সর্বশেষ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে
শুক্রবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

স্নাতক ছাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি নয়: প্রজ্ঞাপন জারি

নিউজ ডেস্ক:: সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সভাপতি নির্বাচিত হওয়ার নূন্যতম শিক্ষাগত যোগ্যতা স্নাতক বাধ্যতামূলক করেছে সরকার। সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির পুরনো নীতিমালা বাতিল করে সংশোধীত নীতিমালায় এই নতুন বিধানটি সংযোজন করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।

সোমবার এই প্রজ্ঞাপনটি প্রকাশ করে। প্রজ্ঞাপনে ৬ নভেম্বর সই করা হয়েছে।

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটির (এসএমসি) সভাপতি নির্বাচিত হওয়ার ক্ষেত্রে প্রাথমিক যোগ্যতা হিসেবে সভাপতি প্রার্থীর সন্তানকে অবশ্যই ওই বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী হতে হবে। এছাড়া বিদ্যোৎসাহী সদস্যদেরও সন্তান বিদ্যালয়ের ছাত্র/ছাত্রী হতে হবে এবং তাদেরও শিক্ষাগত যোগ্যতা নূন্যতম এসএসসি হতে হবে। কমিটির সভাপতিকে অবশ্যই স্নাতক ডিগ্রিধারী হতে হবে। ১১ সদস্যের কমিটিতে সদস্য-সচিব থাকবেন প্রধান শিক্ষক।

এদিকে গত মে মাসে বেসরকারি হাইস্কুল-কলেজ ও মাদরাসায় ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি ও সদস্য নির্বাচনে ন্যূনতম শিক্ষাগত যোগ্যতা নিয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে বিতর্ক হয়েছে। কমিটির একটি অংশ চাচ্ছেন ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও সদস্যদের ন্যূনতম শিক্ষাগত যোগ্যতা থাকা উচিত।

অন্যদিকে, আরেকটি অংশ চাচ্ছেন, যেখানে একজন সংসদ সদস্য নির্বাচিত হতে শিক্ষা যোগ্যতা লাগে না সেখানে পর্ষদের সভাপতি ও সদস্যদের শিক্ষাগত যোগ্যতা নির্ধারণের প্রয়োজন নেই। গত ২১ মে সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত কমিটির বৈঠকে এ বিষয়ে আলোচনা হয়।

বৈঠক শেষে কমিটির সদস্য এম এ মতিন বলেন, কমিটিতে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল সাহেব বিষয়টি উপস্থাপন করেছিলেন। আমি এর সমর্থনে ছিলাম। কোনো চূড়ান্ত সুপারিশ আসেনি। নীতিমালা একটা হওয়া দরকার। সেটার জন্য সবার মতামতও নেওয়া হবে। অংশীজনদের সঙ্গেও আলোচনা করতে হবে। শুধু আমরা আলোচনা করলে হবে না।

সংসদ সচিবালয়ের এক কর্মকর্তা জানান, শিক্ষা উপমন্ত্রী নওফেল বিষয়টি উপস্থাপনের পর শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি এর বিপক্ষে অবস্থান নেন। তাদের যুক্তি একজন সংসদ সদস্য নির্বাচনের জন্য যেখানে শিক্ষাগত যোগ্যতা নিয়ে কথা ওঠে না সেখানে এই পদে কেন এই প্রশ্ন আসবে? পরে কমিটির অন্য সদস্যরা এ বিষয়ে নিজেদের মতামত দেন।

২০১৬ সালে আদালতের রায়ে স্কুল-কলেজের পরিচালনা পর্ষদে অভিপ্রায়ের ভিত্তিতে স্থানীয় এমপির সভাপতি পদে মনোনীত হওয়ার বিধান বাতিল হয়।

সংসদীয় কমিটির বৈঠক সংক্রান্ত সংসদ সচিবালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ম্যানেজিং কমিটি/গভর্নিং বডির সভাপতি নির্বাচনের ক্ষেত্রে সৎ, যোগ্য ও বিদ্যেৎসাহী ব্যক্তিদের মনোনীত করতে কমিটি সুপারিশ করে।

সংসদীয় কমিটির সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা, শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি, মহিবুল হাসান চৌধুরী, আব্দুল কুদ্দুস, এ কে এম শাহাজাহান কামাল, এম এ মতিন এবং গোলাম কিবরিয়া টিপু বৈঠকে অংশ নেন।

উল্লেখ্য, স্নাতক (পাস) ও অনার্স-মাস্টার্স কলেজের পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান হবার ন্যূনতম শিক্ষাগত যোগ্যতা ডিগ্রি পাস নির্ধারণ করা আছে। ২০১৫ খ্রিষ্টাব্দে এই শিক্ষাগত যোগ্যতা নির্ধারণ করা হয়। তবে বেসরকারি স্কুল, উচ্চ মাধ্যমিক কলেজ বা মাদরাসার ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি বা অন্য সদস্য হতে কোনো ন্যূনতম শিক্ষাগত যোগ্যতা নির্ধারিত নেই।






নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: