সর্বশেষ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে
বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বৃটেনের কার্ডিফ শহীদ মিনার উদ্ভোধনে প্রধানমন্ত্রীর অপেক্ষায় ওয়েলসবাসী


খায়রুল আলম লিংখন: বৃটেনের ওয়েলসের ঐতিহ্যবাহী কার্ডিফ শহরে মাথা উঁচু করে দাঁড়ালো ইন্টারন্যাশনাল মাদার ল্যাংগুয়েজ মনুমেন্ট তথা শহীদ মিনার। ওয়েলসের রাজধানী কার্ডিফ শহরের কমিউনিটির দীঘদীনের স্বপ্ন বাস্তবায়নের লক্ষ্যে ২০০৭ সালে একটি শহীদ মিনার নির্মাণের উদ্দ্যোগ নেওয়া হয়েছিলো।
ওয়েলস বাংলাদেশ কমিউনিটি ইন ইউকে ও বৃটেনের কার্ডিফের ইন্টারন্যাশনাল মাদার ল্যাংগুয়েজ মনুমেন্ট তথা শহীদ মিনার কমিটির নেতৃবৃন্দের দীর্ঘ ১৩ বছরের অক্লান্ত পরিস্রমে ও কমিউনিটির প্রচেষ্টায় বৃটেনের ওয়েলসের ইতিহাসে কার্ডিফ শহরের প্রথম শহীদ মিনারটি ঐতিহ্যবাহী গ্রেইঞ্জমোর পার্কে আজ দৃশ্যমান।
এই প্রজেক্ট বাস্তবায়নে মনুমেন্ট ফাউন্ডার ট্রাষ্ট কমিটির চেয়ারম্যান এম আনোয়ার আলী, ডেপুটি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সেরুল ইসলাম. জেনারেল সেক্রেটারী মোহাম্মদ মকিস মনসুর, ট্রেজারার আনহার মিয়া, ট্রাষ্টি আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী. ট্রাষ্টি শেখ মোহাম্মদ তাহির উল্লাহ, ট্রাষ্টি মোহাম্মদ মুজিব, ট্রাষ্টি আব্দুল লতিফ কয়সর. ট্রাষ্টি আসাদ মিয়া, ট্রাষ্টি শফিক মিয়া. ট্রাষ্টি আব্দুস সালাম বুলবুল. ট্রাষ্টি শামীম আহমদ ট্রাষ্টি সাইফুল আলম ও কাউন্সিলার দিলওয়ার আলী সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ অক্লান্ত পরিস্রম করেছেন বলে জানাগেছে। গত ২১ শে ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের অনুষ্ঠান যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করে ওয়েলসবাসী নব ইতিহাসের সূচনা করেছে। কার্ডিফ কাউন্টি কাউন্সিলের প্রদত্ত জায়গায় বৃটেনের ওয়েলসের কমিউনিটির এই স্বপ্নের শহীদ মিনার বাস্তবায়নের জন্য নির্ধারিত ফি পাঁচ হাজার পাউন্ড দিয়ে ফাউন্ডার ট্রাষ্টি, এক হাজার পাউন্ড দিয়ে লাইফ মেম্বার, পাঁচ শত পাউন্ড দিয়ে জেনারেল মেম্বার ও এক শত পাউন্ড দিয়ে ফ্রেন্ডস অব মনুমেন্ট হয়ে গর্বিত ইতিহাসের অংশীদার হয়েছেন।
এছাড়াও বাংলাদেশ থেকে মানণীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার এই মহতি প্রজেক্ট বাস্তবায়নে প্রায় ৬৬ হাজার পাউন্ড অনুদান দিয়ে সহযোগীতা করে এক বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। বাংলাদেশের বাহিরে সরকারের পক্ষ থেকে এরকম অনুদান এই প্রথম বলে জানাগেছে।
এদিকে বৃটেনের কার্ডিফ ইন্টারন্যাশনাল মাদার ল্যাংগুয়েজ মনুমেন্ট তথা শহীদ মিনার ফাউন্ডার ট্রাষ্ট কমিটির জেনারেল সেক্রেটারী সাংবাদিক মোহাম্মদ মকিস মনসুর এর সাথে আলাপ কালে মানণীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারকে এই মহতি প্রজেক্ট বাস্তবায়নে প্রায় ৬৬ হাজার পাউন্ড অনুদান দিয়ে সহযোগীতা করার জন্য প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা ও জাতির জনকের কন্যা শেখ রেহেনা, বৃটেনের বাংলাদেশের হাইকমিশনার হ্যার এক্সেলেন্সি সাইদা মুনা তাসনিম সহ বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও অভিনন্দন জানিয়ে বলেন বৃটেনের কার্ডিফ শহীদ মিনার উদ্ভোধনের জন্য মানণীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার তারিখ ও সময়ের জন্য অতি আগ্রহে অপেক্ষায় রয়েছেন বৃটেনের ওয়েলসবাসী, প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা এখন চিকিৎসার জন্য লন্ডন অবস্থান করছেন। প্রধানমন্ত্রী যখনই সময় দিবেন তখনই আমরা কার্ডিফ শহীদ মিনার আনুষ্ঠানিক ভাবে উদ্ভোধন করার প্রস্তুতি নেওয়া হবে বলে তিনি দৃঢ়তার সাথে উল্লেখ করেছেন। এখন দেখার বিষয় কবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কার্ডিফে আসছেন। কবে হবে ওয়েলসবাসীর অপেক্ষার অবসান।।




এ বিভাগের অন্যান্য খবর



নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: