fbpx

সর্বশেষ আপডেট : ৩ ঘন্টা আগে
মঙ্গলবার, ২৬ মে ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

ক্বীন ব্রীজের নিচে রবীন্দ্রনাথ, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তোলপাড়

ডেইলি সিলেট ডেস্ক:: সিলেটে রবীন্দ্র স্মরণোৎসবে বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে সম্মান জানাতে নগরীর ক্বীন ব্রীজের নিচে অস্থায়ী প্রতিকৃতি নির্মাণ করা হয়। যেখানে বিশ্বকবিকে সবাই শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন। কিন্তু ব্রীজের নিচে বরীন্দ্রনাথের প্রতিকৃতি নির্মাণ করায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নানা সমালোচনার জন্ম নিয়েছে। সিলেটের সংষ্কৃতিপ্রেমী ও রবীন্দ্রনাথ প্রেমীরা ব্রীজের নিচে অর্থাৎ হাজার হাজার মানুষের পায়ের নিচে রবীন্দ্রনাথের প্রতিকৃতিকে মেনে নিতে পারছেন না।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সিলেট সমাজকল্যাণ পরিষদের সাধারণ সম্পাদক এম. শামীম আহমদ লিখেছেন, ‘ব্রিজের নিচে রবীন্দ্রনাথ, সিলেটে কি আর কোন জায়গা নেই, সংস্কৃতিকর্মীরা কোথায়? আচ্ছা আমি একটা জিনিস বুঝিনা, রবীন্দ্র স্মরণোৎসব নিয়ে সিলেটে এতো চুলকানি কেন?’

ওই স্ট্যাটাসের কমেন্টে সিলেটের একমাত্র ভাস্কর জালাল উদ্দিন সরকার লিখেছেন- ‘রবীন্দ্রনাথ এর মুরালে পতিতা, ভবঘুরে আর গাজাখোরগন অহর্নিশি দাড়িয়া প্ররাবকরনের মধ্যে দিয়ে সম্মান প্রদর্শন করতে থাকবে অনন্তকাল। এরই প্রক্রিয়া চলছে।’

এনাম আহমদ লিখেছেন- ‘বুঝ হবার পর থেকে দেকে আসছি ঐখানে পায়খানার খোলা টেংকি’।

শেখ মোর্শেদ স্ট্যাটাস দিয়েছেন- ‘উদযাপন পরিষদের গুণী মানুষজন ও সিলেটের গুণী সংষ্কৃতিকর্মীরা কোথায়? ব্রীজের নিচে অর্থাৎ হাজার হাজার মানুষের পায়ের নিচে রবীন্দ্রনাথ! এটা কোন ধরণের মাতলামি?’ ওই স্ট্যাটাসের কমেন্টে সিলেট জজ কোর্টের শিক্ষানবীস আইনজীবী সুদিপ রায় লিখেছেন- ‘পবিত্র সিলেটের মাটিতে বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের জন্য এই স্থান টুকু বরাদ্দ ছিল। তাই বিকৃত মস্তিষ্কের লোকজন এমন লোকদেখানো আয়োজন করেছেন।যাহা মন থেকে নয়।( প্রমানীত)’

সাংবাদিক রুহুল আমিন বাবুল লিখেছেন- ‘যে ক্বীন ব্রীজের নিচে ভাসমান পতিতা ও মাদকসেবীদের অবাধ বিচরণ সেই ব্রীজের নিচেই রবিন্দ্রনাথ ? সত্যি বাহ্ বাহ্ দিতে হয় উদযাপন পরিষদ নেতৃবৃন্দকে।’

বাংলা টিভির সিলেট প্রতিনিধি কাইয়ূম উল্লাস স্ট্যাটাস দিয়েছেন- ‘‘এখানে গাঁজা সেবন করিবার জন্য কি আমাকে স্থাপন করা হইয়াছে। তা-ও ক্বিন ব্রিজের চিপায়, আর কোনো উত্তম জায়গা হইলো না আমার ?’’।

এ নিয়ে সিলেটে বিতর্কের অবস্থান নিয়েছেন ক্বীন ব্রীজের নিচে নির্মাণ করা রবীন্দ্রনাথের প্রতিকৃতি।

সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) সিলেটের সভাপতি ফারুক মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন- সিলেটে তো আরো অনেক সুন্দর জায়গা রয়েছে। কিন্তু ব্রীজের নিচে ও জালালাবাদ পার্কের পাশে রবীন্দ্রনাথের প্রতিকৃতি মানায় না। তবে- কয়েকদিন পুলিশের নজরদারি রাখলে জায়গাটা পরিস্কার হয়ে যাবে। অপরাধীরা এখানে আসতে পারবে না।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: