সর্বশেষ আপডেট : ৯ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ২৯ মার্চ ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১৫ চৈত্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

মৃত্যুর আগে মৃত্যু!

নিউজ ডেস্ক:: সামাজিক মাধ্যমে বেশ প্রভাবশালী টিল সোয়ানের বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে তিনি তার আধ্যাত্মিক শিক্ষার মাধ্যমে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দিয়ে থাকেন। এ পর্যন্ত অন্তত তার দু’জন অনুসরণকারী আত্মহত্যা করেছেন।

যারা আপনাকে আত্মহত্যার সমর্থক বলে অভিযোগ করে তাদেরকে আপনি কী বলতে পারেন?

এমন প্রশ্নের জবাবে স্পিরিচুয়াল টিচার ‘টিল সোয়ান’ বলেন, ব্যাপারটা বেশ হাস্যকর। এটা সত্যি মনে হয় যখন আপনি তাকে এটি বলছেন যে কি-না বছরের পর বছর আত্মহত্যা প্রবণ ছিল। আত্মহত্যার প্রবণতা থাকলে কী করতে হবে তা নিয়ে ভিডিও তৈরি করে কীভাবে ঐ পরিস্থিতি থেকে আপনি ফিরে আসতে পারেন এবং আপনার আশেপাশের কেউ আত্মহত্যা প্রবণ হলে কী করতে হবে আর এরকম কোনো ব্যক্তিকে আত্মহত্যার পক্ষে প্রচারক বলা সত্যিই ‘হাস্যকর’।

টিল সোয়ান আধ্যাত্মিক বিষয়ক শিক্ষক, তিনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বেশ প্রভাবশালী। তার লাখ লাখ ভক্তের উদ্দেশ্যে মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক উপদেশ পোস্ট করেন তিনি।

তবে, বিশেষজ্ঞদের মতে, আত্মহত্যা নিয়ে তার কিছু ভিডিও ভয়াবহ হতে পারে।

টিলের মতে, আত্মহত্যা আমাদের নিরাপত্তা বলয় বা নতুন করে শুরু করার সুযোগ হতে পারে। যা সবসময় আমাদের হাতের নাগালে থাকে।

তিনি বলেন, আত্মহত্যাকে একটি পথ হিসেবে দেখলে মানুষ ঐ চিন্তা দূরে সরিয়ে রাখে এবং ভালো অনুভব করার পেছনে মনোযোগ দেয়।

টিলের উপদেশের কিছু কিছু গতানুগতিক:

তার একটি ভিডিওতে দেখা যায় তিনি বলছেন, এই পাঁচ মিনিটে আমি কী করতে পারি যা আমাকে সামান্য ভালো অনুভব করতে সাহায্য করবে?

এই প্রক্রিয়াটিতে অন্য মানুষকে অন্তর্ভুক্ত করা খুবই কঠিন একটি বিষয়। তিনি দর্শকদের নিজেদের মৃত্যু সম্পর্কে চিন্তা করতে বলেন।

তিনি তার ভিডিওতে বলেন, নিজেকে মেঝেতে ছেড়ে দিয়ে শারীরিকভাবে নিজেকে সুযোগ দিন জীবন থেকে বিদায় নেয়ার।

তার মতে, ব্যায়াম মানুষকে বুঝতে সাহায্য করবে যে মৃত্যু থেকে জীবনে ফেরার কোনো পথ নেই!

তাহলে কেনো মৃত্যুর পথ নেয়া?

অ্যামেরিকান অ্যাসোসিয়েশন অব সুইসাইডোলজির ডা. জোনাথন সিঙ্গার বলেন, আমি যখন শুনি যে টিল বলছে আত্মহত্যা নতুন করে শুরু করার একটি সুযোগ হতে পারে তখন আমি চিন্তিত হই। কারণ ঐ বক্তব্যের মধ্যে মনে হতে পারে আপনি আত্মহত্যা করতে পারেন এবং এর ফলে সব কিছু আবার নতুন করে শুরু হবে। কিন্তু এটা আসলে সত্য না। আপনি আত্মহত্যা করলে আপনি মারা যাবেন!

টিলের ফেসবুক গ্রুপের সদস্যরা অনকে সময় আত্মহত্যার বিষয়ে পোস্ট করেন। ঐ গ্রুপের দুই সদস্য আত্মহত্যা করেছেন, যোগ করেন জোনাথন।

১৮ বছরের এক নারী গ্রুপে জানান, তার প্রেমের সম্পর্ক ছিন্ন হয়েছে এবং তাই তিনি আত্মহত্যার চেষ্টা চালিয়েছিলেন। তার পোস্ট একটি ছবিও ছিল। ছবিটিতে দেখা যায় এক নারী বন্দুকের মতো নিজের মাথায় আঙ্গুল ধরে রেখেছেন। এর জবাবে, টিলের মৃত্যুকে চিন্তা করা নিয়ে ভিডিও দেখতে বলা হয় তাকে। আর ওই পোস্ট করার দুই সপ্তাহ পর আত্মহত্যা করেন ১৮ বছর বয়সী ওই নারী।

এ বিষয়ে টিল সোয়ানের এক ভক্তের মা বলেন, আমার বিশ্বাস জীবনে স্বাভাবিক ধারার বিপরীতে একাধিক ঘটনা ঘটে ছিলো আমার মেয়ের। কিন্তু আপনি আমাকে কীভাবে বোঝাবেন যে, টিলের শিক্ষা এ ক্ষেত্রে কোনো ভূমিকা রাখেনি।

এদিকে অনেকে টিলের সমালোচনা করে বলছেন, টিল আত্মহত্যায় সহায়তা করেন। কিন্তু এর সাথে একমত না টিল। তার দাবি তিনি মানুষকে নতুন জীবনের সন্ধান দেওয়ার জন্য এ ধরনের ভিডিও তৈরি করে থাকেন। তিনি কখনো মানুষের ক্ষতি করতে চাননা।

এদিকে বিবিসি বলছে, তাদের করা এক প্রতিবেদনের পর টিল তার গ্রুপটাকে মুছে ফেলেছেন। ফেসবুক ও ইউটিউব বিবিসির প্রতিবেদনের পর টিলের সব ভিডিও মুছে ফেলেছে।




নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: