সর্বশেষ আপডেট : ৯ ঘন্টা আগে
মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ১১ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

শ্যালকের সনদে কৃষক থেকে শিক্ষক হলেন দুলাভাই

শরিফুল ইসলাম। পেশায় একজন কৃষক। লেখাপড়া মাধ্যমিকের গন্ডি পেরোয়নি। তবে শ্যালক শফিকুল ইসলামের এসএসসি পাসের সনদে চাকরি নেন ইসলামিক ফাউন্ডেশনে মসজিদভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কেন্দ্রে। সেখানে প্রাক-প্রাথমিকের শিক্ষার্থীদের পাঠাদান করেছেন। কিন্তু পাঁচ বছর পর এ তথ্য ফাঁস হওয়ায় তাকে চাকরি খোয়াতে হয়েছে।

শরিফুল ইসলাম বগুড়ার ধুনট উপজেলার গোপালনগর ইউনিয়নের মহিশুরা গ্রামের আফছার আলীর ছেলে। তার স্বপ্ন ছিল চাকরি করা। এ অবস্থা্য় ইসলামিক ফাউন্ডেশনে মসজিদভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কেন্দ্রে শিক্ষক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ হয়। তখন শ্যালক শফিকুল ইসলমের সনদ সংগ্রহ করে শিক্ষক পদে আবেদন করেন। উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে মৌখিক পরীক্ষা দিয়ে তদবিরের মাধ্যমে চাকরি নেন তিনি।

তিনি শফিকুল ইসলাম নামে ২০১৫ সালের জানুয়ারি থেকে গোপালনগর উত্তরপাড়া জামে মসজিদে প্রাক-প্রাথমিকের শিক্ষার্থীদের পাঠদান করেন। প্রথমে প্রতি মাসে ৩ হাজার ও পরে ৫ হাজার টাকা এবং বছরে দুইবার ঈদ উৎসব ভাতাসহ প্রায় ৩ লাখ টাকা উত্তোলন করেন তিনি। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এ বিষয়টি ডিসেম্বর মাসে জানতে পারেন। পরে যাচাই-বাছাই করে শরিফুল ইসলামকে চাকরিচ্যুত করা হয়।

জানা গেছে, এ উপজেলায় ২০০৬ সাল থেকে মসজিদভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। এখানে মোট ২০১টি কেন্দ্র রয়েছে। এর মধ্যে কোরআন শিক্ষা ১২৩টি, প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা ৭৭টি এবং বয়স্ক শিক্ষা কেন্দ্র ১টি।

এ বিষয়ে শরিফুল ইসলাম বলেন, ‘শফিকুল ইসলামের হয়ে শিক্ষকতার চাকরিতে প্রক্সি দিয়েছি। এ বিষয়টি জানার পর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শফিকুলকে চাকরি থেকে অব্যহতি দিয়েছেন। তবে শফিকুলের সনদে আমার চাকরি নেওয়ার অভিযোগটি মিথ্যা।’

ইসলামিক ফাউন্ডেশন ধুনট উপজেলা শাখার ফিল্ড সুপারভাইজার মীর আরিফ হোসাইন জানান, তথ্য গোপন করে চাকরি করার অভিযোগে শরিফুলকে অব্যহতি দেওয়া হয়েছে। চাকরির নামে সরকারি টাকা আত্মসাতের বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এ ছাড়া প্রত্যেক কেন্দ্রের শিক্ষকদের কাগজপত্র যাচাই-বাছাই করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

ধুনট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সঞ্জয় কুমার মহন্ত জানান, অভিযোগটি প্রমানিত হওয়ায় শরিফুলকে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে। এ ছাড়া তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ইসলামিক ফাউন্ডেশন বরাবর সুপারিশ পাঠানো হয়েছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    1
    Share

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: