সর্বশেষ আপডেট : ৫ ঘন্টা আগে
রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ১১ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

করোনা রোগীদের চিকিৎসায় অনীহায় ৬ চিকিৎসক বরখাস্ত, ড্যাবের প্রতিবাদ

কুয়েত-বাংলাদেশ মৈত্রী সরকারি হাসপাতালের ছয়জন চিকিৎসকের শাস্তিমূলক ব্যবস্থা মাঠ পর্যায়ে বিরূপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করবে জানিয়ে এর প্রতিবাদ করেছে ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ড্যাব)। অনতিবিলম্বে এসব চিকিৎসকের বিরুদ্ধে নেওয়া শাস্তিমূলক ব্যবস্থার আদেশটি দ্রুত বাতিলেরও দাবি জানিয়েছে সংগঠনটি।

গতকাল শনিবার কুয়েত-বাংলাদেশ মৈত্রী সরকারি হাসপাতালের ছয়জন চিকিৎসককে সাময়িক বরখাস্তের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানিয়ে আজ রোববার ড্যাবের সভাপতি অধ্যাপক ডা. হারুন আল রশিদ ও মহাসচিব ডা. মো. আবদুস সালাম এই যৌথ বিবৃতি দেন।

সরকারের সিদ্ধান্তের সমালোচনা করে তারা বিবৃতিতে বলেন, দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে বিশ্বে মহামারি করোনাভাইরাসের করাল গ্রাসে থেকে বাংলাদেশের মানুষকে রক্ষা করতে সম্মুখ যোদ্ধা হিসেবে যারা নিরলসভাবে কাজ করছেন, তাদের ব্যপারে পূর্বের মতোই তড়িঘড়ি করে সিদ্ধান্ত নিলে যে তা ভুল হয় এবং এই দুঃসময়ের সৈনিকদের প্রতি অবিচার করা হয় এবং তাদের এই আত্মত্যাগের প্রতি এক ধরনের অসম্মান প্রদর্শন করা হয় এবং পরোক্ষভাবে তাদেরকে নিরুৎসাহিত করা হয়, তা আবারও প্রমাণ হলো।

তারা বলেন, বরখাস্তকৃত চিকিৎসকদের তালিকাটি ভালো করে পর্যালোচনা করলে দেখা যায় যে, ওই ছয়জন চিকিৎসকের মধ্যে চারজনই বেশ অনেকদিন আগে থেকেই যোগদান পরবর্তী তারিখ থেকে অনুপস্থিত এবং দুজন করোনা রোগীর চিকিৎসার ব্যপারে অনীহা দেখিয়েছে। অথচ শেষোক্ত একজন মিডিয়ার মাধ্যমে জানিয়েছেন যে, তিনি করোনা রোগীর চিকিৎসা পরবর্তী ১৪ দিনের বাধ্যগত আইসোলেশনে কর্তৃপক্ষ নিধারিত হোটেলে অবস্থান করেছেন। বরখাস্তের সংবাদটি সেই চিকিৎসকের জন্য কতখানি বেদনাদায়ক এবং সামাজিকভাবে তার এই সম্মানহানির জবাব কে দেবে?

ড্যাবের এই দুই শীর্ষ নেতা বলেন, এ ছাড়া যারা যোগদানের পর থেকে অনুপস্থিত তার নানাবিধ কারণ থাকতে পারে, কিন্তু সময়মতো জবাবদিহি না করে এখন করোনা চিকিৎসার সাথে এটিকে জড়িয়ে সামাজিকভাবে চিকিৎসকদেরকে হেয় করা এবং দুঃসময়ে তাদেরকে জনগনের মুখোমুখি করে কর্তৃপক্ষ এক ধরনের দায় এড়ানোর চেষ্টা করছে।

তারা বলেন, এই কঠিন সময়ে করোনাভাইরাস প্রতিরোধ ও করোনা আক্রান্ত রোগীদের এবং অন্যান্য রোগীদের যথাযথ চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করার নিমিত্তে চিকিৎসকসহ সংশ্লিষ্ট স্বাস্থ্যকর্মীদের প্রকৃত ব্যক্তিগত সুরক্ষা সামগ্রী প্রদানসহ তাদেরকে আস্থায় এনে কাজে উৎসাহ প্রদান করা সকলের কর্তব্য। মনে রাখতে হবে, চিকিৎসকেরও পরিবার আছে, একজন চিকিৎসকও একজন স্বামী বা স্ত্রী, কারও পিতা বা মাতা। তারও রয়েছে পিতামাতা, আত্মীয় পরিজন। এই সবকিছু উপেক্ষা করেই এই দুঃসময়ে তাদের দায়িত্ব পালন করতে হয়। সুতরাং সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের এইসব বিবেচনায় নেওয়া সমীচীন ছিল।

ড্যাবের নেতারা বলেন, চিকিৎসকের বিরুদ্ধে এই ধরনের শাস্তিমূলক ব্যবস্থা মাঠপর্যায়ে বিরূপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করবে। এমতাবস্থায় ড্যাব অনতিবিলম্বে চিকিৎসকের বিরুদ্ধে নেওয়া শাস্তিমূলক ব্যবস্থা আদেশটি বাতিলের জোর দাবি জানাচ্ছে।

এই মুহূর্তে বিভেদ না বাড়িয়ে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ করে এই মহা সমস্যা উত্তরণে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন তারা। সুত্র : আমাদের সময়

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: