সর্বশেষ আপডেট : ২২ ঘন্টা আগে
সোমবার, ৩ অগাস্ট ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ শ্রাবণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

‘‌‌গরুরা হিন্দু, তাদের পোড়াতে হবে’‌, দাবি বিজেপি নেতার!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: গরুর ধর্ম কী? ভাবছেন তো, এ আবার কেমন প্রশ্ন। আপনি অবাক হলেও এই প্রশ্নেরই উত্তর পাওয়া গিয়েছে সম্প্রতি। উত্তর দিয়েছেন ভারতের উত্তরপ্রদেশের বারাবাঁকির বিজেপি নেতা রঞ্জিত শ্রীবাস্তব। সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, গরু হিন্দু ধর্মাবলম্বী। মৃত্যুর পর গরুর দেহ মাটিতে না পুঁতে শ্মশানে দাহ করা উচিত বলেও দাবি তাঁর। খবর: সংবাদ প্রতিদিন।

আর বিজেপি নেতার এই দাবিতেই উঠেছে হাসির রোল। ‘গোভক্ত’ হিসেবে এভাবেই ওই বিজেপি নেতা নিজের পরিচয় দিলেন বলেই কটাক্ষ বিরোধীদের।

হিন্দুরা সাধারণত গরুকে দেবতা হিসাবে মানেন। উত্তরপ্রদেশের ক্ষেত্রে সে ছবি আরও প্রকট। গোরক্ষার তাগিদে বহু পন্থা অবলম্বন করেন ওই রাজ্যের বাসিন্দারা।

রাজনৈতিক কারবারিদের দাবি, বিজেপি শাসিত উত্তরপ্রদেশে গোরক্ষার তাগিদ নাকি সবচেয়ে বেশি পদ্মশিবিরের। এ নিয়ে যদিও আলোচনা কম হয়নি। বিজেপি তবে বিরোধীদের তোলা গোরক্ষার তত্ত্ব মানতে নারাজ। কিন্তু দলের বিরুদ্ধে গিয়ে গরু নিয়ে মুখ খুলে দলকে অস্বস্তিতে ফেললেন বারাবাঁকির বিজেপি নেতা রঞ্জিত শ্রীবাস্তব।

তিনি বলেন, ‘‘সাধারণত গরু মারা যাওয়ার পর মাটিতে তার দেহ পুঁতে দেওয়া হয়। মুসলমানদের কবর দেওয়ার সঙ্গে এই রীতির মিল রয়েছে। কিন্তু গরু হিন্দু ধর্মাবলম্বী৷ তাই তার শেষকৃত্য সম্পন্ন করার জন্য দেহ পুড়িয়ে দেওয়াই বাঞ্চনীয়।”

“আমি আমাদের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথকে বলব, অবিলম্বে সরকারিভাবে এমন নির্দেশিকা জারি করুন। শুধু তাই নয়, আমি বলব গরুদের দাহ করার জন্য পৃথক শ্মশান তৈরি হোক। তাতে অবশ্যই থাকতে হবে বৈদ্যুতিন চুল্লিও।’’

তবে রঞ্জিত শ্রীবাস্তবের ‘গোপ্রীতি’ গেরুয়া শিবিরকে বেশ অস্বস্তিতে ফেলেছে। বিরোধীদের দাবি, দলের তরফে যতই অস্বীকার করা হোক না কেন। বিজেপি নেতাকর্মীরা যে প্রকৃতই গোভক্ত তা আর নতুন করে বলার কিছুই নেই। বিজেপি নেতার বেফাঁস মন্তব্য এবং বিরোধীদের আক্রমণে দলের অভ্যন্তরে চাপানউতোর চলছে। তবে প্রকাশ্যে এ প্রসঙ্গে কেউ কিছুই বলতে নারাজ।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: