সর্বশেষ আপডেট : ৯ ঘন্টা আগে
মঙ্গলবার, ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ ফাল্গুন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

আ. লীগের হুশিয়ারী: কোন পথে এমপি মোকাব্বির

নিউজ ডেস্ক:: জামায়াত-শিবিরের সাথে সখ্যতা! শুধু এমনটিই নয়, নাশকতা মামলার আসামীকেও থানা থেকে ছাড়িয়ে নিতে চাপ প্রয়োগ করেন সিলেট -২ আসনের সংসদ সদস্য এমপি মোকাব্বির খান। সংসদ নির্বাচনে নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে আরো অনেককেই প্রকাশ্যে হুমকি দিয়েছেন তিনি-এমন একাধিক অভিযোগ তোলে এবার এমপি মোকাব্বির খানের বিরুদ্ধে একাট্টা হয়েছে ওসমানী নগর আওয়ামী লীগ। প্রতিবাদে গোটা ওসমানী নগর এখন উত্থাল। সাথে যোগ দিয়েছে আওয়ামী লীগের সহযোগী একাধিক সংগঠন। প্রতিবাদ সভা থেকে মোকাব্বির খানের দাঁত ভেঙ্গে দেওয়ারও হুশিয়ারী উচ্চারণ করা হয়।

শুক্রবার বিকালে উপজেলার দক্ষিন গোয়ালাবাজারে আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠন কর্তৃক আয়োজিত প্রতিবাদ সভায় এমন হুশিয়ারী প্রদান করেন বক্তারা। উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আতাউর রহমানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আফজালুর রহমান চৌধুরী নাজলুর সঞ্চালনায় প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তারা বলেন, মোক্কাবির খান সিলেট-২ আসনে নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে ওসমানীনগর ও বিশ্বনাথের জামায়াত-বিএনপি ও ছাত্র শিবিরসহ কতিপয় সন্ত্রাসীদের নিয়ে দুই উপজেলায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েমের চেষ্টায় লিপ্ত রয়েছেন।

অভিযোগ রয়েছে -উপজেলার জামায়াত বিএনপির এজেন্ডা বাস্থবায়নসহ তাদের পূর্নবাসন করতে প্রশাসন দখল করতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন মোকাব্বির খান। ইতিমধ্যে এমপি মোকাব্বির খান তার অন্যায় তদবির না শুনায় তাজপুরের সাবরেজিষ্টার অফিসের সাবরেজিষ্ট্রার মো.ইউনুস সোহেলের দাঁত উপড়ে ফেলার হুমকি, ওসমানপুর ইউপির কাজিকে জুতাপেটা করার হুমকি, ওসমানীনগরের সদস্য সাবেক ইউএনও মো.আনিছুর রহমানের অশুভন আচরণ ও বদলি করার হুমকি সর্বশেষ গত ২৩ সেপ্টেম্বর ওসমানীনগর থানার পুলিশ নাশকতার অভিযোগে উপজেলা বিএনপি ও ছাত্র শিবিরের চার নেতাকে গ্রেফতার করার পর ঐ রাত দেড়টায় দিকে এমপি মোকাব্বির খান গ্রেফতারকৃতদের ছাড়িয়ে নেয়ার চেষ্টা চালান।

ওসমানীনগর থানার ওসি এসএম আল মামুন বিএনপি ও ছাত্র শিবিরের নেতাদের ছেড়ে না দেয়ায় মোকাব্বির খান ওসিকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে বদলি করার হুমকি দেন। এঘটনায় ওসি এমপি মোকাব্বির খানের বিরুদ্ধে জিডি করে উধ্বর্তন কর্তৃপক্ষ অবগত করেন। প্রতিবাদ সভায় বক্তরা আরো বলেন, এক রুহিঙ্গা ও বিএনপির দুই ইউপি চেয়ারম্যানের প্ররোচনায় তিনি জামায়াত-বিএনপিকে সিলেট-২ আসনে আ’ওয়ামী লীগের প্রতিপক্ষ করে দাঙ্গা হাঙ্গামা করার চেষ্ঠা করছেন। এমনি সরকারি কর্মকর্তা থেকে শুরু করে সরকারি দলের নেতা কর্মীদের অপমান করে এ অঞ্চলকে জামায়াত শিবির ও সন্ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করার চেষ্ঠা অব্যাহত রাখছেন।

প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন, যুক্তরাজ্য শ্রমিক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহজাহান আলী, উপজেলা যুবলীগের সিনিয়র সহসভাপতি জাবেদ আহমদ আম্বিয়া, উপজেলা যুবলীগ নেতা মঈন উদ্দিন মোহন, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক সেলিম রেজা,আওয়ামী লীগ নেতা মামুনুর রশিদ খলকু, যুবলীগ নেতা সৈয়দ মামুন।

প্রতিবাদ সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, আ’লীগ নেতা দরাজ মিয়া, লুৎফুর রহমান ফারুক,দবির মিয়া ,শাহ ইসমাইল আলী, লেবু মিয়া, জেলা যুবলীগ নেতা কিবরিয়া মিয়া, উপজেলা যুবলীগ নেতা মুকিদ মিয়া, আব্দুল ওদুদ প্রিন্স, ডা. সুমন সূত্র ধর, ছাত্র লীগ নেতা আরিফুর রহমান চৌধরী, সুলেমান খান, আমজদ হোসেন, রাজন দাশ, মিঠু দত্ত ও এসএম শিপন সহ আ’লীগ যুবলীগ স্বেচ্ছাসেবকলীগ ছাত্রলীগের নেতা কর্মীরা।

এ ব্যাপারে সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সংসদ সদস্য শফিকুর রহমান চৌধুরী বলেন, প্রশাসনকে ভয় দেখানোর কোনো সুযোগ নাই। এমন অভিযোগ কোনো সংসদ সদস্যের বিরুদ্ধে উঠলে অবশ্যই বিষয়টি নিন্দনীয়। তিনি বলেন, স্থানীয় আওয়ামী লীগ এই ঘটনায় নিন্দা জানিয়ে প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: