সর্বশেষ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে
রবিবার, ১২ জুলাই ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ২৮ আষাঢ় ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

শ্রমিক বেশে ঢাকা প্রবেশকালে ৭০০ মানুষকে আটকাল পুলিশ

লকডাউন কার্যকরে জনগণ ও প্রশাসন রয়েছে কঠোর অবস্থান। অনুপ্রবেশকারীদের ঠেকাতে ধামরাইয়ে জলপথ ও সড়কপথে বসানো হয়েছে পুলিশ ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের চেকপোস্ট। র্যাব ও সেনাবাহিনীর সদস্যরাও রয়েছে অধিক তৎপর।

সোমবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে ঢাকা-ধামরাই-মির্জাপুর আঞ্চলিক মহাসড়ক হয়ে উত্তরবঙ্গ থেকে থেকে ১১টি বাসে করে আসা ৭ শতাধিক ব্যক্তি রাজধানীতে অনুপ্রবেশের চেষ্টা করে। ওই সড়কের বালিয়া পুলিশ চেকপোস্টে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের সহায়তায় পুলিশ তাদের রুখে দেয়।

তাদের ছিল ব্যক্তিগত সুরক্ষা সামগ্রী (পিপিই) পরিহিত। তাদের সঙ্গে ছিল ধান কাটার কাস্তে, ধান বহনের বাইক (বাঁশ দিয়ে তৈরি) ও রশি। তারা নিজেদের ধানকাটা শ্রমিক পরিচয় দেয়।

রাজধানীতে অনুপ্রবেশকালে কর্তব্যরত কাওয়ালীপাড়া বাজার পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ পরিদর্শক রাসেল মোল্লা, বালিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুল গণি সুমন, ধামরাই উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি ও বালিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আহমদ হোসেনসহ আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা ওই ১১টি গাড়ি গতিরোধ করে তল্লাশি চালান। তাদের চেহারা ও গতিবিধি সন্দেহজনক হলে তাদেরকে অনুপ্রবেশ করতে না দিয়ে ওই ১১টি বাস ফেরত পাঠায় পুলিশ।

পরিদর্শক রাশেল মোল্লা বলেন, লকডাউন কার্যকরে পুলিশ জনতা মিলেই দায়িত্ব পালন করা হচ্ছে। তাই সহজেই ধানকাটা শ্রমিক পরিচয়ে রাজধানীতে অনুপ্রবেশকারী ১১টি বাস ফেরত পাঠানো সহজ হয়েছে।

বালিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আহমদ হোসেন বলেন, শুধু চেয়ারম্যান ও নেতা হিসাবে নয়, একজন সুনাগরিক হিসাবেই আমি আমার এলাকা নিরাপদ রাখতে চাই। তাই সার্বক্ষণিক নিজে উপস্থিত থেকে ও জনবল দিয়ে পুলিশকে সহায়তা প্রদান করে আসছি।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: