সর্বশেষ আপডেট : ৭ ঘন্টা আগে
মঙ্গলবার, ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ ফাল্গুন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ইভটিজিং রোধ ও নিরাপত্তা নিশ্চিত হলে বাল্য বিবাহ প্রতিরোধ সম্ভব হবে —-রাশেদা কে চৌধুরী

স্টাফ রিপোর্টার :

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা ও গণসাক্ষরতা অভিযানের নির্বাহী পরিচালক রাশেদা কে চৌধুরী বলেছেন, বাল্য বিবাহ রোধ ও মেয়েশিশু ও কিশোরীদের সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সামাজিক ও রাষ্ট্রীয়ভাবে পদক্ষেপ নিতে হবে। ইভটিজিং মুক্ত পরিবেশে মেয়েশিশু ও কিশোরীদের লেখাপড়ার সুযোগ সৃষ্টি করে দিতে হবে। তাদের সামাজিক নিরাপত্তাবেস্টনীর আওতায় সুন্দর ও নিরাপদ পরিবেশে লেখাপড়ার সুযোগ সৃষ্টির জন্য সম্মিলিত উদ্যোগ নিতে হবে।

রোববার সকালে নগরীর উপশহরস্থ আইডিয়া কার্যালয়ে গণসাক্ষরতা অভিযান (ক্যাম্প) ও ইনস্টিটিউট অব ডেভেলপমেন্ট এফেয়াস আইডিয়া সিলেট এর যৌথ উদ্যোগে সিলেট অঞ্চলে বাল্য বিবাহ প্রতিরোধ মেয়েশিশু ও কিশোরীদের শিক্ষা নিশ্চিতকরণ শীর্ষক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

তিনি বলেন, প্রত্যেক মেয়েশিশু ও কিশোরীরা নিরাপদ পরিবেশে আনন্দিত মনে শিক্ষা লাভ করবে। বাংলাদেশে এ রকম শিক্ষা পদ্ধতির উন্নয়নের জন্য আমরা কাজ করছি। তাদের মানসিক বিকাশে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পরিবেশ হতে হবে সুন্দর ও যাতায়াত হতে হবে নিরাপদ।

আইডিয়া’র নির্বাহী পরিচালক নজমুল হক সঞ্চালনায় মতবিনিময় সভায় সভায় রাশেদা কে চৌধুরী আরো বলেন, বাংলাদেশের বাল্য বিবাহ ও মাধ্যমিক শিক্ষা থেকে মেয়ে শিশুদের ঝরে পড়ার হার সিলেটে বেশী। এই হার হ্রাস করার জন্য বিদ্যালয়ের মা সমাবেশের সংখ্যা বৃদ্ধি করা প্রয়োজন এবং প্রতিটি মা সমাবেশে স্থানীয় ওসির উপস্থিতি নিশ্চিত করা প্রয়োজন। যাতে করে অভিভাবকদের মেয়েদের নিরাপত্তা নিয়ে সংশয় দূর হয়। মেয়েদের বিদ্যালয়ের সামনে থেকে ইভটিজিং প্রতিরোধে সামাজিক সচেতনতা বৃদ্ধি করা প্রয়োজন। ইভটিজিং রোধ ও নিরাপত্তা নিশ্চিত হলে বাল্য বিবাহ প্রতিরোধ হবে এবং মাধ্যমিক শিক্ষায় ঝড়ে পড়ার হারও কমে আসবে বলে তিনি অভিমত প্রকাশ করেন। অনুষ্ঠানের সঞ্চালক নজমুল হক বলেন, মানুষের সচেতন করার অন্যতম মাধ্যম হচ্ছে গণমাধ্যম। এই গণমাধ্যম সাংবাদিকদের মাধ্যমেই কার্যকর হয়ে উঠে। তাই সাংবাদিকরা বাল্য বিবাহ প্রতিরোধ ও ঝড়ে পড়া রোধে আরো বেশী প্রচার করবেন বলে তিনি আশা ব্যক্ত করেন।

সভায় সিলেট প্রেসক্লাব সভাপতি ইকবাল সিদ্দিকী বলেন, প্রান্তিক এলাকার নারীদের জন্য বেশী নিরাপত্তা কর্মসূচীর প্রয়োজন। তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে গ্রামের মেম্বার, চেয়ারম্যান ও এলাকাবাসীদের সমন্বয়ে কমিটি গঠন করা প্রয়োজন। যা এলাকার নারী নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণে সক্রিয় ভূমিকা পালন করবে বলে তিনি আশা ব্যক্ত করেন।
মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন, সিলেট প্রেসক্লাবের সহ সভাপতি ও দৈনিক জালালাবাদের নির্বাহী সম্পাদক আবদুল কাদের তাপাদার, দৈনিক প্রথম আলোর ব্যুরো প্রধান উজ্জ্বল মেহেদী, সিলেট প্রেসক্লাবের নির্বাহী কমিটির সদস্য ও দৈনিক সিলেটের ডাক এর সিনিয়র রিপোর্টার এম আহমদ আলী, দি ডেইলী স্টারের সিলেটের ফটো সাংবাদিক শেখ আশরাফুল আলম নাসের প্রমুখ।

মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন, আইডিয়া’র প্রোগ্রাম এসিসটেন্ট নাসরিন আক্তর নীলা, কংকন কান্তি দাশ, আখিঁ চৌধুরী, সালমা বেগম, তামান্না আহমদ প্রমুখ।
সভায় বক্তারা বই উৎসবের পাশাপাশি প্রত্যেক উপজেলা প্রশাসনের সমন্বয়ে অভিভাবদের নিয়ে শপথ গ্রহন, মা-বাবাদের কাউন্সিলিং জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম জোরদারসহ আইনী সহায়তার উপর গুরুত্বারোপ করেন।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: