fbpx

সর্বশেষ আপডেট : ১৭ মিনিট ৪ সেকেন্ড আগে
বৃহস্পতিবার, ২৮ মে ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

ছাতকে চাউলীর হাওরে ফসল রক্ষা বেড়িবাঁধের কাজ পরিদর্শনে ইউএনও

  • ছাতক সংবাদদাতা

ছাতকের সিংচাপইড় ইউনিয়নের চাউলীর হাওর প্রকল্পের বেড়িবাঁধের ভাঙ্গা অংশ মেরামত কাজে প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটি কর্তৃক কাজের অনিয়ম ও দূর্নীতি তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণ প্রসঙ্গে পিআইসি-৩ ও পিআইসি-৪ এর বিরুদ্ধে পৃথক দুটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। সৈদেরগাঁও গ্রামের কাজী এনামুলহকসহ প্রায় দুই শত মানুষের সাক্ষরিত একটি লিখিত অভিযোগ ৫ মার্চ সিলেট বিভাগীয় কমিশনার বরাবরে দায়ের করা হয়। ৯ মার্চ মিজানুর রহমান, সিমন মিয়া, কাজী এনামুল হক সাক্ষরিত পৃথক আরো একটি লিখিত অভিযোগ সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক বরাবরে দায়ের করলে অভিযোগটি যাচাই করে দেখার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেয় হয়।

অন্যান্য কর্মকর্তাদের সাথে নিয়ে মঙ্গলবার দুপুরে ঘটনাস্থলে পরিদর্শনে যান ছাতক উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ গোলাম কবির। দুপুর থেকে বিকেল পর্যন্ত তিনি বেড়িবাঁধগুলোর কাজ পরিদর্শন করেন। পরিদর্শনে তিনি ফিতা দিয়ে কাজের ˆদর্ঘ্য ও প্রস্ত এবং বাঁেধর উপর কতটুকু পরিমানে মাটি পড়েছে কুদাল দিয়ে কুঁড়ে আলামত সংগ্রহ করেন। এসময় তিনি বাঁধের উপর পর্যাপ্ত পরিমানে ঘাঁস লাগানো, বাঁধ সংস্কারের পরামর্শ দিয়ে বাঁেধর উপর সৃষ্ট ফাঁটলগুলোর কারণে যাতে কোন ধরণের ক্ষতি না হয় সেদিকে খেয়াল রাখার জন্য পিআইসির সভাপতি ও সদস্য সচিবসহ দায়িত্বশীলদের নির্দেশ প্রদান করেন। কৃষকরা ফসল তুলার আগ পর্যন্ত বাঁেধর সকল ধরণের সংস্কার কাজ অব্যাহত থাকবে এবং সফল রক্ষা বাঁধে কোন ধরণের অনিয়ম হলে কাউকে ছাড় দেয়া হবেনা বলেও তিনি সতর্ক করেন।

জানা যায়, উপজেলার সিংচাপইড় ইউনিয়নের চাউলীর হাওর ফসল রক্ষা বেড়িবাঁধগুলো সংস্কারের জন্য দুটি পিআইসির মাধ্যমে ৩০লাখ ১৩হাজার টাকা বরাদ্দ হয়। প্রকল্পের ৪নং পিআইসির সভাপতি, ইউপি সদস্য আবদুল জলিল ও সদস্য সচিব আজমান আলীর আওতায় আবদুল করিমের বাড়ি থেকে মুনাফ আলীর বাড়ির পশ্চিম পর্যন্ত ৮৪২ মিটার। প্রকল্পের ৩নং পিআইসির সভাপতি উপমেশ চন্দ্র সূত্রধর ও সদস্য সচিব নূর আলমের মাধ্যমে আসলমপুর গ্রামের পশ্চিমে চলিতা গাছের তলা থেকে ১৪৪ মিটার, সিরাজগঞ্জবাজার খালের মুখে ১৪মিটার ও গহরপুরের খালের মুখে ৩০মিটার বেড়িবাঁধ কাজ পায়। বেড়িবাঁেধর কাজগুলো শুরু হয়ে এখন প্রায় শেষ পর্যায়ে।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ গোলাম কবির বলেন, চাউলীর হাওরের আবদুল করিমের বাড়ি থেকে মুনাফ আলীর বাড়ির পশ্চিম পর্যন্ত ৪ নং প্রকল্প এবং আসলমপুর গ্রামের চলিতা গাছের তলা, সিরাজগঞ্জবাজার খালের মুখ ও গহরপুর গ্রামের খালের মুখ পর্যন্ত ৩নং প্রকল্পের হাওর ফসল রক্ষা বেড়িবাঁধের কাজ সন্তোষজনক।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: