সর্বশেষ আপডেট : ৪৬ মিনিট ২৩ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১৭ ফাল্গুন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ছাতকে ডাকাতরা ৪৫ লক্ষ টাকার মাল লুট কনে নিয়ে গেছে

ছাতক সংবাদদাতা::

ছাতকের মন্ডলীভোগ এলাকার বাসিন্দা দুলাল মিয়ার মালিকানাধীন সোনালী কংক্রীট প্রোডাক্টস নামের মিলে দুধর্ষ ডাকাতি সংঘঠিত হয়েছে। ডাকাতরা মিলের মূল্যবান যন্ত্রপাতিসহ ৪৫ লক্ষাধিক টাকা মুল্যের মালামাল লুট করে নিয়ে গেছে। এসময় ডাকাতদের প্রহারে মিলের চৌকিদার শাহজাহান মিয়া গুরুতর আহত হয়েছে। তাকে ছাতক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সোমবার গভীর রাতে ১৫-২০ জনের মুখোশধারী একটি সংঘবদ্ধ ডাকাত দল সুরমা নদীর তীরে ইসাকলস এলাকায় অবস্থিত সোনালী কংক্রীট প্রোডাক্টস মিলে হানা দেয়। ডাকাতরা চৌকিদার শাহজাহান মিয়াকে বেঁধে মারধোর করে মিলের প্রায় পৌনে ৩লক্ষ টাকা মূল্যের ১৩টি কনভেয়ার বেল্টের মোটর, প্রায় সাড়ে ২৫ লক্ষ টাকা মুল্যের ১ হাজার ১৩৩পিস ফিলার ড্রাইস, প্রায় অর্ধলক্ষ টাকা মুল্যের ১টি বাইভেটর মোটর, প্রায় ১ লক্ষ টাকা মুল্যের এসটি কেবল, প্রায় ৮ লক্ষ টাকা মুল্যের মুল্যবান কেবল, প্রায় ৭লক্ষ টাকা মূল্যের ১টি ট্রান্সফরমারসহ ৪৫লক্ষ টাকা মূল্যের মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। স্থানীয় লোকজনের অভিযোগ, একটি সংঘবদ্ধ ডাকাতদল প্রায় সময়ই সুরমা নদীর তীরবর্তী বিভিন্ন ক্রাসারমিলে হানা দিয়ে মুল্যবান যন্ত্রাংশ লুট করে নিয়ে যাচ্ছে।

এ ঘটনায় মিলের মালিক মৃত দুলাল মিয়ার পুত্র জাকির হোসেন বাদী হয়ে ইসাকলস গ্রামের জয়নাল মিয়া, রফিক মিয়া, করিম মিয়া, আজির মিয়া, চান্দ আলী, নজর মিয়া, বাদশা মিয়া, কালা মিয়া, ইকবাল মিয়া ও ছাতকের গনেশপুর গ্রামের নুর মিয়ার বিরুদ্ধে মঙ্গলবার কোম্পানীগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে বুধবার দুপুরে কোম্পানীগঞ্জ থানার এসআই মোস্তাক আহমদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: