সর্বশেষ আপডেট : ৩ ঘন্টা আগে
শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

ইউরোপ যাওয়ার পথে ভূমধ্যসাগরে নৌকাডুবে শি’শুসহ ৪১ জনের মৃ’ত্যু

ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে ইউরোপ যাওয়ার পথে তিউনিসিয়া উপকূলে একটি নৌকাডুবে অন্তত ৪১ জন অ’ভিবাসনপ্রত্যাশীর মৃ’ত্যু হয়েছে। শুক্রবার যৌথ বিবৃতিতে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থা (ইউএনএইচসিআর) ও আন্তর্জাতিক অ’ভিবাসন সংস্থা (আইওএম)।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, দুর্ঘ’টনায় এক শি’শুসহ অন্তত ৪১ জনের ম’রদেহ উ’দ্ধার করা হয়েছে। এছাড়া আরও তিনজনকে জীবিত উ’দ্ধার করেছে তিউনিসিয়ার কোস্টগার্ড বাহিনী।

এ ঘটনায় এখনও উ’দ্ধার তৎপরতা চলছে। প্রাথমিক তথ্যের ভিত্তিতে নি’হতরা সবাই সাব-সাহারান আফ্রিকা অঞ্চলের বাসিন্দা বলে জানা গেছে।

তিউনিসিয়ার জনসুরক্ষা পরিষেবার পরিচালক মৌরাদ মেচরি জানিয়েছেন, অ’ভিবাসনপ্রত্যাশীদের নিয়ে গত বৃহস্পতিবার রাতে স্ফ্যাক্স শহর থেকে যাত্রা শুরু করেছিল নৌকাটি।

তিউনিসিয়ার এ বন্দর শহরটি সাম্প্রতিক সময়ে ইউরোপগামী অ’ভিবাসনপ্রত্যাশীদের অন্যতম যাত্রাপথ হয়ে উঠেছে। দারিদ্র্য ও সহিং’সতার হাত থেকে বাঁচতে আফ্রিকা এবং মধ্যপ্রাচ্যের বাসিন্দারা ইউরোপ পাড়ি জমাতে গিয়ে নিয়মিতই দুর্ঘ’টনার শিকার হচ্ছেন।

গত মাসেই স্ফ্যাক্স উপকূলে একটি নৌকা ডুবে ৩৯ জন অ’ভিবাসনপ্রত্যাশী নি’হত হয়েছিলেন। গত বছরের জুনে প্রায় একই ধরনের দুর্ঘ’টনায় প্রা’ণ হারিয়েছিলেন অন্তত ৬০ জন।

আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর হিসাবে, ২০১৪ সাল থেকে এ পর্যন্ত ২০ হাজারের বেশি অ’ভিবাসনপ্রত্যাশী ও শরণার্থী আফ্রিকা থেকে ইউরোপ যাওয়ার পথে সাগরে নৌকাডুবিতে মা’রা গেছেন।

আইওএম জানিয়েছে, চলতি বছরই ভূমধ্যসাগরে প্রায় হারিয়েছেন অন্তত ৪০৬ জন অ’ভিবাসনপ্রত্যাশী।

সূত্র: রয়টার্স, ইয়াহু নিউজ

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  • 27
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    27
    Shares

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: