সর্বশেষ আপডেট : ৫ ঘন্টা আগে
বুধবার, ৪ অগাস্ট ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ২০ শ্রাবণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

ক্লিনিক থেকে ক্লিনিকে ছুটছেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী ট্রুডো

করো’নাভাই’রাস মহামা’রিতে বিপর্যস্ত সারা বিশ্ব। টানা এক বছরের বেশি সময় ধরে চলছে এই মহামা’রি। করো’না মোকাবিলায় বিশ্বের হাতেগোনা যে কয়েকজন রাষ্ট্রনেতা প্রশংসনীয় ভূমিকা রাখছেন, তাদের মধ্যে কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো অন্যতম।

করো’নাভাই’রাস প্রতিরোধে চলমান টিকাদান কর্মসূচি তত্ত্বাবধানে কানাডার একের পর এক ক্লিনিকে ছুটে চলেছেন তিনি। মঙ্গলবার (৩০ মা’র্চ) সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে দেওয়া এক পোস্টে একথা নিজেই জানিয়েছেন তিনি।

ফেসবুকে দেওয়া ওই পোস্টে কানাডার প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ‘দেশজুড়ে সকল ক্লিনিকে অনেক অনেক মানুষ করো’নার টিকা নিচ্ছেন। অটোয়াতে এমন একটি ক্লিনিক আজ সকালে আমি পরিদর্শন করেছি।’

বেশিসংখ্যক মানুষের টিকা নেওয়াকে ভালো সংবাদ হিসেবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘অনেক মানুষ এখন টিকা নিচ্ছেন। এটা ভালো খবর। কারণ টিকা নেওয়ার ফলে আমাদের প্রিয় মানুষেরা এখন আরও বেশি নিরাপদ এবং মহামা’রি শেষ হওয়া পর্যন্ত তারা সবাই আমাদের পাশেই থাকবেন।’

এদিকে টিকা গ্রহীতাদের পাশাপাশি জাস্টিন ট্রুডো ধন্যবাদ দিয়েছেন করো’না মহামা’রি মোকাবিলায় সম্মুখযোদ্ধা হিসেবে কাজ করা স্বাস্থ্যকর্মীদেরও। তার ভাষায়, ‘চলমান টিকাদান কর্মসূচির সঙ্গে জ’ড়িত সবাইকে অনেক ধন্যবাদ। দেশের সবচেয়ে বড় টিকাদান কর্মসূচি এগিয়ে নেওয়ার মাধ্যমে আপনারা মূলত গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বপালন করছেন। আপনাদের কঠোর পরিশ্রমের ব্যাপারে আম’রা অবগত আছি।’

এদিকে টিকা নিয়ে র’ক্ত জমাট বেঁধে যাওয়ার মতো শ’ঙ্কার কারণে ৫৫ বছরের কম বয়সীদের অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা না দেওয়ার সুপারিশ করেছেন কানাডার বিশেষজ্ঞরা। গত সোমবার কানাডার ন্যাশনাল অ্যাডভাইজারি কমিটি অন ইমিউনাইজেশন অ্যান্ড হেলথ এ সুপারিশ করে।

কমিটির উপপ্রধান ডা. শেলে ডিকসের মতে, ‘সম্ভাব্য ঝুঁ’কির পরিপ্রেক্ষিতে ৫৫ বছরের কম বয়সীদের অ্যাস্ট্রজেনেকা টিকা দেওয়ার সুবিধা স’ম্পর্কে যথেষ্ট অনিশ্চয়তা থেকেই এই সিদ্ধান্ত।’

তিনি আরও বলেন, আগে বলা হচ্ছিল, এই টিকা নিয়ে প্রতি দশ লাখে একজনের র’ক্ত জমাট বাঁ’ধার মতো ঘটনা ঘটতে পারে। কিন্তু ইউরোপে নতুন গবেষণায় দেখা যাচ্ছে, এই সংখ্যাটা লাখে একজন। তাই নতুন এই নির্দেশনা।

ইউরোপে এই টিকা নিয়ে বিরল হলেও যাদের র’ক্ত জমাট বাঁ’ধার ঘটনা ঘটেছে তাদের বেশিরভাগই নারী এবং বয়স ৫৫ বছরের কম জানিয়ে তিনি বলেন, এছাড়া এর কারণে মৃ’ত্যুর হারও এখন ৪০ শতাংশে গিয়ে ঠেকেছে।

২০১৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর চীনের হুবেই প্রদেশের উহানের একটি সামুদ্রিক খাবার বিক্রির বাজারে প্রথম করো’নাভাই’রাস শনাক্ত হয়। চীনের গণ্ডি পেরিয়ে দ্রুতগতিতে বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়া এই ভাই’রাসে সংক্রমণ এবং মৃ’ত্যুর সংখ্যা বাড়তে থাকায় পরের বছরের ১১ মা’র্চ করো’না প্রাদুর্ভাবকে বৈশ্বিক মহামা’রি ঘোষণা করেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) প্রধান ড. টেড্রস আধানম গেব্রেইয়েসুস।

জন্স হপকিন্স ইউনিভা’র্সিটির তথ্য অনুযায়ী, উত্তর আ’মেরিকার দেশ কানাডায় এখন পর্যন্ত ৯ লাখ ৮০ হাজারেরও বেশি মানুষের শরীরে করো’নাভাই’রাস শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে মা’রা গেছে ২২ হাজার ৮৯২ জন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: