fbpx

সর্বশেষ আপডেট : ২৪ মিনিট ০ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ১ জুন ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

করোনার টিকা আসতে আরও ১৬ মাস লাগবে

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) প্রধান টেড্রোস আধানম গেবরিয়াসুস বলেছেন, প্রাণঘাতী সংক্রামক করোনাভাইরাসের টিকা আসতে আরও ১৬ মাস সময় লাগতে পারে।

জাতিসংঘের আর্থ-সামাজিক পরিষদের এক ভার্চুয়াল বৈঠকে অংশ নিয়ে সোমবার তিনি এ তথ্য জানান। কোভিড-১৯ রোগ মোকাবেলায় কার্যকর নীতি প্রণয়ন নিয়ে ওই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। খবর আলজাজিরার।

ডব্লিউএইচওর প্রধান বলেন, করোনাভাইরাসের টিকা আবিষ্কারের চেষ্টা শুরু হয়েছে গত জানুয়ারি মাসে। এ কাজে আরও ১০ থেকে ১৬ মাস সময় প্রয়োজন।

তিনি এ সংক্রান্ত গবেষণার কাজে প্রয়োজনীয় অর্থের জোগান দিতে জাতিসংঘের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেন, ইউরোপ এই কাজে ৮০০ কোটি ডলারের যে বাজেট দিয়েছে তা যথেষ্ট নয়।

টেড্রোস আধানম এমন সময় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার বাজেট নিয়ে এ তথ্য জানালেন, যখন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এ সংস্থাকে দেয়া আর্থিক অনুদান বন্ধ করে দিয়েছেন।

ট্রাম্প দাবি করছেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা চীনের সঙ্গে আঁতাত করে করোনাভাইরাস সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় তথ্য বিশ্বকে দেরিতে জানিয়েছে। এই ভাইরাস যে মানুষ থেকে মানুষে ছড়ায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা তা ২২ জানুয়ারি নিশ্চিত করে। ট্রাম্প দাবি করছ্নে, সংস্থাটি আরও আগে বিষয়টি বিশ্বকে জানাতে পারত।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট তার দেশে করোনাভাইরাসের ভয়াবহ প্রকোপ ঠেকাতে তার প্রশাসনের মারাত্মক ব্যর্থতা ধামাচাপা দিতে এ ধরনের অভিযোগ আনছেন।

কারণ আমেরিকায় করোনাভাইরাসের ব্যাপক প্রকোপ শুরু হয়েছে মার্চ মাসে। ট্রাম্পের ভাষায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা যদি ২২ জানুয়ারি দেরি করেও এ তথ্য জানিয়ে থাকে, তবু আমেরিকা এক মাসের বেশি সময় হাতে পেয়েছিল। কিন্তু নিছক অবহেলা করে ট্রাম্প প্রশাসন এই ভাইরাসের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে ব্যর্থ হয়।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: