সর্বশেষ আপডেট : ৯ ঘন্টা আগে
মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ আশ্বিন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

পারিবারিক বিরোধের জের : কানাইঘাট ভাই ও হবিগঞ্জে চাচা খুন

স্টাফ রিপোর্টার :

জমি সংক্রান্ত বিরোধে কানাইঘাটে খুন হয়েছেন ভাইয়ের হাতে ভাই এবং হবিগঞ্জে ভাতিজার হাতে চাচা।
কানাইঘাট প্রতিনিধি জানান, কানাইঘাট উপজেলায় জমি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে আপন ভাইয়ের হাতে মারপিটের শিকার হয়ে মারা গেছেন অলিউর রহমান (৬৫)। এ হত্যাকান্ডটি ঘটেছে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১১টায়। অলিউর রহমান উপজেলার সদর ইউনিয়নের উমাগড় গ্রামে মৃত তোতা মিয়ার পুত্র। হত্যাকান্ডের পর কানাইঘাট থানা পুলিশ এলাকায় সাঁড়াশী অভিযান চালিয়ে নিহতের ছোটভাই হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত খলিলুর রহমান (৬০), স্ত্রী রহিমা বেগম (৫০) ও তাঁর ছেলে মামুন আহমদকে (২৭) আটক করেছে। নিহতের লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে। হত্যাকান্ডের খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন কানাইঘাট সার্কেলের এএসপি আব্দুল করিম, শিক্ষানবিশ এএসপি ওয়ালিউল ইসলাম রাজীব, থানার ওসি (তদন্ত) আনোয়ার জাহিদ ।
নিহত অলিউর রহমানের বাড়িতে গিয়ে প্রত্যক্ষদর্শীদের কাছ থেকে জানা যায়, ওলিউর রহমানের কোন ছেলে সন্তান নেই। তিন মেয়ের মধ্যে দুই মেয়ে বিবাহিত ও মাসুদা নামের এক মেয়ে তালাকপ্রাপ্ত হিসেবে পিত্রালয়ে রয়েছে। দরিদ্র অলিউর রহমান কলা বিক্রি করে সংসার চালাতেন। সম্পত্তি বলতে বাড়িতে ছয় শতক জমি রয়েছে। জমিটুকু জোরপূর্বক আত্মসাৎ করার জন্য দীর্ঘ দিন ধরে তাঁর আপন ছোটভাই খলিলুর রহমান চেষ্টা চালিয়ে আসছিলেন। অলিউর রহমানের ছেলে সন্তান না থাকায় তাঁর ছয় শতক জমি খলিলুর রহমান তাঁর নামে রেজিষ্ট্রারী করার জন্য গতকাল সকাল থেকে অলিউর রহমানকে সাব-রেজিষ্ট্রার অফিসে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। এতে অলিউর রাজি না হওয়ায় সকাল ১০টা থেকে খলিলুর রহমান, তাঁর পুত্র মামুন ও মারুফ মিলে তাকে শারিরীকভাবে মারপিট ও টানা হেঁচড়া করলে তিনি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন। একপর্যায় ওলিউর রহমানকে তার বসত ঘরে রেখে তারা দরজা তালা মেরে দেন এবং তার তালাক প্রাপ্ত মেয়ে মাসুদাকে নানা হুমকি প্রদান করেন। মাসুদা কৌশলে আশপাশের লোকজনকে বিষয়টি অবহিত করেন। পরে আশপাশের লোকজন এসে ঘরের তালা খুলে অলিউর রহমানকে মৃত অবস্থায় দেখতে পান। এ ঘটনায় নিহতের মেয়ে মাসুদা বেগম বাদী হয়ে থানায় হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন।
কানাইঘাট সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার আব্দুল করিম জানিয়েছেন, জমি সংক্রান্ত ঘটনায় আপন ভাই ও ভাতিজাদের মারধরে ওলিউর রহমান মারা গেছেন বলে আমরা ধারণা করছি। কারণ তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে এবং নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।
এদিকে, শায়েস্তাগঞ্জ সংবাদদাতা জানান, হবিগঞ্জ সদর উপজেলার রাজিউড়া ইউনিয়নের সুখচর গ্রামে বাড়ির জমি সংক্রান্ত বিরোধ নিয়ে ভাতিজার হাতে চাচা খুন হয়েছেন। এসময় আরো পাঁচ জন আহত হয়েছেন।
মঙ্গলবার বিকেলে এ ঘটনাটি ঘটে। নিহত আব্দুল কদ্দুছ (৫৫) ওই গ্রামের মৃত টেকাই মিয়ার ছেলে। আহতদেরকে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
রাজিউড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শেখ এনামুল হক কামাল জানান, সুখচর গ্রামের আব্দুল কদ্দুছের সাথে একই গ্রামের তরুণ দাস ও বরুণ দাসের বাড়ির জমি সংক্রান্ত বিরোধ ছিল। এরই জের ধরে মঙ্গলবার বিকালে শাহজাহানের নেতৃত্বে তরুন দাস ও বরুণ দাস ওই বাড়ির পুকুরে মাছ ধরতে যান। এসময় আব্দুল কদ্দুছ বাধা দিলে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে উভয় পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষ চলাকালে শাহজাহান মিয়ার আপন চাচা আব্দুল কদ্দুছ ঘটনাস্থলেই খুন হন।
হবিগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাসুক আলী নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, লাশ হাসপাতালে রয়েছে। সুরতহাল তৈরী করে মর্গে পাঠানো হবে। এলাকায় নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: