fbpx

সর্বশেষ আপডেট : ৮ ঘন্টা আগে
বৃহস্পতিবার, ৪ জুন ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ২১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET
Fapperman.com DoEscorts

দালালের খপ্পরে পড়ে নিঃস্ব হয়ে মালয়েশিয়ায় সড়ক দুর্ঘনায় নিহত হয় মোজাহিদ

দোয়ারাবাজার সংবাদদাতা:: দালালের খপ্পড়ে পড়ে ভুয়া ভিসায় মালয়েশিয়ায় গিয়ে অবশেষে সড়ক দূর্ঘটনায় মারা যায় দোয়ারাবাজারের মোজাহিদ (২৬)। সে উপজেলার পান্ডারগাঁও ইউনিয়নের মঙ্গলপুর গ্রামের জমির আলীর ছেলে। ওই ঘটনায় স্থানীয় সালিশে বিষয়টি মীমাংসার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

ঘটনা সূত্রে জানা যায়, একই ইউনিয়নের রাতিনগর (সর্দারপুর) গ্রামের মৃত সোনাহর আলীর ছেলে আব্দুল হক ও মৃত ফজর আলীর ছেলে আব্দুর রহিম একটি কোম্পানিতে চাকুরী দেওয়ার কথা বলে ভুয়া ভিসায় ৩ লাখ ৪০ হাজার টাকার বিনিময়ে ২০১৮ সালে মালয়েশিয়ায় পাঠায়। তৎসময়ে মোজাহিদ বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়ায় যাওয়ার পর সেখানকার বিমান বন্দরে ভুয়া ভিসার কারণে তাকে আটক করে।

মালয়েশিয়ায় অবস্থানরত দালাল আব্দুর রহিমের এক ছেলে শামীম সেখান থেকে তাকে উদ্ধার করে সেখানকার অন্য দালালের নিকট আবার মোজাহিদকে বিক্রি করে দেয়। কিছু দিন ওই দালালের অধীনে থাকার পর মোজাহিদের পরিবার চাপ দিলে শামীম আবার তাকে তার নিকট নিয়ে আসে।

দেশে গ্রাম্য সালিশের বিচার বৈঠকে দালাল আব্দুল হক ও তার ভাই আব্দুর রহিম প্রতিশ্রুতি দেয় ভিসা লাগানোর পূর্ব পর্যন্ত মোজাহিদের পরিবারকে প্রতি মাসে ২৫ হাজার টাকা করে দেবে। কিন্ত সালিশ বিচারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী দালালরা ওই টাকা মোজাহিদের পরিবারকে দেয়নি। এ নিয়ে আবারো গ্রাম্য সালিশ বসে। এরই মধ্যে মোজাহিদ অবৈধভাবে সেখানকার পুলিশের ভয়ে দিকবেদিক ছুটাছুটি করতে থাকে।

দীর্ঘ ৬ মাস পরে জঙ্গল ও বিভিন্ন স্থানে থেকে আকস্মিক এক মর্মান্তি সড়ক দূর্ঘটনায় সে গুরুতর আহত হয়। প্রায় ২৬ দিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় থেকে মারা যায় মোজাহিদ। আহত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দালালের নিকট তার পাসপোর্ট ও ভিসা চাইলেও তারা দেয়নি। শেষ পর্যন্ত সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হয়ে চিকিৎসাধীন সেখানকার একটি হাসপাতালেই মারা যায় মোজাহিদ।

এ নিয়ে দালাল পক্ষের সঙ্গে মোজাহিদের পরিবারের গত রমজানের ঈদের পরের দিন বড় ধরণের সংঘর্ষ হয়। এ ঘটনায় সম্প্রতি উপজেলার স্থানীয় মঙ্গলপুরবাজার সংলগ্ন স্থানীয় দারুল হেরা দাখিল মাদ্রাসা প্রাঙ্গণে বিষয়টি নিস্পত্তির লক্ষ্যে বৈঠকে বসেন এলাকার বিশিষ্টজনেরা।

স্থানীয় সালিশ ব্যক্তিত্ব ফতেফুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন, দোয়ারাবাজার উপজেলার আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক ও দোয়ারাবাজার সদর ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান হাজী আব্দুল খালেক, আওয়ামী লীগ নেতা দেওয়ান তানভীর আশরাফী চৌধুরী বাবু, পান্ডারগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান ফারুক আহমদ, পান্ডারগাঁও ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল ওয়াহিদ, সুরমা ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান শাহজাহান মাস্টার, নরসিংপুর ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান, আওয়ামী লীগ নেতা শামিম আহমদ, দোয়ারাবাজার উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে আসা সুশীল সমাজের আরো নেতৃবৃন্দ।

সালিশ বৈঠকে সকলের মতামতের ভিত্তিতে দালাল পক্ষ আগামী ২০ জুলাই ক্ষতিগ্রস্ত মোজাহিদের পরিবার কে ভিসার ক্ষতিপুরণ বাবদ ৪ লাখ টাকা দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। দালাল পক্ষও স্থানীয় সালিশের ওই সিদ্ধান্ত কে মেনে নেয়।

মোজাহিদের বয়োবৃদ্ধ পিতা জমির আলী কান্নায় ভেঙ্গেপড়ে বলেন, আমার ছেলে লাশ হয়েছে। আমার ছেলে তো আর ফিরে আসবেনা।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৭

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: মকিস মনসুর আহমদ
সম্পাদক ও প্রকাশক: খন্দকার আব্দুর রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
অফিস: ৯/আই, ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট।
ফোন: ০৮২১-৭২৬৫২৭, মোবাইল: ০১৭১৭৬৮১২১৪
ই-মেইল: [email protected]

Developed by: