সর্বশেষ আপডেট : ১৫ মিনিট ৪৫ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ১ অগাস্ট ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ১৭ শ্রাবণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

লেবাননে ভয়াবহ পরিস্থিতি: আতঙ্কে বাংলাদেশী প্রবাসীরা

বাংলাদেশী প্রবাসীরা আজ দীর্ঘ ১৮ মাস ধরে চলা বি’ক্ষোভ, একের পর এক আ’ন্দোলনের মাঝে পড়ে অসহায় প্রবাসীরা ভালো নেই, অনেক ক’ষ্ট আর আতঙ্কের মাঝে জীবন যাপন করছেন l

এভাবে আর কত দিন, এহেন পরিস্থিতির জ্বালা ভোগ করতে হবে, ধৈর্য্য হারা হয়ে গেছেন তারা, এমন দুর্বিসহ জীবন আর বয়ে নিতে পারছেন না, তাঁদের মনে ভিড় করতে শুরু করেছে তাহলে কি আত্মহননের পথেই সমাধান ? প্রশ্ন তাঁদের l

ভুক্তভোগীদের আহাজারি না পারছেন দেশে ফিরতে, না পারছেন কাজ করে নিজের সংস্থান সহ বয়োবৃদ্ধ বাবা মাকে ভরণপোষণের টাকা পাঠাতে, না পারছেন ফেলে আসা ভাই বোনের মুখে হাসি ফুটিয়ে রাখতে, না পারছেন প্রিয় জনের স্বপ্ন গুলো পূরন করতে l

এদিকে বাবা-মা, ভাই-বোন তাঁকিয়ে আছে কখন ফিরবে প্রিয়জন তাঁদের l অনেকে আবার দিন গুনছে লেবাননের পরিস্থিতি ভালো হবার আশায়, শত ক’ষ্টের মাঝেও মিথ্যা অ’ভিনয়ে প্রবোধ দিয়ে চলেছেন প্রিয় জনদের, তারা নিজের ক’ষ্ট লুকিয়ে অন্যকে সুখে রাখার ব্যর্থ চেষ্টা করেই যাচ্ছেন, একমাত্র চাওয়া ভালো থাকুক স্বজন পরিজন l

চোখে কতই না স্বপ্ন নিয়ে লেবাননে এসে ছিলো হাজারো প্রবাসী আজ তাদের স্বপ্ন গুলো হাওয়ায় মিলিয়ে গিয়ে দুঃসময়ের স্রোতে বিলীন হয়ে স্বপ্ন গুলা কাঁচের মত ভেঙ্গে চুর মা’র হয়ে গেছে।

তত্ত্বাবধায়ক প্রধানমন্ত্রীর কাজ না করার হু’মকির জেরে টানা ছয় দিন ধরে লেবাননে বি’ক্ষোভ অব্যাহত রয়েছে। লেবাননের তত্ত্বাবধায়ক প্রধানমন্ত্রী হাসান দিয়াব দায়িত্ব পালন করা থামিয়ে দেওয়ার হু’মকি দেওয়ার পর বি’ক্ষোভ আরো জো’রদার হয়েছে। টায়ার ও আসবাবাপত্রের টুকরায় আ’গুন ধরিয়ে দিয়ে সড়ক অবরোধ করে রেখেছেন বি’ক্ষোভকারীরা।

জানা গেছে, অর্থনৈতিক সঙ্কট ও বেকারত্বের প্রতিবাদে বৈরুতে রাস্তায় নেমে আসে শত শত মানুষ। মূলতঃ ডলারের বিপরীতে লেবানিজ মুদ্রার মান আশ’ঙ্কাজনক হারে কমে যাওয়ার এই বি’ক্ষোভের সূত্রপাত। মুদ্রার দর পড়তে থাকায় জিনিসপত্রের দামও ব্যাপকভাবে বেড়ে চলেছে।

লেবাননের রাজধানীতে ব্যাংকিং সমিতির সামনে বি’ক্ষোভকারীদের একটি ছোট্ট দল তাদের আমানত পাওয়ার দাবি জানিয়েছে। নিজেদের ক্ষোভ ও হতাশা প্রকাশের জন্য তারা সেখান থেকে পার্লামেন্ট ভবনের দিকে হাঁটা দেয়। বৈরুতের মা’র্টারস স্কয়ারে অন্তত ৫০ জন বি’ক্ষোভকারী টায়ার জ্বালিয়ে বি’ক্ষোভ প্রদর্শন করেন ।

একজন বি’ক্ষোভকারী কেঁদে কেঁদে বলেন, ”আমাদের প্রত্যেকের ঘাড়ের ওপর চার-পাঁচজন সন্তানের ভরণপোষণের দায় আছে। এছাড়া পরিবারে বাবা-মা তো আছেই। দু’র্নীতিবাজ রাজনীতিবিদদের উচিত আমাদের খাওয়ানোর দায়িত্ব নেওয়া।

পাশাপাশি দেশটিতে জ্বালানি সরবরাহ বিলম্বিত হচ্ছে। এতে দেশজুড়ে বিদ্যুৎ বিহীন অবস্থা প্রলম্বিত হচ্ছে। কোনো কোনো এলাকা দৈনিক ১২ ঘণ্টার বেশি বিদ্যুৎ বিহীন থাকছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  • 19
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    19
    Shares

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: