সর্বশেষ আপডেট : ৬ ঘন্টা আগে
শুক্রবার, ১৯ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ ভাদ্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

যে ভুলের খেসারত দিল বাংলাদেশ

এই কদিন আগেও যাঁকে খুব একটা চিনত না ক্রিকেট বিশ্ব। টেস্ট অভিষেকেই জানিয়ে দিলেন, তাঁকে ভুলতে পারবে না কেউ! বলা হচ্ছে ক্যারিবীয় ব্যাটসম্যান কাইল মায়ার্সের কথা। তাঁর অবিশ্বাস্য ডাবল সেঞ্চুরিতে বাংলাদেশের বিপক্ষে ওয়েস্ট ইন্ডিজ পেল মহাকব্যিক জয়।

আজ রোববার চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে মায়ার্স খেলেছেন ২১০ রানের দুর্দান্ত একটি ইনিংস। ৩১০ বলে তাঁর ইনিংসটি সাজানো ছিল ২০ বাউন্ডারি ও সাত ছক্কায়। টেস্ট ক্রিকেট ইতিহাসে চতুর্থ ইনিংসে সর্বোচ্চ রান করা ক্রিকেটার এখন মায়ার্স। একই সঙ্গে টেস্টে চতুর্থ ইনিংসে প্রথম ডাবল সেঞ্চুরিয়ান তিনি। আর ষষ্ঠ ক্রিকেটার হিসেবে চতুর্থ ইনিংসে অভিষেকে করেছেন দ্বিশতক।

তিন উইকেটে ১১০ রান নিয়ে টেস্টের পঞ্চম ও শেষ দিন শুরু করে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। মায়ার্স ও বোনার দিনের শুরু থেকেই সাবলীল ব্যাট করেন। অবশ্য শুরুতেই এই জুটি ভাঙার সুযোগ পেয়েছিল বাংলাদেশ। কিন্তু লিটন দাসের ক্যাচ মিসের কারণে খেসারত দিতে হয় বাংলাদেশকে।

মেয়ার্স-বনারের জুটিতে বাংলাদেশ ভাঙন ধরাতে পারত আজ শেষ দিনের প্রথম ঘণ্টাতেই। জুটি ভাঙার তিনটি পরিস্কার সুযোগ এসেছিল সামনে। মেয়ার্সের ৪৭ রানের তাইজুল ইসলামের বলে জোরালো আবেদনে সাড়া দেননি আম্পায়ার। বাংলাদেশ নেয়নি রিভিউ। টিভি রিপ্লেতে দেখা যায়, বল লাগছিল স্টাম্পে।

মেয়ার্সই একটু পর জীবন পান ৪৯ রানে। মেহেদী হাসান মিরাজের বলে স্লিপে ক্যাচ নিতে পারেননি নাজমুল হোসেন শান্ত। যদিও সুযোগটি ছিল কঠিন। জীবন পাওয়ার বলেই মেয়ার্স পূরণ করেন ফিফটি।

আউট হতে পারতেন বনারও। নাঈম হাসানের একটি তীক্ষ্ণ টার্ন করা বলা লাগে বনারের প্যাডে। এবারও রিভিউ নেয়নি বাংলাদেশ। বনার বেঁচে যান ২৫ রানে। তাই হতাশার হারে মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশ। সূত্র : এনটিভি

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Comments are closed.

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: