সর্বশেষ আপডেট : ৬ ঘন্টা আগে
মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

কাউন্সিলর লায়েকের চালবাজিতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বেজায় ক্ষিপ্ত

সিলেট সিটি করপোরেশনের খাদ্য ফান্ডের ১২৫ বস্তা চাল নিয়ে ৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর এ কে লায়েকের চালবাজিতে বেজায় ক্ষিপ্ত হয়েছেন সিলেট-১ আসনের এমপি ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন। তিনি আজ শনিবার (৪ এপ্রিল) দুপুরে এক ভিডিওবার্তায় কাউন্সিলর লায়েকের উপর তাঁর এই ক্ষিপ্ত হওয়ার বিষয়টি জানান।

আজকের ভিডিওবার্তায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সিলেটের একটি দুর্ঘটনার কথা আমি শুনেছি। মেয়র সাহেব আমাকে ফোন করেছিলেন। আমাদের দলের এক ভদ্রলোক প্রায় ১২৫ ব্য়াগ চাল রাতের সময়ে জোর করে নিয়ে যান। এটি খুবই দু:খজনক এবং বাজে কাজ। আমি এ বিষয়ে ডিসি সাহেবের সঙ্গে ফোনে কথা বলেছি।

উল্লেখ্য, করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে অসহায়দের সহযোগিতা করার জন্য মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী নগরভবনে খাদ্য ফান্ড গঠন করেন। সেই ফান্ডে সরকারি বেসরকারি অনুদান জমা হতে থাকে। ইতোমধ্যে কাউন্সিলররা তাদের ওয়ার্ডের সাহায্যপ্রার্থী অসহায়দের তালিকা তৈরি করে জমা দেন নগরভবনে। সে অনুযায়ী সিটি করপোরেশন থেকে খাদ্যসামগ্রী সরবরাহ করা হয় বিভিন্ন ওয়ার্ডে। সংশ্লিষ্ট কাউন্সিলররা নিজ নিজ ওয়ার্ডে খাদ্যসামগ্রীগুলো বিতরণ করছেন।

৩নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর এ কে লায়েক তার ওয়ার্ডের জন্য ৬ হাজার ৪টি পরিবারের তালিকা জমা দেন সিটি করপোরেশনে। কিন্তু সেই তালিকা অবিশ্বাস্য ঠেকে মেয়র ও নগরভবনের কর্মকর্তাদের কাছে। তারা খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন ওই ওয়ার্ডে সাহায্যপ্রার্থী দু:স্থ পরিবারের সংখ্যা ১ হাজার ৫৪৫টি। তখন কাউন্সিলর লায়েককে তালিকা সংশোধনের প্রস্তাব দেয়া হলে তিনি ক্ষেপে যান।

বৃহস্পতিবার তিনি নগরভবনে এসে এ নিয়ে মেয়র ও কর্মকর্তাদের সাথে দুর্ব্যবহার করেন। একপর্যায়ে ট্রাকভর্তি ১২৫ বস্তা চাল জোর করে নিয়ে যান। এসময় সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা তার কাছ থেকে চাল গ্রহণের ব্যাপারে স্বাক্ষর রাখেন।

পরবর্তীতে জোর করে নেওয়া ১২৫ বস্তা চাল উদ্ধারে তৎপর হয় সিটি করপোরেশন। কাউন্সিলর লায়েককে চাল ফেরত দেওয়ার জন্য চাপ দেওয়া হয়। এদিকে, খাদ্যসহায়তার ডাল, তেল, পিয়াজ, আলু ও লবন না পেয়ে শুধু চাল নিয়ে বিপাকে পড়েন কাউন্সিলর লায়েক। অবশেষে নগরভবন কর্তৃপক্ষ ও কাউন্সিলর লায়েক সমঝোতায় পৌঁছান। চাল ফেরত দিলে আড়াই হাজার প্যাকেট খাদ্যসহায়তা দেওয়ার প্রস্তাব দেন মেয়র। মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর এই প্রস্তাবে সাড়া দিয়ে শুক্রবার বিকেলে চাল ফেরত দেন কাউন্সিলর লায়েক। আর প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী লায়েককে বুঝিয়ে দেওয়া হয় আড়াই হাজার প্যাকেট খাদ্যসহায়তা (ত্রাণ)।

এ ব্যাপারে কাউন্সিলর লায়েক বলেন, নগরভবন থেকে তেল, ডাল, পিয়াজসহ অন্যান্য খাদ্যসামগ্রী না দেওয়ায় চাল ফেরত দিয়েছি। পরে নগরভবন থেকে প্যাকেটজাত ত্রাণ সরবরাহ করা হয়েছে।

সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বিধায়ক রায় চৌধুরী জানান, দাবি খাটিয়ে কাউন্সিলর লায়েক এক ট্রাক চাল নিয়ে গিয়েছিলেন। পরে বিষয়টি সমাধান করা হয়েছে।

মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী জানান, কাউন্সিলর লায়েক অসহায় পরিবারের যে তালিকা দিয়েছিলেন তা অবাস্তব ছিল। একটি ওয়ার্ডে ৬ হাজার অসহায় দু:স্থ পরিবার এটা বিশ্বাসযোগ্য নয়। তাকে আড়াই হাজার প্যাকেট ত্রাণ দেওয়ার কথা বলায় তিনি জোর করে ১২৫ বস্তা চাল নিয়ে যান। পরে চাল ফেরত দিয়ে ওই আড়াই হাজার প্যাকেট নিয়ে গেছেন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: