্তির সময়ই আম’রা তার নাম বাবুল চন্দ্র দাস বললেও তার পুরো নাম এন্ট্রি খাতায় না লিখে শুধু বাবুল লেখা হয়। ১৮ এপ্রিল সাংবাদিকদের মাধ্যমে প্রথম আম’রা তার মৃ’ত্যুর খবর পাই। পরে যখন হাসপাতাল থেকে আমাকে ফোন দেয়া হয় তখন ম’রদেহ দাফনের জন্য নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তার মৃ’ত্যুর পরপর যদি আমাদের ফোন দিতো তাহলে আম’রা হাসপাতা’লে গেলে ম’রদেহ হিন্দু না মু’সলিম তা শনাক্ত হতো। আর তার ম’রদেহ সৎকারের ব্যবস্থা আম’রাই করতাম।’

বাবুলের খৎনা করার প্রসঙ্গে সৈকত বলেন, ‘তিনি হিন্দু হলেও তার খতনা করা ছিল।’

মৃ’ত বাবুল দাসের সঙ্গে তার স্ত্রী’র ১০-১৫ বছর ধরে স’ম্পর্ক নেই বলে জানান তার মে’য়ে কৃষ্ণা রানী দাস। তিনি কুমিল্লার মতলব উপজে’লার লবারকান্দিতে থাকেন। মোবাইল ফোনে তিনি জানান, অন্তর নামে তার এক ভাই রয়েছে। তার বাবা যার দোকানে কাজ করতেন সেই খোকন মন্ডলের কাছ থেকেই তিনি বাবুলের মৃ’ত্যুর খবর পান। হাসপাতা’লের কেউ তাকে তার বাবার মৃ’ত্যুর খবর জানায়নি।

তিনি জানান, লকডাউনের কারণে তার পক্ষে নারায়ণগঞ্জ আসা সম্ভব না। তার বাবা যে এলাকায় থাকতেন তিনিও সেখানকার সবার সহায়তা নিয়েই সৎকারের ব্যবস্থা করতেন।

সোমবার (১৯ এপ্রিল) বিকেলে হাসপাতাল সুপার ডা. বাশার বলেন, ‘বাবুল করো’না পজিটিভ এটি জানার পর থেকেই তার পরিবার যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়। যেদিন বাবুল মা’রা যান সেদিন বারবার তার পরিবারকে ফোন দেয়া হয়। কিন্তু তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা যায়নি।’

তিনি আরও বলেন, ‘লোকটি মু’সলমান। পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করতে না পারায় সিটি করপোরেশনের মাধ্যমে তার দাফন করা হয়।’

হাসপাতাল থেকে যোগাযোগের চেষ্টা করা হয়নি এমন অ’ভিযোগের ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘আমাদের নার্স ডাক্তাররা তার পরিবারের সঙ্গে বারবার যোগাযোগের চেষ্টা করেছে। সম্ভব হয়নি বলেই এ কনফিউশন তৈরি হয়েছে।’

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  • 9
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    9
    Shares

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: