সর্বশেষ আপডেট : ৭ ঘন্টা আগে
সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

পর্তুগালে ধাপে ধাপে লকডাউন তুলে দেওয়ার ঘোষণা

পর্তুগালে ১৫ মা’র্চের পর থেকে ধাপে ধাপে লকডাউন এবং জরুরি অবস্থা তুলে নেওয়ার পরিকল্পনা করছে দেশটির সরকার। বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় রাত ৮টায় জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে দেশটির প্রধানমন্ত্রী আন্তোনিও কস্তা তার সরকারের চলমান লকডাউন এবং জরুরি অবস্থা ধাপে ধাপে তুলে নেওয়ার পরিকল্পনাটি উপস্থাপন করেন।

প্রধানমন্ত্রী জাতির উদ্দেশে সরকারের পরবর্তী পদক্ষেপ ও পরিকল্পনাগুলো তুলে ধরে বলেন, স্টার সানডে শেষ হওয়ার আগ পর্যন্ত স্পেন ও পর্তুগালের বর্ডার বন্ধ থাকবে। ইউকের এবং ব্রাজিলের সাথে ভ্রমণের বিধি নিষেধ আগের মতোই অব্যাহত থাকবে এবং ইউরোপিয়ান ইউনিয়নে ভ্রমণে পর্তুগাল ইইউভুক্ত ব্রাসেলসের কোভিড-১৯ এর উপর দেওয়া নির্দেশিকা অনুসরণ করবে।

সেই সাথে চলমান লকডাউনকে মোট ৪টি ধাপে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে যাওয়ার পরিকল্পনা জাতির উদ্দেশে তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী।
আগামী ১৫ মা’র্চ পর থেকে কার্যকর হবে-

১. নার্সারি স্কুল এবং প্রাথমিক বিদ্যালয়ের স্তরের প্রথম সার্কেল।
২. বিপণন বিতানগুলো তাদের জানালা দিয়ে বা সামনে ছোট জায়গার মাধ্যমে বিক্রি করতে পারবে।
৩. সেলুন ও বিউটি পার্লারসহ অনুরূপ প্রতিষ্ঠান।
৪. বইয়ের দোকান, লাইব্রেরি ও সংরক্ষণাগার।
৫. গাড়ির দোকান এবং রিয়েল এস্টেট প্রতিষ্ঠান।

৫ এপ্রিল পর কর্যকর করা হবে-

১. সা’প্তাহিক ও সরকারি ছুটির দিনে ২৬ মা’র্চ থেকে ৫ এপ্রিল পর্যন্ত এক সিটি কর্পোরেশন থেকে অন্য সিটি কর্পোরেশনে যাতায়াত করা যাবে না।
২. যেসব ক্ষেত্রে সম্ভব তাদের টেলিওয়ার্ক বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।
৩. ছুটির দিনে ব্যবসা-প্রতিষ্ঠান অনুযায়ী ভিন্ন টাইম টেবিল থাকবে। তবে সাধারণ দিনে রাত ৯টা পর্যন্ত সবকিছু খোলা থাকবে।

৪. সরকারি ছুটির দিনে এবং সা’প্তাহিক ছুটির দিনে দুপুর ১টায় সবকিছু বন্ধ হবে। সুপার মা’র্কেট সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত।
৫. প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় ও তৃতীয় সার্কেলের শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান।
৬. জাদুঘর, গ্যালারি, মিউজিয়াম-সংক্রান্ত সকল ঐতিহাসিক স্থাপনা।
৭. সর্বোচ্চ ২০০ বর্গমিটার পর্যন্ত বিপণন বিতান। তবে দোকানের সামনে থেকে রাস্তায় বিক্রি করতে হবে।
৮. কফি ও বেকারির টেরেস টেবিলে সর্বোচ্চ চারজন লোক বসতে পারবে।

১৯ এপ্রিল থেকে কার্যকর হবে-

১. মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা।
২. সকল দোকান এবং শপিং সেন্টার।
৩. রেস্তোরাঁ, ক্যাফে এবং প্যাস্ট্রি শপ (সর্বাধিক চারজন বা বাইরে ছয়জন), রাত ১০টা পর্যন্ত (বা সা’প্তাহিক ছুটির দিনে এবং বিকেল ১টা পর্যন্ত)।
৪. সিনেমা, থিয়েটার ও অডিটরিয়াম।
৫. লোজা ডা সিদাদাও মুখোমুখি পরিষেবা কিন্তু অ্যাপয়েন্টমেন্টে বাধ্যতামূলক।
৬. একসাথে ৬ জন বাইরে চলাফেরা করতে পারবে।

৩ মে থেকে কার্যকর হবে-

১. কফি রেস্টুরেন্ট ও বেকারি শপের টাইম লিমিট ছাড়া (৬ জন অভ্যন্তরে, বাইরে ১০ জন)
২. আউটডোরের সকল বড় ইভেন্ট।
৩. অভ্যন্তরে নির্দিষ্ট পরিমাণ কম উপস্থিতি নিয়ে অনুষ্ঠানসহ বিয়ের অনুষ্ঠানের ক্ষেত্রে ৫০ শতাংশ উপস্থিতি ইত্যাদি।
৪. সকল প্রকার খেলাধুলা কার্যক্রম।
৫. সকল ব্যায়ামাগার এবং শরীরচর্চা কেন্দ্র।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    2
    Shares

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: