fbpx

সর্বশেষ আপডেট : ১০ ঘন্টা আগে
শুক্রবার, ২৯ মে ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

সিলেটে মোদীর কুশপত্তলিকা দাহ, ভারতে মুসলিম গণহত্যা বন্ধের দাবি

ভারতে মুসলিম গণহত্যা, নির্যাতন ও মসজিদে অঙ্গিসংযোগের ঘটনায় দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে দায়ি করে আগুন দিয়ে পোড়ানো হয়েছে তার কুশপত্তলিকা।

শুক্রবার (৬ মার্চ) বাদ জুমা সিলেট নগরীর কোট পয়েন্টে আয়োজিত সমাবেশ শেষে মোদীর কুশপত্তলিকা অগ্নিসংযোগ করা হয়।

এর আগে পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে জুমার নামাজ শেষে নগরীর বিভিন্ন মসজিদ থেকে খন্ড খন্ড মিছিল করে কোর্ট পয়েন্টে এসে মিলিত হয়। এখানে সমাবেশ ‘সমমনা ইসলামী দল সমূহ, সিলেট’র ব্যানারে সমাবেশ অনুষ্টিত হয়। সমাবেশ শেষে নগরীতে বিশাল বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়।

কোর্ট পয়েন্ট সমাবেশে বক্তারা বলেন, সন্ত্রাসী মোদী মুসলমানদের নির্বিচারে হত্যা করছে, নির্যাতন করছে।  মসজিদ-মাদ্রাসা জ্বালিয়ে পুড়িয়ে দিচ্ছে। মিনারে হনুমানের পতাকা লাগিয়েছে। এসব কাজ বিশ্বের ১৮০ কোটি মুসলমানদের কলিজায় আঘাত দিয়েছে। মুজিববর্ষ উদযাপন অনুষ্ঠানে ইসলাম ও মুসলিমবিদ্বেষী নরেন্দ্র মোদিকে বাংলাদেশের জনগণ দেখতে চায় না।

মুজিববর্ষের অনুষ্ঠানে মোদি যোগ দিলে এদেশে বদরের যুদ্ধের পূণরাবৃত্তি হবে বলে হুশিয়ারী উচ্চারণ করে বলেন, শাপলা চত্তরে রক্ত দিয়েছি, এ রক্তের দাগ এখনও শোকায়নি। প্রয়োজনে মোদি দেশে আসলে আবারও রক্ত দিতে আমরা প্রস্তুত রয়েছি। তবুও মুসলমানদের উপর কোন ধরণের নির্যাতন সহ্য করবো না।

বক্তারা বলেন, আমরা মুজিববর্ষের বিরোধী নই, কিন্তু রক্তপিপাসু নরেন্দ্র মোদী বিরোধী। তাকে এদেশের মুসলমান জনগণ কখনও মেনে নেবে না।

বক্তারা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, আওয়ামী লীগের দায়িত্বশীলরা বলছেন ভারতে নৃশংসতা তাদের অভ্যন্তরীন বিষয়। তাদের এরকম বক্তব্য ৯৫ ভাগ মুসলমানের দেশে মুসলমানদের কলিজায় আঘাত লেগেছে। মন্ত্রীদের মুখে এরকম বক্তব্য মানায় না। অবিলম্বে ভারতে গণহত্যা বন্ধে সরকারের কূটনৈতিক তৎপরতা চালিয়ে যাওয়ার জোর দাবি জানান।

বক্তারা বলেন, ইসলাম সবসময় মানবাধিকার, শান্তি ও নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠার কথা বলে অমুসলিম সম্প্রদায়কে নিরাপত্তাদানের কথা বলে। আমাদের দেশের মুসলমানগণ বারবার তা প্রমাণ করে দেখিয়েছে। এ দেশে মানবপ্রাচীর তৈরি করে মন্দির পাহারা দেয়ার নজীর আমরা দেখিয়েছি। বাংলাদেশে সংখ্যালঘুরা সবচেয়ে বেশি সুযোগ-সুবিধা ভোগ করে বসবাস করছে। অথচ ভারতে এর উল্টো চিত্র আমরা দেখতে পাচ্ছি। ভারতের সংখ্যালঘু মুসলিম সম্প্রদায় সবসময় সংখ্যাগরিষ্ঠ হিন্দু সম্প্রদায় কর্তৃক নির্যাতিত নিপীড়িত হচ্ছে। ভারতের উচিৎ হবে নিজেদের দেশের সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা ও নাগরিক অধিকার নিয়ে কাজ করা।

জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম সিলেট মহানগর সভাপতি মাওলানা খলিলুর রহমানের সভাপতিত্বে ও বাংলাদেশ খেলাফত মসলিস সিলেট মহানগর সাধারণ সম্পাদক মাওলানা এমরান আলম, জেলা জমিয়তে যুগ্ম সম্পাদক মাওলানা নজরুল ইসলাম এবং মহানগর খেলাফত মসলিস সহ সভাপতি মাওলানা তাজুল ইসলাম হাসান যৌথ পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন- হেফাজতে ইসলাম সিলেট জেলা সভাপতি মাওলনা মুহিবুল হক গাছবাড়ী, বাংলাদেশ খেলাফত মসলিসের কেন্দ্রীয় নায়বে আমির মাওলানা রেজাউল করিম জালালী, জমিয়তে কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি সাবেক এমপি এডভোকেট শাহীনুর পাশা চৌধুরী, খেলাফত মসলিস নায়বে আমির হাফিজ মাওলানা মজদুিুদ্দন আহমদ, বাংলাদেশ খেলাফত মসলিস সিলেট জেলা শাখার সভাপতি মাওলানা ইকবাল হোসাইন, মহানগর সভাপতি মাওলানা গাজী রহমত উল্লাহ, কাজির বাজার মাদরাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা সামীউর রহমান মুসা, মহানগর জমিয়তে সিনিয়র সহ সভাপতি অধ্যক্ষ হাফিজ আব্দুর রহমান সিদ্দিকী।

বক্তব্য রাখেন- বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস সিলেট জেলা শাখার সভাপতি মাওলানা ইকবাল হোসাইন, মহানগর সভাপতি মাওলানা গাজী রহমত উল্লাহ, মহানগর জমিয়তের সিনিয়র সহ সভাপতি অধ্যক্ষ হাফিজ আব্দুর রহমান সিদ্দিকী, খেলাফত মসলিস  অধ্যাপক বজলুর রহমান, জেলা জমিয়তের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা আতাউর রহমান, বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস জেলার সাধারণ সম্পাদক হাফিজ মাওলানা আতিকুর রহমান, মহানগর হেফাজতের সাধারন সম্পাক মাওলানা মোস্তাক আহমদ খাঁন, ভার্থখলা মাদরাসার মুহাদ্দিস মাওলানা মুহিবুর রহমান মিঠুপুরী, জাতীয় ইমাম সমিতি মহানগর সভাপতি মাওলানা হাবিব আহমদ শিহাব, ইসলামী ঐক্যজোট সিলেট মহানগর সভাপতি মাওলানা ফয়জুল হক জালালাবাদী, সোবহানী মাদরাসার নায়বে মুহতামিম মাওলানা আহমদ ছগির, খেলাফত আন্দোলন সিলেট জেলা সভাপতি মাওলানা প্রিন্সিপাল নাসির উদ্দিন, মাওলানা সামসুদ্দিন মো. ইলিয়াস, শামীমাবাদ মাদরাসার মুহতামিম হাফিজ সৈয়দ শামীম আহমদ, মহানগর খেলাফত মসলিস সাধারন সম্পাক কে এম আব্দুল্লাহ আল মামুন, সহ জেলা সাধারণ সম্পাদক মাওলানা মখলিছুর রহমান, বাংলাদেশ খেলাফত মসলিস সিলেট জেলার প্রশিক্ষণ সম্পাদক মুফতি মাহবুবুল হক, ইসলামী ঐক্যজোট সিলেট জেলা সভাপতি মাওলানা আসলাম রহমানী, জেলা জমিয়তের প্রচার সম্পাদক মাওলানা সালেহ আহমদ শাহবাগী, কাজির বাজার মাদরাসার শিক্ষক মাওলানা ফাহাদ আমান, মাওলানা ফয়সল আহমদ প্রমুখ।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: