সর্বশেষ আপডেট : ৮ মিনিট ৪৭ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

দিল্লিতে খাল-নর্দমা থেকে উদ্ধার হচ্ছে লাশ, বাড়ছে নিহতের সংখ্যা

আরও তিনটি মৃতদেহ উদ্ধার হল উত্তর-পূর্ব দিল্লি থেকে। রবিবার গোকুলপুরীর নর্দমা থেকে একটি ও ভাগীরথী খাল থেকে উদ্ধার হয়েছে দুটি দেহ। এখনও পর্যন্ত দিল্লিতে হিংসার জেরে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৪৬। রবিবার সকাল ১০টা নাগাদ প্রথম দেহটি উদ্ধার করা হয়। অপর দেহটি উদ্ধার হয় বিকেল তিনটে নাগাদ। তবে উদ্ধার হওয়া দেহগুলির পরিচয় এখনও জানা যায়নি।

ভারতীয় গণমাধ্যম সংবাদ প্রতিদিনের এক প্রতিবেদনে এ খবর প্রকাশ করা হয়েছে।

এর আগে গোয়েন্দা অফিসার অঙ্কিত শর্মার দেহও উদ্ধার হয়েছিল নর্দমা থেকে। তাঁর দেহের ময়নাতদন্তের রিপোর্টে দেখা গিয়েছে, নৃশংসভাবে ৪০০ বার কোপ মারা হয়েছিল তাঁকে। তাঁর মৃত্যু ঘিরে গোটা ভারতজুড়ে তৈরি হয়েছে তীব্র চাঞ্চল্য।

বিগত প্রায় এক সপ্তাহের সংঘর্ষে ভারতের রাজধানীতে নিহত হয়েছে প্রায় অর্ধশতাধিক। আর আহত হয়েছে কমপক্ষে ৩০০ জন। দায়ের করা হয়েছে ১৬৭টি এফআইআর। আটক করা হয়েছে ৮৮৫ জনকে। উত্তর-পূর্ব দিল্লির বেশ কিছু জায়গায় ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। এমনকী শাহিনবাগ এলাকার জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছেও ১৪৪ ধারা চলছে। মোতায়েন করা হয়েছে বিশাল পুলিশবাহিনী।

শীর্ষ এক পুলিশ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, আগাম সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিতেই এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। হিন্দু সেনা ১ মার্চের মধ্যে শাহিনবাগ খালি করে দেওয়ার ডাক দিয়েছিল। তবে পুলিশ এ ব্যাপারে হস্তক্ষেপ করায়, শনিবারই তারা তাদের বিক্ষোভ কর্মসুচি প্রত্যাহার করার কথা ঘোষণা করেছে। তা সত্ত্বেও কোনও ঝুঁকি নিতে রাজি নয় দিল্লি পুলিশ। আগাম সতর্কতা নিতে নিরাপত্তার চাদরে মুড়ে ফেলা হয়েছে শাহিনবাগকে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: