সর্বশেষ আপডেট : ৫ মিনিট ৫৩ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ১২ শ্রাবণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

বড়লেখায় ইভিএমে ‘মক ভোট’ অনুষ্ঠিত

বড়লেখা প্রতিনিধি: প্রথম ধাপে আগামী ২৮ ডিসেম্বর মৌলভীবাজারের বড়লেখা পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। তবে এর আগেই ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) অনুশীলনমূলক (মক) ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার (২৬ ডিসেম্বর) সকাল ১০টা থেকে পৌরসভার ১০টি ভোটকেন্দ্রে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। চলে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। পৌরসভার ১০টি কেন্দ্রে প্রায় ১ হাজার ৫০০ জন ভোটার মক (অনুশীলনমূলক) ভোট দিয়েছেন।

সরেজমিন শনিবার দুপুরে সাড়ে বারোটা থেকে তিনটা পর্যন্ত বড়লেখা সরকারি কলেজ, ষাটমা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, সিংহগ্রাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বড়লেখা মুহাম্মদিয়া আলিয়া ফাজিল মাদ্রাসা ভোটকেন্দ্রসহ বেশ কয়েকটি কেন্দ্র ঘুরে দেখা গেছে, ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট দেওয়ার প্রক্রিয়া ভোটারদের বুঝিয়ে দেওয়া হচ্ছে।

এসব কেন্দ্রগুলোতে ভোটার উপস্থিতি তেমন উপস্থিতি লক্ষ্য করা যায়নি। তবে মুহাম্মদিয়া ফাজিল মাদ্রাসা কেন্দ্রে কিছুটা ভোটার উপস্থিতি দেখা গেছে। দুপুর দেড়টার দিকে মক (অনুশীলনমূলক) ভোটকেন্দ্র পরিদর্শন করেন জেলা নির্বাচন ও নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা মোহাম্মদ আলমগীর হোসেন। এসময় তার সাথে ছিলেন নির্বাচনের সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও বড়লেখা উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা সাদিকুর রহমান।

ষাটমা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট দিয়েছেন তপন দত্ত। তিনি বলেন, ‘কত সুন্দর প্রক্রিয়ায় ভোট দিলাম। এ ফর্মুলায় একবার ভোট দিয়া আবার দেওয়ার সুযোগ নেই। একবার দিয়া অভ্যাস হলে মানুষ আর টেনশন করত নায়।’

বড়লেখা সরকারি কলেজ ভোট কেন্দ্রের দায়িত্বে থাকা প্রিজাইডিং কর্মকর্তা মো. সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘ইভিএম পদ্ধতিতে একজনের ভোট আরেক জনেরও দেওয়ার সুযোগ নেই। ইভিএমে মানুষের আগ্রহ আছে। বিশেষ করে তরুণদের।’

এ বিষয়ে জেলা নির্বাচন ও নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা মোহাম্মদ আলমগীর হোসেন বলেন, ‘মক (অনুশীলমূলক) ভোটে ব্যাপক সাড়া পাওয়া গেছে। ইভিএমের ভোটে মানুষের আগ্রহ আছে। এর আগে ইভিএমের মাধ্যমে ভোট প্রদানে উৎসাহ এবং প্রশিক্ষণ দিতে কয়েকদিন নানাবিধ প্রচার ও প্রদর্শনী করা হয়েছে। তারই ধারাবাহিকতায় ভোটারদের প্রশিক্ষণ দিতেই অনুশীলনমূলক (মক) ভোট উদ্যোগ। এ অনুশীলনের মাধ্যমে ভোটারদের ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) সঙ্গে পরিচয় করে দেওয়া হচ্ছে। কীভাবে ইভিএমে ভোট দেওয়া যায়, তা শিখতে পারবেন ভোটাররা।’ তিনি আরও বলেন, ‘সুষ্ঠু নির্বাচনের লক্ষ্যে সব ধরণের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।’

বড়লেখা পৌরসভায় মেয়র পদে ৩ জন, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ২৬ জন ও নারী কাউন্সিলর পদে ১১ জন প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। নির্বাচনে মেয়র পদে লড়ছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আবুল ইমাম মো. কামরান চৌধুরী (নৌকা), বিএনপি মনোনীত প্রার্থী আনোয়ারুল ইসলাম (ধানের শীষ), স্বতন্ত্র প্রার্থী সাইদুল ইসলাম (মোবাইল ফোন)।
উপজেলা নির্বাচন কার্যালয়ের তথ্যমতে, বড়লেখা পৌরসভার নয়টি ওয়ার্ডে মোট ভোটার সংখ্যা ১৫ হাজার ৪৪৩ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৭ হাজার ৫২৩ জন ও নারী ভোটার হচ্ছেন ৭ হাজার ৯২০ জন। পৌরসভার ১০টি কেন্দ্রে ৪৩টি ভোট কক্ষের (বুথের) ভোট গ্রহণ হবে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: