ছাত্রীদের পর্ণো ছবি দেখানোর অভিযোগে সুনামগঞ্জে শিক্ষক জেলহাজতে

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:

সুনামগঞ্জে মুঠোফোনে অশ্লীল ছবি ছাত্রীদের দেখানোর অভিযোগে এক প্রধান শিক্ষককে জেল হাজতে পাঠিয়েছে আদালত। গতকাল দুপুরে নারী শিশু ট্রাইব্যুনাল আদালতে হাজির করলে জেল হাজতে পাঠায় আদালত। তিনি হলেন মাইজবাড়ি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গিয়াস উদ্দিন। তার বাড়ি কুরবাননগর ইউনিয়নের ব্রাম্মণগাঁও গ্রামে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সুত্রে জানা যায়, মাইজবাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় অষ্টম শ্রেণী পর্যন্ত একটি প্রতিষ্ঠান। ঐ প্রতিষ্ঠানের ৫ম শ্রেণির চার ছাত্রীকে কিছু দিন ধরে নানা অজুহাতে বিদ্যালয়ের ছাদে নিয়ে যেতেন প্রধান শিক্ষক গিয়াস উদ্দিন। সেখানে তাদের মোবাইলে পর্ণো ছবি দেখাতেন তিনি। পর্ণো ছবি না দেখালে পরীক্ষায় ফেল ও নানা ভয়ভীতি দেখাতেন এই শিক্ষক।

গত মঙ্গলাবর তিনি চার ছাত্রীর মধ্যে দুই ছাত্রীকে ছাদে নিয়ে পর্ণো ছবি দেখানোর চেষ্টা করেন। অন্য দুই ছাত্রী বিষয়টি খারাপ ভেবে তাদের অভিভাবকদের জানান। এ সময় গ্রামবাসী দৌড়ে এসে বখাটে এই শিক্ষককে উত্তমমধ্যম দেন। খবর পেয়ে ঐ প্রধান শিক্ষককে থানায় নিয়ে আসে পুলিশ।

গতকাল এই বখাটে শিক্ষককে আদালতে হাজির করলে তাকে জেল হাজতে পাঠান বিজ্ঞ বিচারক।

সাম্প্রতিক সংবাদ

  • সিলেট

শীঘ্রই চালু হচ্ছে সিলেট-নিউ ইয়র্ক ফ্লাইট

১৩ আগষ্ট ২০২২, ১২:২৭ পূর্বাহ্ন
  • সিলেট

ওসমানীর ঘটনায় আরও ২ আসামি জেলে

১১ আগষ্ট ২০২২, ৫:১৫ অপরাহ্ন
  • প্রবাস

ইতালিতে বসবাসের অনুমতিতে বাংলাদেশিরা চতুর্থ

১১ আগষ্ট ২০২২, ৫:১০ অপরাহ্ন