সর্বশেষ আপডেট : ৩৯ মিনিট ৪৫ সেকেন্ড আগে
বৃহস্পতিবার, ৬ অগাস্ট ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ২২ শ্রাবণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

জনপ্রতিনিধি না হয়েও দিরাই-শাল্লায় কাজ করে যাচ্ছেন ড. শামসুল হক চৌধুরী

জনপ্রতিনিধি না হয়েও ভাটি অঞ্চল হিসেবে পরিচিত সুনামগঞ্জের দিরাই, শাল্লায় উপজেলার নানান উন্নয়নে অবদান রেখে চলেছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপকমিটির সদস্য, সুনামগঞ্জ-২ আসনে গত দুই সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী ড. মো. সামছুল হক চৌধুরী। একই সাথে তিনি যুক্তরাজ্য শ্রমিক লীগের কার্যকরী সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

মঙ্গলবার দুপুরে নগরীর একটি অভিজাত রেস্টুরেন্টে দিরাই-শাল্লা (সুনামগঞ্জ-২) আসনে এলাকার উন্নয়নের মহাপরিকল্পনা গ্রহণ সম্পর্কে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তার বিভিন্ন কাজের কথা তুলে ধরা হয়।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে ড. মো. সামছুল হক চৌধুরী বলেন, তিনি পারিবারিকভাবেই জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শের সৈনিক। তাই ছাত্রজীবনে ছাত্রলীগের রাজনীতির মাধ্যমে এই আদর্শের পথে যাত্রা শুরু করেন। পরে স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলন এবং ১/১১ থেকে শুরু করে সকল গণতান্ত্রিক আন্দোলনে ছাত্রলীগের একজন কর্মী হিসেবে কাজ করেছেন। এখনো তিনি দেশে ও প্রবাসে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠায় কাজ করে যাচ্ছেন। ব্যক্তিগতভাবে সাধারণ মানুষের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে কর্মকান্ডে দীর্ঘ প্রায় ৩৪ বৎসর যাবৎ আওয়ামী রাজনীতি ও বিভিন্ন আর্থ-সামাজিক সংগঠনের সাথে অতপ্রোতভাবে জড়িত থেকে এলাকার উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছেন।
তিনি বর্তমান সরকারের স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা সেবা জনগণের কাছে পৌঁছে দেওয়ার অংশ হিসেবে সুনামগঞ্জ জেলার দিরাই উপজেলার জগদল ইউনিয়নে ২০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালটিতে স্বাস্থ্য সেবা চালু করতে পদক্ষেপ নেওয়ায় পরিকল্পনামন্ত্রী মহোদয়কে অশেষ ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান।

তিনি আরো বলেন, কর্মমুখী শিক্ষার প্রসারে সুনামগঞ্জ জেলার দিরাই এবং শাল্লা উপজেলার শিক্ষায় অনগ্রসর ভাটি অঞ্চল হিসেবে পরিচিত। কর্মমুখী শিক্ষা প্রসারে জন্য কোন কারিগরী প্রতিষ্ঠান নেই। ফলে দিরাই-শাল্লা উপজেলার ছেলে-মেয়েরা কারিগরী শিক্ষার সুযোগ থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। সম্প্রতী দিরাই-শাল্লা উপজেলায় কারিগরি প্রতিষ্ঠান নির্মাণের বিহিত সুপারিশ করার জন্যও তিনি পরিকল্পনামন্ত্রী মহোদয়ের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন। এছাড়া, দিরাইয়ের স্টেডিয়াম নির্মাণের সুপারিশ ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ে করার জন্য তিনি দিরাইবাসীর পক্ষ থেকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান।

তিনি বলেন, আমি মনে প্রাণে বিশ^াস করি মানব সেবা করতে হলে জনপ্রতিনিধি লাগে না। মানবসেবাকে আমি ইবাদত মনে করি। ২০১৪ সালে তৎকালীন মন্ত্রী বাবু সুরনজিত সেন গুপ্ত’র মনোনয়নের সময় আমি ছিলাম একমাত্র লড়াকু সৈনিক। সেই সময় থেকে আমি জাতীয় সংসদের মনোনয়ন প্রত্যাশা করেছি। কিন্ত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কথায় আমি আমার প্রার্থীতা প্রত্যাহার করে নেই। এবার সময়ের পরিক্রমায় জয়া সেন গুপ্ত সংসদ সদস্য হয়েছেন পরপর দুবার কিন্তু ভাটি এলাকার ভাগ্য যেনো পুরনোই রয়েগেছে।

তিনি আরো বলেন, সম্প্রতি তিনি পরিকল্পপনা মন্ত্রণালয় থেকে ৪টি ডিও লেটার কাজের জন্য এনেছেন। এই ৪টি ডিও লেটারের মধ্যে রয়েছে দিরাই উপজেলায় কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নির্মান প্রকল্প গ্রহণ, শাল্লায় কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নির্মাণ প্রকল্প গ্রহণ, দিরাই শেখ রাসেল স্টেডিয়াম ও ২০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতাল চালু সংক্রান্ত প্রকল্প গ্রহণ। – বিজ্ঞপ্তি

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: